তিতাসে ক্রয়কৃত সম্পত্তি থেকে বেদখল করতে পায়তারা করছে একটি মহল

মোঃ জুয়েল রানা, তিতাসঃ

শেয়ার করুন
  • 35
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    35
    Shares

কুমিল্লা তিতাস উপজেলার মাছিমপুর গ্রামে ক্রয়কৃত সম্পত্তি থেকে বেদখল করতে পায়তারা করছে একটি মহল,এমন অভিযোগ করেন ওই গ্রামের সম্পত্তির মালিক মৃত অনিল চন্দ্র সাহার ছেলে অনিক সাহা। জানা যায়, উক্ত গ্রামের নারায়ন চন্দ্র পোদ্দারের কাছ থেকে একই গ্রামের অনিল চন্দ্র সাহা ২১ বছর পূর্বে বলরামপুর মৌজাস্থ জেএল নং ১২৫, আর এস খতিয়ান নং ১৫৬, সাবেক ৫৩ দাগের ৪৭ শতকের অন্দরে সাড়ে ২৩ শতক সাব কাবলা দলিল মূলে মালিক হয়ে ভোগদখল করে আসছে।

এদিকে সমির পোদ্দার, শভ পোদ্দার, অজিদ পোদ্দার, দিপক পোদ্দার, প্রদীপ পোদ্দারগণ পৈত্রিক ওয়ারিশ সূত্রে মালিকানা দাবি করে গ্রহিতা অনিল চন্দ্র সাহার ছেলেদেরকে বিভিন্নভাবে হয়ারনি করে আসছে এবং কোর্টেও মামলা করেছে। গত ১৯/৩/২০২০ইং এবং ৬/৯/২০১৭ ইং তারিখে প্রদীপ পোদ্দার বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করলে তিতাস থানার এস আই কমল মালাকার ও এ এস আই সোহেল তদন্তবার প্রাপ্তি হয়ে সরেজমিনে তদন্ত করে গ্রহিতা অনিল চন্দ্র সাহার ছেলেরা ভোগদখলে আছেন বলেও কোর্টে প্রদিবেদন দিয়েছেন। এতে করে প্রতিপক্ষ আরো ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন প্রকার ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে এবং অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে। এঘটনায় অনিল সাহার ছেলে অনিক সাহা বাদী হয়ে গত ৩ জানুয়ারী তিতাস থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন যাহার নং-১১০।

এবিষয়ে ক্রয় সুত্রে ভূমির মালিক অনিল সাহার ছেলে অনিক সাহা বলেন, ২১ বছর পূর্বে আমার পিতা নারায়ন পোদ্দারের কাছ থেকে ক্রয় করে সাবকাবলা দলিল মূলে মালিক হয়ে আমরা ভোগদখল করে আসছি কিন্তু হঠাৎ করে গত দুই বছর ধরে সমির পোদ্দার ও প্রদীপ পোদ্দারগং উক্ত জায়গা থেকে আমাদেরকে বেদখল করতে নানাহভাবে হয়রানি করে আসছে। এছাড়াও তাদের হয়রানির কারনে তার পিতা অনিল সাহা চিন্তা করতে করতে মৃত্যু বরণ করছে বলেও দাবী করেন অনিক সাহা এবং তার পিতার ক্রয়কৃত সম্পত্তি বুঝে পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

উক্ত জায়গার দাবীদার অপর পক্ষের শুভ পোদ্দার বলেন, এই সম্পত্তির মালিক আমার দাদা চিন্তা হরণ পোদ্দার কিন্তু আমাদেরকে না জানিয়ে আমার জেঠা নারায়ন চন্দ্র পোদ্দার অনিল চন্দ্র সাহার কাছে বিক্রি করেন। তাই আমরা দাদার ওয়ারিশ সূত্রে মালিক হয়ে উক্ত জায়গার উপর কোর্টে মামলা করেছি যা বর্তমানে বিচারাধীন আছে।

এদিকে মাছিমপুর বাজার ব্যবসায়ী কাজী রবিউল ও প্রতিবেশী বজন সাহা জানান, আমাদের জানামতে আজ থেকে প্রায় ২১ বছর পূর্বে নারায়ন চন্দ্র পোদ্দার থেকে সাব কাবলা দলিল মূলে ক্রয় সূত্রে মালিক হয়ে অনিল সাহা উক্ত জায়গাটি ভোগ দখল করে আসছে।


শেয়ার করুন
  • 35
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    35
    Shares
  •  
    35
    Shares
  • 35
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.