1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মাগুরা শালিখার ব্যবসায়ীরা দোকান ও বাড়ি ভাড়া মওকুফ চান - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:১৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শ্রীপুরে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল ! সুবর্ণজয়ন্তী রোভার মুটে কুবি রোভার স্কাউটদের অংশগ্রহণ ঠাকুরগাঁওয়ে ২৫০কোটি টাকা ঋণের বোঝা ও শতকোটি লোকসান নিয়ে দীর্ঘদিন চালু ছিল চিনিকল

মাগুরা শালিখার ব্যবসায়ীরা দোকান ও বাড়ি ভাড়া মওকুফ চান

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ১২১ বার

মোঃ সাইফুল্লাহ : মাগুরা জেলার শালিখা উপউপজেলায় করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবে খেটে খাওয়া নিম্নবিত্তের কর্মহীন পিছিয়ে পড়া মানুষগুলোর পেটে খাবার নেই। সরকারি সাহায্যে সহযোগীতা নামকা ওয়াস্তে যা পাচ্ছে তাতে আর কতদিন চলবে? মাঝে মাঝে সরকারি,বেসরকারি ,এনজিও ,স্বেচ্ছাসেবী , ব্যক্তি উদ্যেগে নিজেস্ব অর্থায়নে যতটুকু ত্রাণ সামগ্রী পাচ্ছে তাতে কি সংসার চলবে এই নিম্ন আয়ের মানুষগুলোর। এই অবস্থায় বাড়ি ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল ,সংসার খরচ, মেস ভাড়া , দোকান ভাড়া কোথায় থেকে দিবে এই নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষ গুলো? বাংলাদেশের বেশির ভাগ খেটে খাওয়া মানুষ। যাদের পেট চলে কৃষি কাজ করে। এধরণের মানুষ একদিন কাজ না করলে পরিবারে সদস্যদের পেটের আহার তুলে দিতে পারে না। এই অবস্থায় গত প্রায় এক মাস গোটা মাগুরা জেলা ঘোষিত লকডাউন আছে৷ এই অবস্থায় রাস্তায় পুলিশ ,ম্যাজিস্ট্রেট , র‌্যাব ও সেনাবাহিনী দ্বারা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে চেষ্টা করছে যাতে মরণ ঘাতি রোগ করোনা ভাইরাস বিস্তার না করতে পারে। এই সকল কারণে বাড়ি ভাড়া, দোকান ভাড়া সহ সকল ভাড়া মওকুফ করার আহবান জানিয়েছেন শালিখা উপজেলা সদর আড়পাড়া বাজারের একাধিক ব্যবসায়ীগন৷ আড়পাড়া বাজার ব্যবসায়ী তুহিন বিশ্বাস সহ আরো অনেকেই জানান লকডাউন থাকায় দোকানপাট খুলতে না পারায় ব্যবসা বাণিজ্য চলমান না থাকায় আমরা খুবই কষ্টে দিন অতিবাহিত করছি। নিজেই চলতে পারছিনা এদিকে দোকানের ভাড়া কিভাবে দিবো বুঝতে পারছিনা?
আইন অধিকার বাস্তবায় ফোরাম এর উপদেষ্টা গবেষক শ্রী ইন্দ্রনীল বিশ্বাস বলেন –বর্তমানে করোনা ভাইরাসে গোটা মাগুরা জেলা লকডাউন আছে৷এমন অবস্থায় প্রতিটা মানুষের সংসার খরচ চালাতে হিমসিম খাচ্ছে । সরকারি-বেসরকারি ভাবে যে সব খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে এই ত্রাণসামগ্রী সু- ষম বন্টন হলে কেউ আর অভূক্ত থাকবে না। এরি মধ্যে কোন আয় নেই তারা বাড়ি ভাড়া, দোকান ভাড়া দিবে কিভাবে? তাই ক্ষুদ্র ও স্বল্প পুঁজির ব্যবসায়ীদের দুই মাসের ভাড়া মওকুফ করার বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি৷ যদি বাড়ী ও দোকান মালিকগন মানবিক দৃষ্টি দেন৷ এদিকে মাগুরা জেলার সম্মানিত সকল বাড়িওয়ালাকে ভাড়াটিয়াদের প্রতি সহনশীল, মানবিক ও যৌক্তিক আচরণ করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে অনুরোধ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম