1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : naga5000 : naga5000 naga5000
হাজী মতিনের মানবিকতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০১:৩২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
রাউজানে পীরে কামেল আল্লামা আবদুস ছোবাহান শাহ মাইজভাণ্ডারী”র ৩৪তম ওরশ শরীফ অনুষ্ঠিত শেষ কর্ম দিবসে , বুয়েট- উপাচার্য ড. সত্য প্রসাদ মজুমদারকে তার কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শত শত কর্মকর্তা-কর্মচারী Tips for choosing the best sugar daddy for you Fun88 Sổ Xô Miên Nam Hôm Nay: Hướng Dẫn Chơi Online Với Trang Đánh Bài Uy Tín Thabet88 আ’লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বাঁশখালী আ’লীগে ঐক্যের সুর 1win – лучшая букмекерская контора с высокими коэффициентами и широкой линией ставок для азартных игроков ১০৫ জন অধ্যাপক ও সহযোগী অধ্যাপক থাকা স্বত্বেও ডিন হওয়ার অভিযোগ কুবি উপাচার্যের বিরুদ্ধে নকলায় ইউএনওর সাজানো মামলা থেকে সাংবাদিক রানা বেকসুর খালাস ঠাকুরগাঁয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে আওয়ামী লীগের পৃথক পৃথক ভাবে ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন। বাস্তব জীবনেও সামাজিক মাধ্যমের প্রভাব

হাজী মতিনের মানবিকতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১ মে, ২০২০
  • ১৪৭ বার

নুর আলম সিদ্দকী, স্টাফ রিপোর্টার ঃ দেশে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জন সচেতনায় ব্যাপক প্রচারনা ও কর্মহীন দুস্থ্য মানুষের মধ্যে খাদ্য সহায়তা দিয়ে মানবিকতার অনন্য এক দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন ধামসোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিপ্লবী সাধারন সম্পাদক হাজী মতিউর রহমান মতিন। তিনি গত দেড় মাসে প্রায় দুই হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন। বর্হি বিশ্বের মতো বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের কারনে দেশের শ্রমজীবী, মধ্যবিত্ত শ্রেনির মানুষ সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে। কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় খাবার সংকট দেখা দিয়েছে তাদের। অনেক মধ্যবিত্ত হয়তো খাবারের অভাবে থাকলেও লোক লজ্জায় মুখ ফুটে কাউকে বলতেও পারে না। এমন ক্রান্তিকালীন পরিস্থিতিতে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে নিজ ইউনিয়নের কর্মহীন নিম্ন মধ্যবিত্ত ও অসহায় পরিবারের পাশে দাড়িঁয়েছেন তিনি।
জানাযায়, দেশের সংকটাপন্ন পরিস্থিতিতে ধামসোনা ইউনিয়নের অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে থেকে সহযোগিতা দিয়েই চলেছেন তিনি গোপনে মধ্যবৃর্ত্তদের ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন,বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস দেখা দেওয়ার পর থেকে আমার নেতা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী ও দেশরত্ন শেখ হাসিনা দেশের মানুষের জন্য দিন রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তিনি করোনা প্রতিরোধে ৩১ দফা ঘোষনা দিয়েছেন।আমি তার একজন কর্মি হিসাবে ৩১ দফা বাস্তবায়নে সর্বাত্বক ভাবে কাজ করে যাচ্ছি।সে জন্য আমি ধামসোনা ইউনিয়নের মধ্যে প্রতিদিন কোন না কোন ভাবে কর্মহীন দুস্থ্যদের খাদ্য সহায়তা দিয়ে আসছি। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে আশুলিয়া থানার সকল বৃত্তবানদের কে আমি অনুরোধ করে বলতে চাই আপনারা কর্মহীন, অসহায় দরিদ্র ও নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষের পাশে দাঁড়ান এবং আপনাদের নিকটে অগনিত অসহায় জনতা যারা দু’বেলা দু’মুঠো ভাতের জন্য উপবাসে দিন কাটাচ্ছে দয়াকরে তাদের দিকে হাত বাড়িয়ে দিন। তিনি আরো বলেন, ধামসোনা ইউনিয়নের সকল শ্রেনী পেশার মানুষের জন্য আমার মোবাইল ফোন সব সময় খোলা থাকবে এবং যারা মধ্যবিত্ত লোক লজ্জায় কিছু বলতে পারছেন না তারা মোবাইল এর মাধ্যমে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করুন আপনাদের পরিচয় গোপন রেখে আমার সাধ্য অনুযায়ী সহযোগিতা করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

আশুলিয়া থানা পবনারটেক এলাকার সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব ধামসোনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বিপ্লবী সাধারন সম্পাদক আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে পরিক্ষিত সৈনিক দুঃসময়ের রাজ পথের যাকে পাওয়া যায় দলের জন্য হাজী মতিউর রহমান মতিন এক নিবেদিত প্রাণ। তিনি ছাত্রজীবনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শেঅনুপ্রাণীত হয়ে এলাকায় ছাত্রলীগের রাজনীতির মধ্যে দিয়ে রাজপথে রাজনীতির যাত্রা শুরু করেন।

তিনি ১৯৮১ সালে সাভার কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচন করেন।
১৯৮৫ সালে ধামসোনা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন।
১৯৯০/৯১ গণ আন্দোলণে রাজপথে ব্যাপক ভুমিকা রেখেছেন। তৎকালীন বিরোধিদল হিসাবে বিএনপি জামাত জোটের রোষানলে পরে বহু নির্যাতন জেল জুলুমের শিকার হন তিনি।
১৯৯৮ সালে সাভার উপজেলা যুবলীগের সহ- সভাপতি নির্বাচিত হন।
এর পর ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়ে সুনামের সাথে ৫ বছর দ্বায়িত্ব পালন করেন। এসময় এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন ও কাজ করার কারনে জনপ্রিয়তা সৃষ্টি হয়।
তিনি পবনার টেক সরকারী স্কুল ও মসজিদ মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।
২০০৩ সাল থেকে ২০১৪ সাল ও ১৪ সাল থেকে অদ্যবধি সফলতার সাথে পর পর দুই বার ধামসোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন।এই দ্বায়িত্ব পালন কালে তিনি বহু ত্যাগ স্বীকার করেছেন।

কাজ করার কারনে জনপ্রিয়তা সৃষ্টি হয়। তিনি পবনার টেক সরকারী স্কুল ও মসজিদ মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।২০০৩ সাল থেকে ২০১৪ সাল ও ১৪ সাল থেকে অদ্যবধি সফলতার সাথে পর পর দুই বার ধামসোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন।এই দ্বায়িত্ব পালন কালে তিনি বহু ত্যাগ স্বীকার করেছেন। তার জন্য তিনি কখনও জাতির জনক বঙ্গ বন্ধুর আর্দ থেকে সওে যায়নি। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের রাজপথের লড়াকু সৈনিক হিসাবে তিনি ছিলেন সবার আগে তার সৎ ন্যায় নিষ্ঠা ও আর্দশ এলাকার জনগণকে মুগ্ধ করেছে।এলাকার দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে তিনি ছিলেন অবিচল।দীঘ সময় রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করার কারনে জামাত বিএনপি জোট সরকারের রোষানলে পরে বহু মামলা হামলা জুলুম নির্যাতনের শিকারন হন।এর পরও বঙ্গবন্ধুর আর্দশ থেকে কেউ একটুও সরাতে পারেনি। দেশ ও দলের স্বার্থে জননেত্রী মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার যে কোন নির্দেশ মতো সাভার উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্দেশনায় দলীয় নেতা কর্মিদের সাথে নিয়ে সব সময় রাজ পথ নিজেদের দখলে রেখেছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম