1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
প্রেমে সাড়া না দেয়ায় বাড়িতে আগুন, দুই ঘর পুড়ে ছাই - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:০৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শ্রীপুরে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল ! সুবর্ণজয়ন্তী রোভার মুটে কুবি রোভার স্কাউটদের অংশগ্রহণ ঠাকুরগাঁওয়ে ২৫০কোটি টাকা ঋণের বোঝা ও শতকোটি লোকসান নিয়ে দীর্ঘদিন চালু ছিল চিনিকল

প্রেমে সাড়া না দেয়ায় বাড়িতে আগুন, দুই ঘর পুড়ে ছাই

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
  • ১২৬ বার

তন্ময় আলমগীর, কিশোরগঞ্জ:
কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে দরিদ্র মহর উদ্দিন উরুফে পাতু মিয়ার গোয়ালঘর ও রান্না ঘরে আগুন দিয়ে গরু ছাগল পুড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা। গরু ছাগল রক্ষা পেলেও ঘর দুটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

এলাকার কতিপয় দুস্কৃতিকারী মেয়ের সাথে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে এ ঘটনা ঘটাতে পারে বলে ধারণা করছেন গৃহকর্তী মমতা বেগম। উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের উত্তর জালালপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।

মমতা বেগমের সাথে কথা বলে জানা যায়, শুক্রবার গভীর রাতে বাড়ির ভিতর কিছু লোকের পায়ের শব্দ শুনে ঘুম ভেঙে যায়। কে কে বলে চিৎকার দিয়ে ঘর থেকে বের হতেই দেখেন তিনটি লোক বাড়ির দক্ষিণ দিকের রাস্তা দিয়ে দ্রুত সামনের দিকে হেঁটে যাচ্ছে।

অল্প কিছুক্ষণ পর আধোঘুমে চোখ বন্ধ হলে হঠাৎ আগুনের ঝলকালি চোখে লাগে। চেয়ে দেখেন গোয়াল ঘরে আগুন জ্বলছে। চাদর মোড়ানো তিনটি লোক দ্রুত দক্ষিণ দিকের রাস্তা দিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে।

মমতা বেগমের ডাক চিৎকারে তার স্বামী মহর উদ্দিন উরুফে পাতু মিয়া ঘুম থেকে জেগে গোয়াল ঘর থেকে তার গরু ছাগল গুলি বের করে আনেন। এর মধ্যেই তার গোয়াল ঘর ও রান্নাঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

দরিদ্র পাতু মিয়ার নিজের জমি নেই। পরের জমিতে কাজ করেন। তার স্ত্রীও পরের বাড়িতে কাজ করেন। গরুটিও অন্য জনের। বড় করার শর্তে লালন পালন করেন।

বিভিন্ন সমিতি থেকে ঋণ নিয়ে ছাগল ৩টি কিনেছেন। এভাবেই অতিকষ্টে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া ও সংসার চালিয়ে আসছেন।

গৃহকর্ত্রী মমতা বেগম বলেন, বড় মেয়ে গাজীপুরে একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেন। দুই মেয়ে এক ছেলে বাড়িতে থাকে। দ্বিতীয় মেয়েকে এলাকার কিছু ছেলে বিরক্ত করতো। কয়েকদিন যাবত সে বাড়িতে নেই। এ ক্ষোভ থেকে প্রতিশোধ নিতে এ ঘটনা ঘটাতে পারে।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার শাজাহান মিয়া বলেন, পাতু মিয়া অন্যের জমি চাষ করে খেটে খাওয়া এবং খুবই নিরীহ প্রকৃতির লোক। সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আইনের আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দিয়েছি।

কটিয়াদী মডেল থানার ওসি এম,এ জলিল বলেন, এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম