1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
সাতকানিয়ায় গৃহহারা ২৮ পরিবার পেলেন মাথা গোঁজার ঠাঁই - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৩:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

সাতকানিয়ায় গৃহহারা ২৮ পরিবার পেলেন মাথা গোঁজার ঠাঁই

ইকবাল হোসেনঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২২
  • ১১৭ বার

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় পর্যায়ে ঈদ উপহার হিসেবে ভূমিহীন ও গৃহহীন ২৮টি পরিবারকে সরকারি অর্থয়ানে নির্মিত ঘর ও জমির দলিল হস্তান্তর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) আনুষ্ঠানিকভাবে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারের সদস্যদের হাতে জমির দলিল ও নতুন ঘরের চাবি তুলে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাতেমা-তুজ-জোহরা। এর আগে সকাল ১১টায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি ঘর হস্তান্তর কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম মোতালেব সি আই পি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব অসহায় মানুষের আবাসন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। এ মহৎ সিদ্ধান্তে স্থায়ী ঠিকানা খুঁজে পাচ্ছেন গৃহহারা
পরিবারগুলো।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন হাসান চৌধুরী , পৌর মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনজুমান আরা বেগম, থানার অফিসার ইনচার্জ তারেক মোহাম্মদ আবদুল হান্নান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কামরুল হোসাইন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, প্রথম এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ছদাহার সাড়াশিয়া ও মাদার্শা মৌজায় আশ্রয়ন প্রকল্পের অধীনে ৪০টি ও তৃতীয় পর্যায়ে এওচিয়া মৌজায় ৪৮টি ঘর নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। ২৮ টি পরিবারকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি ২০ টি ঘরের কাজ শেষ হওয়ার পর বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

২ শতাংশ জায়গায় নির্মিত প্রতিটি ঘরে দুটি কক্ষ রয়েছে, সঙ্গে রয়েছে রান্নাঘর ও শৌচাগার। ঘরের চারপাশে খোলা জায়গা রয়েছে, যেখানে উপকারভোগীরা শাকসবজি আবাদ করতে পারবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম