1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ব্রীজ আছে কিন্তু রাস্তা নেই - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৬:৫০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দুর্বার’র নবনির্বাচিত সভাপতি মির্জা মিশকাতের রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সৈকত চৌধুরী ৩নং বাঃহাঃ ইউনিয়নবাসী পক্ষ হতে জননেতা বীর বাহাদুর মন্ত্রী কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। নির্বাচন কমিশনার মোঃ আনিসুর রহমান কে শরীয়তপুরে গণসংবর্ধনা। নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে নবম শ্রেণির ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু নবীনগরে নারীসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ইনাতগঞ্জে শালিস বৈঠকে পরিকল্পিত হামলা নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ আহত ৫ :: ২ জনকে ওসমানীতে প্রেরণ রাজবাড়ীতেপ্রাইমারি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস। যাত্রীদের বাঁচানো সেই এসআই হেলাল উদ্দিন পুরস্কৃত সৈয়দপুরে নদীতে টিকটক করতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু জমিজমা নিয়ে পূর্বের জেরে, বৈদ্যুতিক শক দিয়ে যুবককে হত্যার অভিযোগ

ব্রীজ আছে কিন্তু রাস্তা নেই

লাভলু শেখ স্টাফ রিপোর্টার লালমনিরহাট থেকে।।
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৩ মে, ২০২২
  • ১০ বার

লালমনিরহাটে ব্রীজ আছে কিন্তু রাস্তা নেই। এর ফলে কাজে আসছে না লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের রুদ্রেশ্বর গ্রামের ৩১লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রীজটি।
একাকী দারিয়ে থাকা ব্রীজটির সংযোগ রাস্তা না থাকায় বিকল্প পথে হাঁটুপানির মধ্যে দিয়ে চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসীর।
জানাগেছে, প্রায় ৩১লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৫০মিটার দৈর্ঘ্য ব্রীজটি একাকী দাড়িয়ে আছে। ব্রীজটি অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে প্রায় ৫বছর ধরে। যেন দেখার আছে এবং ব্যবস্থা নেওয়ার কেউ নেই।
ব্রীজটি দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের ব্রীজ-কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরের কাকিনা ইউনিয়নের রুদ্রেশ্বর মিলন বাজার সংলগ্ন মূল তিস্তা নদীর ক্যানেলের উপর ব্রীজটি প্রায় ৩১লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছিল।

৫০মিটার দৈর্ঘ্য ব্রীজটির ২ পাশে সংযোগ রাস্তা নির্মাণ না করায় সরকারের প্রায় ৩১লক্ষ টাকা তিস্তার পানিতে ভেস্তে যেতে বসেছে। ব্রীজটি ব্যবহার করতে না পাড়ায় এবং দুর্ভোগের কারণে স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। বর্ষাকালে নৌকা আর শুকনো মৌসুমে বাঁশের সাকোই যেন একমাত্র ভরসা এলাকাবাসীর।
রুদ্রেশ্বর এলাকার বাসিন্দা আসিয়া, বাবু ও রায়হান জানান, প্রতি বছরই বন্যা এবং বৃষ্টির পানিতে প্রায় ৬মাস পানির মধ্যে বন্দি থাকতে হয়। পানি নেমে গেলে মাঠে ফসল আবাদ শুরু হয়। মাঠ থেকে ফসল ঘরে তোলার জন্য স্থানীয় বাসিন্দারা একটি ব্রীজ নির্মাণের দাবি জানান।

দাবির পরিপেক্ষিতে একটি ব্রীজ নির্মাণ হলেও দীর্ঘদিন পরেও ব্রীজটির কোন সংযোগ রাস্তা নির্মাণ করা হয়নি। ভোটের সময় সব নেতারা আসে আর ব্রীজের ২ পাশে রাস্তা তৈরির কথা বলে ভোট নিয়ে যায় কিন্তু রাস্তা আর নির্মাণ হয় না।
তারা আরও জানান, কয়েকটি গ্রামের মানুষ ব্রীজটির পাশ দিয়ে হাটুপানি দিয়ে চলাচল করে আসছেন। বর্ষার সময় এ এলাকা ঢুবে যায় তখন নৌকা ব্যবহার করতে হয়।
কাকিনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাহির তাহু জানান, এলাকাবাসীর দূর্ভোগ দূর করতে আমি খুব দ্রুত নিজ অর্থায়নে ব্রীজের সংযোগ রাস্তাটি উঁচু করবো। রাস্তাটি উঁচু করা হলেই ব্রীজটি সচল হবে বলেও তিনি জানান।
কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ফেরদৌস আহমেদ জানান, ব্রীজটি পরিদর্শন করে দ্রুত সংযোগ রাস্তার ব্যবস্থা করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম