1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
করোনা ভাইরাসের কারণে গাইবান্ধা জেলা উপজেলা সদর ও গ্রামাঞ্চলের রাস্তাঘাটগুলো জনশূন্য ॥ যানবাহন চলাচল বন্ধ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শুক্রবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
অবরোধের সমর্থনে ঢাকার মালিবাগ চৌধুরীপাড়া আবুল হোটেল এর সামনে সাবেক ছাত্র নেতৃবৃন্দের মিছিল শ্রীপুরে সাংবাদিকের উপর হামলা | ‘২৮ অক্টোবর শাপলা চত্ত্বরে মহা-সমাবেশ বাস্তবায়ন উপ-কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকারের পতন সময়ের ব্যাপার মাত্র – মেজর জেনারেল অবসরপ্রাপ্ত সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক। সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান আকন্দকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে রাজধানীতে ছাত্রশিবিরের বিক্ষোভ মিছিল শ্রীপুরে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট আউটলেট উদ্বোধন এডিস মশা নিরোধক বিটিআই পণ্যের উদ্বোধন অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের অনুদান প্রদান – সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বিনামূল্যের সরকারি বই কেজি দরে বিক্রি। কোটি টাকার বিনিময়ে নাঙ্গলকোট উপজেলা সমিতির কমিটি

করোনা ভাইরাসের কারণে গাইবান্ধা জেলা উপজেলা সদর ও গ্রামাঞ্চলের রাস্তাঘাটগুলো জনশূন্য ॥ যানবাহন চলাচল বন্ধ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০
  • ১০৯ বার

আনোয়ার হোসেন শামীম, গাইবান্ধা :
করোনা ভাইরাসের কারণে ২৬ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দোকানপাট ও সকল প্রকার যানবাহন চলাচলে বন্ধ থাকার নির্দেশনা কার্যকরী হওয়ায় গাইবান্ধা জেলা উপজেলা সদর, গ্রামাঞ্চলের রাস্তাঘাট ও বন্দরগুলো জনশূন্য হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে দোকান খোলা রাখলে বা মুখে মাস্ক না লাগিয়ে রাস্তায় চলাচল করলে পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর এ্যাকশন শুরু হওয়ায় মানুষের মধ্যে আতংক সৃষ্টি হওয়ায় কেউ আর ঘর থেকে বের হচ্ছে না। ফলে সকাল থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত গাইবান্ধা জেলা শহরের ব্যস্ততম সড়কগুলো একেবারেই ছিল জনশূন্য। মাঝে মাঝে দু’একটি অটোরিক্সা, অটোবাইক ও বাইসাইকেল নজরে পড়লেও সবাই মাস্ক লাগিয়ে চলাচল করছে। শহরে অটোরিক্সা ও অটোবাইকের চলাচল সীমিত হয়ে পড়ায় বাহির থেকে আসা লোকজন পরিবার-পরিজনকে হেঁটেই চলাচল করতে হচ্ছে। এছাড়া ঔষুধসহ প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করতে গিয়েও যানবাহন সংকটে লোকজনরা দুর্ভোগে পড়েছে।
খাবার ও চায়ের দোকান, ঔষুধের দোকান, বাজারে চাল-ডাল, মাছসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দোকানপাট খোলা রাখার জন্য সরকারের নির্দেশনা থাকলেও ভয়ে খাবার হোটেল, রুটির দোকান ও চায়ের দোকানগুলো বন্ধ হয়ে গেছে। এতে যারা হোটেল-রেষ্টুরেন্টের নাস্তা এবং খাবারের উপর নির্ভরশীল তারা বিপাকে পড়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম