1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ডেঙ্গি সমন্বিতভাবে মোকাবিলা করতে হবে | দৈনিক শ্যামল বাংলা
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৫:২৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
চৌদ্দগ্রামের কাশিনগরে ভূমিহীনদের মাঝে ১১টি ঘর হস্তান্তর খুটাখালীর বৃহত্তর ৬ নং ওয়ার্ডে এবার মেম্বার প্রার্থী হচ্ছেন শাহাব উদ্দীন আরমান নোয়াখালীর ঐতিহ্য নোয়াখালী টাউনহলের আধুনিকীকরনের জোর দাবী জেলার বাসিন্দাদের ঝিনাইদহে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ১ জন নিহত, আহত-৫ নাঙ্গলকোটের কাকৈরতলা খন্দকার বাড়ির সামনের রাস্তায় জলাবদ্ধতা, চরম দুর্ভুগে জনজীবন ঘরে ঘরে জ্বর সর্দির রোগি, করোনা টেস্টে অনিহা চরম কষ্টে শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষ তিনদিনের টানাবৃষ্টিতে শরণখোলার ১৩ হাজার পরিবার পানিবন্দি শিক্ষকতা পেশার সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো জরুরি ধর্মপাশায় অগ্নিকান্ডে আড়াই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি গহিরায় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ইউনিয়ন ভিক্তিক টিকা প্রদানে উৎসাহিত করণ সভা

উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ডেঙ্গি সমন্বিতভাবে মোকাবিলা করতে হবে

___ মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার _
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৯ জুলাই, ২০২১
  • ৩৩ বার

করোনার তাণ্ডবে মানুষ যখন দিশেহারা, তখন দেশে ডেঙ্গিজ্বরের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় জনমনে উদ্বেগ আরও বেড়েছে।

হাসপাতালগুলোতে করোনা রোগীদের প্রয়োজনীয় সেবা দিতে চিকিৎসকসহ সংশ্লিষ্টরা হিমশিম খাচ্ছেন। এ অবস্থায় ডেঙ্গি রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকলে এসব রোগীর সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। ২০১৯ সালে দেশে ডেঙ্গিজ্বরের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ার পর সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের ফলে গত বছর নিয়ন্ত্রণেই ছিল রোগটি। কিন্তু এবার ডেঙ্গির প্রকোপ ঊর্ধ্বমুখী।

এক সপ্তাহ ধরে রাজধানীতে ডেঙ্গি রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এ রোগে আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবরও পাওয়া গেছে। ঢাকায় একদিনেই ডেঙ্গিজ্বরে নতুন আক্রান্ত ২৮ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ঢাকার বাইরেও আক্রান্ত হয়েছেন একজন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, উপসর্গ থাকা সত্ত্বেও অনেকে পরীক্ষা করাতে যাচ্ছেন না করোনা পরিস্থিতির কারণে। ফলে অনেক রোগী থেকে যাচ্ছেন শনাক্তের বাইরে।

আমরা জানি, এডিস মশার কামড়ে ডেঙ্গিজ্বর হয়। ঘরে-বাইরে পানি জমলেই এই মশা ডিম পাড়ে। তাই এ রোগ থেকে বাঁচার সহজ উপায় হলো ঘরে-বাইরে কোথাও যেন পানি না জমতে না পারে তা নিশ্চিত করা। আমাদের চারপাশের পরিবেশ সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখলে এডিস মশা বংশবিস্তারের সুযোগ পাবে না। সাধারণ মানুষের অভিযোগ, মশক নিধনে কর্তৃপক্ষের উদ্যোগ যথেষ্ট নয়। এ অবস্থায় কোথাও যেন মশার লার্ভা জন্মাতে না পারে সেজন্য সবাইকে সমন্বিতভাবে মশক নিধন করতে হবে।

দেশে ডেঙ্গি পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ২০০৭ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত এ রোগের প্রকোপ তুলনামূলকভাবে কম ছিল। বস্তুত ২০১৫ সাল থেকে রোগটির প্রকোপ বাড়তে শুরু করে। ২০১৭ সালে কিছুটা কমে ২০১৮ সালে আবার বেড়ে যায়। ২০১৯ সালে এ রোগের প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করে। এক গবেষণা প্রতিষ্ঠানের জরিপে দেখা গেছে, ২০১৯ সালে ডেঙ্গিজ্বরে আক্রান্তদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক ছিল শিশু, শিক্ষার্থী ও কর্মজীবী। কাজেই বিশেষভাবে শিশুদের সুরক্ষায় সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে এবং কর্মস্থলে সবাইকে এডিস মশার বিষয়ে থাকতে হবে সচেতন।

বিভিন্ন সময়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, রাজধানীর অভিজাত এলাকাগুলোতেও এডিস মশার লার্ভার ঘনত্ব উদ্বেগজনক পর্যায়ে রয়েছে।

সিটি করপোরেশনসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর পর্যাপ্ত উদ্যোগের অভাবের পাশাপাশি জনগণের উদাসীনতার কারণেই যে দেশে ডেঙ্গির প্রকোপ আবার বেড়েছে, তা বলাই বাহুল্য। কারও উপসর্গ দেখা দিলে তিনি করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গিতে আক্রান্ত কিনা তা যাচাই করার জন্য প্রয়োজনীয় পরীক্ষাগুলো করাতে হবে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে অনেকেরই প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করানোর সামর্থ্য নেই।

সেসব ক্ষেত্রে সরকারকে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। করোনা, ডেঙ্গি কিংবা যে কোনো রোগের প্রকোপ হঠাৎ বেড়ে গেলে সরকারিভাবে বিপুল অর্থ বরাদ্দই যথেষ্ট নয়। এসব ক্ষেত্রে বরাদ্দকৃত অর্থের সদ্ব্যবহার নিশ্চিত করা অতিজরুরি। দুর্নীতি রোধের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট খাতের কর্মীরা যাতে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেন, তাও নিশ্চিত করতে হবে।

লেখকঃ বিশেষ প্রতিবেদক শ্যামল বাংলা ডট নেট | সদস্য ডিইউজে | ও প্রকাশকঃ বাংলাদেশ জ্ঞান সৃজনশীল প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান |

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম