1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : naga5000 : naga5000 naga5000
বুয়েটপাশ শাহবাগের সেই নারীবাদী যখন ঘরে নারীর প্রতি হিংস্র ডাইনি - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০২:৩৩ অপরাহ্ন

বুয়েটপাশ শাহবাগের সেই নারীবাদী যখন ঘরে নারীর প্রতি হিংস্র ডাইনি

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ১২৮ বার

আবদুল্লাহ মজুমদারঃ রাজধানীর উত্তরায় এক গৃহপরিচারিকাকে জিনিস নষ্টের অপবাদ ও জখম-নির্যাতনের পর বাসা থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে সাইয়েদা সুলতানা এ্যানি নামে এক নারীনেত্রীর বিরুদ্ধে। নির্যাতনের শিকার হওয়া ওই তরুণী বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে অমানবিক ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন।

নির্যাতনকারী সাইয়েদা সুলতানা এ্যানি ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেত্রী, বুয়েটিয়ান ইঞ্জিনিয়ার ও বুয়েটের একটি হলের সাবেক ভিপি। তিনি নারীর অধিকার ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে শাহবাগের রাজপথ থেকে টেলিভিশন টকশোতে জ্বালাময়ী বক্তব্য দেন বলে তার সহকর্মীরা জানিয়েছেন। গৃহপরিচারিকাকে নির্যাতনের ঘটনায় এ্যানির শাস্তি দাবি করেছেন অনেকে।নির্যাতনের শিকার তরুণী জানান, ‘উত্তরা ৩নং সেক্টরের ৭ নং রোডের ৩৩ নম্বর বাসার ষষ্ঠ তলায় কাজ করতাম। অপর এক গৃহকর্মী কাজ করার সময় ফ্রিজে দাগ ফেলে দেয়। এতে বাসার মালিক আমার ওপর অপবাদ ফেলে এবং আমাকে ব্যাপক, মারধর করলে একপর্যায়ে আমি প্রাণভয়ে বাড়ি থেকে বের হতে চাইলে তিনি আমাকে গেট লাগিয়ে মারধর করেন। পরে অনেক কষ্ট করে কোনরকম সেখান থেকে বের হয়ে আমি পুলিশের শরণাপন্ন হই।’

নির্যাতিত তরুণীর পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা গেছে, সাইয়েদা সুলতানা এ্যানি অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও চড়াও হচ্ছেন ওই গৃহপরিচারিকার ওপর।নির্যাতনের শিকার তরুণী ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘এই করোনার মহামারিতে মানুষ এমন হিংস্র কিভাবে হতে পারে। আজ গরীব হয়ে জন্ম নিয়েছি বলে, বড় লোকদের হাতে মার খেয়ে চুপ থাকতে হচ্ছে, কারণ পুলিশ শুধু বড়লোকদের, আমি মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে ছোট একটা জবে ঢুকেছিলাম, এর মধ্যে করোনার জন্য চাকরি শেষ পর্যন্ত করতে পারি নাই, ভাবলাম বসে থেকে কি হবে, এক পরিচিত ভাই ভাইয়ের মাধ্যমে এক বড়লোকের বাড়িতে একটা প্রতিবন্ধী মেয়ে দেখাশোনা করার জন্য কাল যাই। সমান্য একটা ভুলের কারণে, যেই ভুলটা আমি করি নাই, ফ্রিজ পরিস্কার করা নিয়ে একটু দাগ হওয়ার কারণে, কাল থেকে আজ সকাল পর্যন্ত আমাকে আটকে রেখে এমন নির্যাতন করে, আমি বার বার বলছি ম্যাম আমাকে যেতে দেন, উনি পরে আমার একটা ভিডিও ধারণ করে, যেখানে আমাকে জোরপূর্বক বলতে বলে যে আমি উনার বাসা থেকে ইচ্ছাকৃত চলে যাচ্ছি, আমি মারের ভয়ে বলতে বাধ্য হয়েছি, তার পর আমি থানায় যাই কিন্তু কোন কাজ হয়নি, পুলিশ আমার সাথে আসছে ঠিক কিন্তু, উনার সাথে ফোন কথা বলে, আমাকে বলছে আপনি বাসাই যান, আমরা দেখছি বেপারটা, যানি আমি এটার আর কিছু হবে না, তাই আপনাদের সাথে কথাটা শেয়ার করলাম, মানুষ কোন সময় এমন সিদ্ধান্ত নেয় কারো বাসায় কাজ করার সেটা অবশ্যই বুঝতে পারছেন, পরিস্থিতি মানুষকে অসহায় করে ফেলে, যখন মা বাবা মুখের দিকে তাকাই তখন আর কোন কিছু মাথাই আসে না।’

বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ও গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম সংগঠক বাপ্পাদিত্য বসু এ ঘটনায় ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ফ্রিজে দাগ লাগানোর অজুহাতে মিমকে জঘন্যভাবে মারধর করেন কমরেড এ্যানী। মিম কৌশলে কিছুটা ভিডিও করতে সক্ষম হয় তার সেলফোনে। মারধরের ছবিগুলো সব ওঠেনি, কিন্তু আর্তনাদ ও মারধরের শব্দগুলো পরিষ্কার। এক পর্যায়ে মিম চলে যেতে চান সে ফ্ল্যাট থেকে। কিন্তু দরজা আটকে রেখে আবার মারধর করেন কমরেড এ্যানী। এমনকি মিম চলে যাবার আগে, তাকে জোর করে বলতে বাধ্য করেন তেজস্বী কমরেড যে তিনি স্বেচ্ছায় চলে যাচ্ছেন। পাপিয়া আক্তার মিম এর ভিডিও ও ছবিতে কমরেড এ্যানীর ছবি পরিষ্কার। আহারে সুশীল, আহারে তার বামপন্থা, আহারে নারী অধিকার!!! আসুন, নির্যাতিতা মিমের পাশে দাঁড়াই। সোচ্চার হই। নাকি এবারও আপনি বামপন্থী গায়িকা কমরেড কৃষ্ণকলির বাসায় গৃহকর্মী জান্নাত আক্তার শিল্পী হত্যার সময় যেমন নিরব ছিলেন, তেমনই নিরব থাকবেন? আপনি কি প্রতিবাদটাও করবেন বেছে বেছে? সিদ্ধান্ত আপনার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম