1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
আনোয়ারায় ভূমিদস্যু চাচার অত্যাচারে ভাতিজা দিশাহারা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শোলাকিয়া ঈদগাঁহ ময়দানের ঈদুল ফিতরের নামাজ লাখ লাখ মানুষের অংশগ্রহণ ঠাকুরগাঁওয়ে আম বাগানগুলোর গাছে ব্যাপক পরিমাণে আম ঝুলছে ! ঠাকুরগাঁওয়ের সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে আনন্দের সীমা নেই! কারণ ভারতের কাছ থেকে ৯১ বিঘা জমি উদ্ধার ! Feelflame Evaluation: Initial Statements ঠাকুরগাঁও জেলা ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বাসিকে ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাংবাদিক মোঃ মজিবর রহমান শেখ, Onwin bahis adresi nasıl alınır? Hızlı ve Kolay Rehber Site Adres Güncellemesi Onwin bahis sitesi ile oynayarak heyecan dolu oyunlara katılın! En güvenilir ve kazançlı bahis deneyimi Onwin’de sizi bekliyor. আলহাজ্ব  আমজাদ হোসেন মোল্লার উদ্দ্যোগে রাজধানীর রূপনগরে  গরীব, অসহায় পাশাপাশি  বিএনপির নেতা কর্মীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ মাগুরায় রেনেসার উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে নবাগত এসিল্যান্ড জাকিয়া সরওয়ার লিমা’র যোগদান

আনোয়ারায় ভূমিদস্যু চাচার অত্যাচারে ভাতিজা দিশাহারা

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০
  • ১১২ বার

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রামের আনোয়ারা থানার অন্তর্গত হাজী কালা মিয়া বাড়ির বাসিন্দা ভূমিদস্যু চাচা আহমদ মিয়ার অমানবিক নির্যাতনে দিশেহারা ভাতিজা দিদারের পরিবার ।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ২০১০ সালে ভাতিজা দিদারের পরিবার চাচা আহমদ মিয়াঁ থেকে ঘর সহ বসত ভিটা কিনে নেয়। ১ বছর পূর্বে আহমদ মিয়ার স্ত্রী ও সন্তান এসে ঘরটি ওদের বলে দাবী করেন তখন আনোয়ারা থানা অফিসার্স ইনচার্জ দুলাল মাহমুদের এক সালিশি বৈঠক হয়। সালিশি বৈঠকে চাচা আহমদ মিয়াঁ সবার সামনে স্বীকার উক্তি দেয় যে আমি আহমদ মিয়াঁ আমার ভাতিজা দিদারের নিকট ঘর সহ জমি বিক্রি করে দিয়েছি। এই কথা শুনে অফিসার ইনচার্জ দুলাল মাহমুদ দিদার কে ঘরের চাবি দিয়ে দেয়। ঘর বাবদ আহমদ মিয়াঁ যে টাকা নিয়েছে তার স্টাম্পও আছে নোটারি করা।

ভাতিজা দিদার ও তার স্ত্রী জোসনা আক্তার ডলি চাচা আহমদ মিয়ার কাছ থেকে যেই ঘরটি নিয়েছিল গত বৎসর থেকে ঐ ঘরে বসবাস করতে থাকে কিন্তু হঠাৎ করে গত ২৪শে জুন সকালে চাচা আহমদ মিয়া তার লালিত সন্ত্রাসীদের নিয়ে ভাতিজা দিদার কে তার স্বীয় বসতভিটা থেকে উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এই সময় সন্ত্রাসীরা ব্যাপক ভাঙচুর এবং দিদারের স্ত্রী জোৎস্না আকতার ডলিকে ব্যাপক মারধর করে। থানাকে ফোন করে অবহিত করলে থানা পুলিশ উদ্যারে এগিয়ে আসেনি। শুধু তাই নয় একদিন পর মেডিকেল থেকে রিলিজ নিয়ে জোৎস্না আকতার ডলি থানাই গিয়ে মামলা করতে চাইলে থানা মামলা না নিয়ে একটি লিখিত অভি্যোগ নেয়।
অভিযোগের চার দিন অতিবাহিত হয়ে গেলেও থানা এখনও পর্যন্ত কোন কার্যকর ব্যবস্তা গ্রহন করেনি।
চাচা প্রকাশ্য ঘোষণা দিয়েছে দিদার আর তার ভাইকে পেলে জানে মেরে ফেলবে। যেই কারনে ঘটনার দিন থেকে আজ পর্যন্ত দিদার আর তার ভাই বাড়ি ছাড়া হয়ে জীবন রক্ষার জন্য পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

আমাদের প্রতিবেদক সরেজমিনে রিপোর্ট করতে গেলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে দু এক জনের কাছে ভিন্ন একটি তথ্য পাই। করোনা শুরুতে নাকি দিদারের পরিবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও ভূমি মন্ত্রী জাবেদ সাহেবের ঘোষণা মত অসহায় মানুষের মাজে ট্রাক ভর্তি করে অসহায় ৩০০ পরিবার কে উপহার সামগ্রি বা ত্রান দেয় দুই বার করে। এই সব কার্যক্রম কে গ্রামের মোড়ল সহ্য করতে না পেরে ভিন্ন একটি ঘটনা দিয়ে দিদার কে মান সম্মান নষ্ট করে গ্রাম ছাড়া কড়েছে। শুধু তাই নয় দিদারের এক রুমে ছিল চা ও কফির গোডাউন ঐ রুমটিতে তারা তালা ভেঙ্গে মালা মাল সহ নগদ টাকা পয়সা লোড করে নিয়ে যায়। এই সব লোটপাটের ভিডিও ফোটেজ ও রয়েছে সংরক্ষিত। দিদার ছিল একটি চা-কফি কোম্পানির দক্ষিণ জেলার ডিলার।

চাচা কর্তৃক অন্যায় ভাবে ভাতিজার জায়গা জবরদখলের ব্যাপারে ভাতিজা দিদার বলেন ” আমরা সহজ সরল মানুষ । কখনো কল্পনা করতে পারি নাই আমার চাচা এই ধরনের জঘন্য কাজ করবে? এক বছর পূর্বে থেকে এই ঘরে বসবাস করে আসছি। ত্রাণ দেওয়ার পর থেকে হঠাৎ করে আমি কি অন্যায় কাজ করেছি বুজতেছিনা। ত্রান দেওয়া অসহায় মানুষের পাশে দাডানো কি অন্যায়? এই কারনে আমার চাচা তার লালিত সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আমাদের কে জোরপূর্বক উচ্ছেদ করার চেষ্টা করছেন এবং প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছেন । এমতাবস্থায় প্রশাসনের সহযোগীতা ছাড়া আমরা খুবই অসহায় ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম