1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মহাসড়কে ‘ময়লার ভাগাড়’ দূর্ভোগে পোশাক শ্রমিকরা' - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মীরসরাইয়ের মায়ানীতে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালিত পটুয়াখালীতে প্রেমে রাজি না হওয়ায় কলেজ ছাত্রকে অপহরণ করে জোরপূর্ব বিয়ে শেখ রাসেল আত্মবিশ্বাস ও অনুপ্রেরণার উৎস : এম এ সালাম আশুলিয়ায় শেখ রাসেলের জন্মদিন পালিত নবীনগরে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে মেঘনা ফুটবল একাদশ চ‍্যাম্পিয়ন আনোয়ারায় শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উদযাপিত বিএসএমএমইউতে শেখ রাসেল শিশু ক্যান্সারে সারভাইবার গ্যালারি উদ্বোধন নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যােগে ৫৮তম শেখ রাসেল দিবস পালন ও পুরস্কার বিতরণ আগামী ২৪ নভেম্বর শুরু হবে ২০২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের এসএসসির প্রি-টেস্ট কৃমি সপ্তাহে চট্টগ্রামের ২৮ লাখ শিশু-কিশোর খাবে কৃমিনাশক ওষুধ

মহাসড়কে ‘ময়লার ভাগাড়’ দূর্ভোগে পোশাক শ্রমিকরা’

দেখার যেনো কেউই নেই

নুর আলম সিদ্দিকী মানু,বিশেষ প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২১
  • ২২ বার

ঢাকা জেলা সাভারের আশুলিয়ায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাইপাইল স্টান্ডের একটু দক্ষিণ পশ্চিমে মহাসড়কের ৪লাইনের চতুর্থ লেনে, মানিকগঞ্জ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী’র নির্দেশ সম্বলিত একটি ময়লা ফেলার নিষেধ নিঃসঙ্গ সাইনবোর্ড দেখতে পাওয়া গেলেও সেখানে ময়লার ভাগারে রুপান্তরিত করেছেন একটি চক্র।সাইনবোর্ডের সতর্কবাণীকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করছে ময়লা ফেলার চক্রটি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাইপাইলের শাহরিয়ার গার্মেন্টস এর বিপরীতে নবীনগর-চন্দ্রা মহসড়কের পশ্চিম পাড়ে হাবিব সিএনজি থেকে টিএস সিএনজি পাম্প পর্যন্ত দুর্গন্ধযুক্ত ময়লার ভাগার। স্থানীয় বিভিন্ন বাসাবাড়ি থেকে মাসিক টাকার চুক্তিতে একটি চক্র নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে, সওজ এর নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এভাবে মহাসড়কের পাশে ময়লা ফেলছেন দীর্ঘদিন ধরেই। ফলে এই পথ দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াতকারী হাজারো পোশাক শ্রমিক দুর্গন্ধে চলাচলে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

প্রতিদিন এই পথ দিয়ে ইপিজেডে যান পোশাক শ্রমিক মনির। তিনি জানান, ময়লার গন্ধে এখন প্রতিদিন আমাদের ১০মিনিটে হেটে চলাচলের রাস্তাটিতে যাওয়া আসা গাড়ী ভারা গুনতে হচ্ছে ২০ টাকা। দূরগন্ধে হেটে যেতে না পারায় প্রতিনিয়ত গারীতে চরে প্রতিদিন দুইবার এই পথে যাতায়াত করি। জ্যামের সময় দম বন্ধ হয়ে আসে। দেখবে কে, কেউ কি আছে?
নারী পোশাক শ্রমিক মনোয়ারা জানান, রাস্তার পাশে এভাবে ময়লা ফেলাটা কতটুকু সমীচীন? আমাদের যে যাতায়াতে কষ্ট হয়, সেটা দেখেরও কেউ নেই । বেশ কয়েকজন নিজের ক্ষোভ জানিয়ে বলেন, আপনারা লিখে আর কি করবেন? অনেক নিউজ তো হলো, কিন্তু ময়লা ফেলা কি বন্ধ হয়েছে? এমনতো না যে আজই ময়লা ফেলছে, দিনের পর দিন চলছে এভাবে ময়লা ফেলার পালা।

মুঠোফোনে বিষয়টি জানতে মানিকগঞ্জ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. গাউস-উল-হাসান মারুফের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, ময়লা ফেলার এটা একটা জাতীয় সমস্যা। এবিষয়টি যদি বন্ধ করতে হয়, প্রথমেই দেখতে হবে ময়লাটা কে ফেলছে। আমরা দেখেছি, বাসাবাড়ি থেকে একটি চক্র এভাবে ময়লা সংগ্রহ করে, ছোট ছোট ভ্যানে করে মহাসড়কের পাশে সওজের জায়গায় ফেলছে। সাভার পৌরসভার তাদের কিছু পিক-আপে করে নিয়ে এসে তারাও সওজের জায়গায় ময়লা ফেলে। আমরা এটা বন্ধ করার চেষ্টা করেছি, পুলিশের সাথে আলাপ করেছি, বিভিন্ন সময় ফিল্ডে যেয়ে যারা ময়লা ফেলে তাদের হাতেনাতে ধরেছি। আমাদের ম্যাজিস্ট্রেট তাদেরকে জরিমানা করেছেন। এমনকি ময়লা ফেলায় পৌরসভার গাড়ির বিরুদ্ধেও জরিমানা করা হয়েছে। কিন্তু ময়লা ফেলা তো বন্ধ হচ্ছে না। আমাদের ম্যাজিস্ট্রেট চলে যাচ্ছেন, আগের চেয়ে এবার আরও বেশী করে ময়লা ফেলছে ওই চক্র!
‘ময়লা না ফেলানোর সাইনবোর্ডটিই ময়লায় ডুবে আছে, বিষয়টি কিভাবে দেখছেন?’- এমন প্রশ্নের জবাবে নির্বাহী প্রকৌশলী মো. গাউস-উল-হাসান মারুফ বলেন,। পুলিশকে এবিষয়ে বড় ভূমিকা নিতে হবে। এক্ষেত্রে স্থানীয় থানা এবং হাইওয়ে পুলিশ ভূমিকা রাখলে বন্ধ হওয়া সম্ভব। বাস্তবে এক্ষেত্রে আইন প্রয়োগ ছাড়া এর কোনো সমাধান দেখছি না। তাই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পদক্ষেপ নিলে বিষয়টি রোধ করা সম্ভব।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে সাভার হাইওয়ে থানার ওসি সাজ্জাদ-উল-করিম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি এব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে সওজ এর জায়গায় জনচলাচলের পথে ময়লা ফেলার বিষয়টি সওজ এর ঢাকা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ শামীম আল মামুনকে মুঠোফোনে জানানো হয়। তিনিও বিষয়টি দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পলাশবাড়ী পশ্চিম পাড়ার জনৈক আলম এর নেতৃত্বে একটি ময়লা ফেলার চক্র এভাবে বাসাবাড়ি থেকে টাকা নিয়ে অবৈধভাবে মহাসড়কের পাশে ময়লা ফেলছে।

প্রতিদিন এই পথ দিয়ে ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ জোন (ডিইপিজেড) এর বিভিন্ন কারখানায় চলাচলকারী হাজার হাজার পোশাক শ্রমিকদের এবং অন্যান্য পথচারীদের প্রতিদিনের বিড়ম্বনার নীরব সাক্ষী ময়লা ডুবে থাকা সওজ এর ওই সাইনবোর্ডটি! সাধারণ মানুষের ন্যুণতম নাগরিক সুবিধার নিশ্চয়তাটুকু হারিয়ে যাচ্ছে এরকম আলম এবং তার থেকে অনৈতিক সুবিধা গ্রহনকারী পেছনের শক্তিশালী কিছু রাজনৈতিক নেতাদের কারণে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম