1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মধুর ক্যান্টিনের সামনে হাতবোমা বিস্ফোরণ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৫০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
পথশিশুদের নিয়ে বিশ্বকাপ ফুটবল উৎসবে ঢাকা ইয়ুথ ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল রাউজানে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে কিলোমিটার জুড়ে আলোকসজ্জা ও মাইকের শব্দ দুষণ জনজীবন অতিষ্ট এক ঘন্টা পর ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কে ট্রেন চলাচল শুরু মীরসরাইয়ে বন বিভাগের উচ্ছেদ অভিযানে ১ একর জায়গা উদ্ধার শ্রীপুরে হযবরলের মাধ্যমে চলছে ভুমি জরিপ!ষুষে মেলে মুক্তি। সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ড বাঞ্ছারামপুর বার্তার সম্পাদককে হুমকীর প্রতিবাদে মানববন্ধন দরিদ্র মানুষের মাঝে সৈয়দপুরে জামায়াতে ইসলামী শীতবস্ত্র বির্তরণ রাউজান দলিল লিখক সমিতির সভাপতি অজিত কুমার দে- সম্পাদক মিজানুর রহমান বিএনপি না এলেও নির্বাচন হয়ে যাবে- নজিবুল বশর এমপি

মধুর ক্যান্টিনের সামনে হাতবোমা বিস্ফোরণ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৯৮ বার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার :
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে আবারও হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে মধুর ক্যান্টিনের সামনের রাস্তার পাশে বিস্ফোরণটি হয়। তবে এতে কেউ হতাহত হননি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী। তিনি বলেন, যারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় তাদের বের করার চেষ্টা চালাচ্ছি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাতবোমা বিস্ফোরিত হওয়ার সময় মধুর ক্যান্টিন ও ডাকসু ভবনের কাছেই সাদা পোশাকে দুজন পুলিশ অবস্থান করছিলেন। এক রিকশাওয়ালাও সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন। তবে বিস্ফোরণে তাদের কোনো ক্ষতি হয়নি।

নিউমার্কেট পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রইস উদ্দিন এ বিষয়ে বলেন, কারা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বা কোথা থেকে ককটেলটি ছুড়ে মারা হয়েছে, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে এতে কারও কোনো ক্ষতি হয়নি।

২৬ ডিসেম্বর থেকে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ওই দিন ছোট একটি বিস্ফোরণের পর মধুর ক্যান্টিন ও আইবিএ ভবনের গেটের মাঝামাঝি জায়গায় একটি অবিস্ফোরিত ককটেল পাওয়া যায়। পরে পুলিশ ককটেলটির নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ ঘটায়।

এর তিন দিন পর ২৯ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় মধুর ক্যান্টিনের সামনে তিনটি এবং বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ডাকসু ভবনের পাশে হাতবোমা ফাটানো হয়। পর দিন ফের মধুর ক্যান্টিনের সামনে দুটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটে।

এর আগে ১ জানুয়ারি সকালে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশের কয়েক গজ দূরে একটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম