1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
জর্জরিত পূর্বাঞ্চলের রেলওয়ে সেন্ট্রাল বিল্ডিং যেকোন সময়ে বড় ধরনে দুর্ঘটনার শঙ্কা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মোটরসাইকেল শোডাউনের মাধ্যমে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হারুনুর রশিদ রঙ্গু’র পূজামন্ডপ পরিদর্শন মাগুরায় নির্বাচনী সহিংসতায় দু পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ!! নিহত -৪ আহত -২০ লাকসামে রাজনীতির প্রতিহিংসায় গাছের সাথে শত্রুতা! রাউজানে সুষ্ঠ ও শান্তিপুর্ণ ভাবে সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন নবীনগরে উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন কুবির দত্ত হলে জুনিয়র ছাত্রলীগ কর্মীরা মারধর করে সিনয়রকে সাঈদ হাসান,কুবি রাউজানে সব ধর্মের মানুষ অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে এমপি ফজলে করিম নবীগঞ্জে শেখ রাসেল দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত আমিলাইষের পূজামণ্ডপে আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক চৌধুরীর আর্থিক অনুদান ও কাপড় বিতরণ রিদওয়ান খালিদ চোধুরীর জন্মদিন আজ

জর্জরিত পূর্বাঞ্চলের রেলওয়ে সেন্ট্রাল বিল্ডিং যেকোন সময়ে বড় ধরনে দুর্ঘটনার শঙ্কা

এম আর আমিন : চট্টগ্রাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৩ বার

চট্টগ্রাম সিআরবি রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সেন্ট্রাল রেল ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। এ ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের বিভিন্নস্থানে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় ফাটল। খসে পড়েছে দেয়ালের আস্তরণ ও ইট সুরকী।
রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান অফিস ভবনটি ওপরে ফিটফাট হলেও ভেতরে সদরঘাট। বৃষ্টি বাইরে যত পড়ে না, ভবনটির ভেতরে তার চেয়ে বেশি পড়ে। রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। সবসময় থাকেন ধসে পড়ার আতঙ্কে যেকোন সময়ে ঘটে যাইতে পারে বড় ধরনে দুর্ঘটনা।রেলওয়ে সূত্র জানায়, দেশ ভাগ হওয়ার আগে ব্রিটিশরা নির্মাণ করেছিল এ ভবনটি। ১৮৯৭-১৯৭২ সালের মধ্যে কয়েক দফায় এটি নির্মিত হয়। প্রায় ২০ একর জায়গা নিয়ে এ ভবনটির অবস্থান। চার লাখ বর্গফুট এ ভবনটির আয়তন।ভবনটির একপাশ দোতলা সমান উঁচু, অন্য দিকটা চারতলার সমান। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভবনটি ক্ষতিগ্রস্ত হলেও সর্বশেষ সংস্কার হয় ১৯৭২ সালে।
সরেজমিনে দেখা যায়, জরাজীর্ণ রেলওয়ে সিআরবি ভুবনটির দেওয়ালের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় ফাটল। বৃষ্টি হলেই ছাদ দিয়ে পানি ছুঁইয়ে পড়ে। ভবনের অনেক স্থানে লোহা ও বাঁশের খুঁটি দিয়ে ঠেস দিয়ে রাখা হয়েছে, যাতে ছাদ ধসে না পড়ে। বিশেষ করে ভবনের চার তলার অবস্থা খুবই নাজুক।
রেলের পূর্বাঞ্চলের এ ভবনটি কর্মরত আছেন প্রশাসন, প্রকৌশল, এস্টেট, অডিট, জনসংযোগ মহাব্যবস্থাপকসহ প্রায় দুই হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী। রেলের একজন কর্মকর্তা বলেন, বাইরের রঙের প্রলেপ দেখে ভবনের বর্তমান অবস্থা বুঝা যাবে না। এখানে অফিস চলাকালীন সময় আতঙ্ক নিয়েই কাজ করতে হচ্ছে। অথচ এই ভুবনে থেকে প্রতি বছর হাজার কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্পের টেন্ডার হয়। তবে কর্মকর্তাদের পকেটবারী করার ব্যস্ততায় তাকেন। তাই এভুবনের উন্নয়নে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।এ ঝুঁকিপূর্ণ ভুবনটি নির্মাণে ২০১০ সালে ২৭ কোটি টাকার একটি উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) তৈরি করে পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু ২০২১ পষন্ত প্রায় এগার বছর পার হতে চললেও অনুমোদন মেলেনি সেই ডিপিপির। এরই মধ্যে আরও দুর্বল হয়ে পড়েছে ঐতিহ্যবাহী এ ভবনটি।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রেলেওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী সবুক্তগীন বলেন, সিআরবি ভুবনটি অনেক আগেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়েছে। সেজন্য ভবনটির সৌন্দর্য ও ঐতিহ্য বজায় রেখে এটিকে দৃঢ় ও মেরামত করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। বুয়েটের একটি বিশেষজ্ঞ টিম সিআরবির ঝুঁকিপূর্ণ এ ভুবনটি স্থাপনা পরিদর্শন করেছেন। দুই সদস্যের এ বিশেষজ্ঞ টিমের সদস্যরা জরুরি ভিত্তিতে ডিপিপি বাস্তবায়নের পরামর্শ দেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ট্র্যাক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন আরিফ বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ ভুবনটি সংস্কারে জন্য নতুন করে নভেম্বর ২০২০ সালে ছয় কোটি টাকার একটি উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) তৈরি করে পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো হয়েছে ।তবে গত দুই বছরেও অনুমোদন হয়নি। সিআরবি ভবনটি সংস্কার খুব জরুরি। ভবনের আকৃতি ও কারুকাজ বজায় রেখে কীভাবে ভবনটি টেকসই করা যায় সেজন্য একটি বেসরকারি প্রকৌশল সংস্থাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম