1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রবীন্দ্র কুঠিবাড়িতে প্রত্যাশা পূরণে কাজ করছে সরকার : স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

রবীন্দ্র কুঠিবাড়িতে প্রত্যাশা পূরণে কাজ করছে সরকার : স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী

শিলাইদহে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন

ফয়সাল চৌধুরী।।
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৯ মে, ২০২২
  • ২০৪ বার

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর শিলাইদহের রবীন্দ্র কুঠিবাড়িতে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল রোববার বিকাল ৪ টায় জাতীয়
সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানটিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার
ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি। তিনি বলেন, বিশ্বকবির স্মৃতিবিজড়িত কুষ্টিয়ার শিলাইদহ কুঠিবাড়ির ঐতিহ্য ও
গৌরব বিরল। এটা আমাদের গর্ব।

কুঠিবাড়ি সম্পর্কে যেন দেশ বিদেশের মানুষ জানতে পারেন, গবেষণা করতে পারেন। এর গুরুত্ব অনুধাবন করে সরকার নিশ্চয় এর আরো উন্নয়নে কাজ করছে। সরকারের কাছে আমারও এমনই প্রত্যাশা। তিনি আরও বলেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথের জীবনের সাহিত্য অঙ্গনের শ্রেষ্ঠতম অর্জন শিলাইদহ কুঠিবাড়ি থেকেই। নোবেলজয়ী গীতাঞ্জলি এই শিলাইদহে কবি রচনা
করেছিলেন। একই ভাবে তিনি ‘আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি’
বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতসহ আরও গুরুত্বপূর্ণ কালজয়ী সাহিত্য রচনা করেছেন
শিলাইদহের মাটি থেকে। যে কারণে বর্তমান সরকার জাতীয় অনুষ্ঠান শিলাইদহে
উদযাপন করছে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় কুষ্টিয়া জেলা
প্রশাসন বিশ্বকবির ১৬১তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের
আয়োজন করেছে। এবারের আয়োজনে কুঠিবাড়ির মূল মঞ্চে প্রতিদিনই আলোচনা সভার
পাশাপাশি জেলার ৬০টি সংগঠনসহ জাতীয় পর্যায়ের প্রায় ৬০ জন শিল্পী
কুঠিবাড়ির মূল মঞ্চে রবীন্দ্র সংঙ্গীত, কবিতা আবৃতি, দলীয় নৃত্য ও রবীন্দ্রনাথের লেখা নাটক পরিবেশন করা হবে। এছাড়া কুঠিবাড়ি চত্বরে বসেছে
গ্রামীন মেলা। নানা রকম পসরা সাজিয়ে বসেছেন দোকানীরা। ৩য় বারের মতো জাতীয়ভাবে শিলাইদহ রবীন্দ্র কুঠিবাড়িতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্ম উৎসব
পালন করা হচ্ছে। ঐতিহাসিক এই উৎসবকে নির্বিঘœ করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রথম দিনে কুঠিবাড়ির মূল মঞ্চে আলোচনা সভায় সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী
কেএম খালিদ এমপির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কুষ্টিয়া ৪ আসনর সংসদ সদস্য সেলিম আলতাফ জর্জ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক
মন্ত্রনালয়ের সচিব মো. আবুল মনসুর। আলোচনা সভায় স্বারক বক্তব্য রাখেন প্রফেসর সনৎ কুমার সাহা। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। এর আগে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত বকুল তলার পাশেই বৃক্ষ রোপন করেন।এসময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার খাইরুল আলম, জেলা আওয়ামীলীগর সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, বিজ্ঞ পিপি এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী, বিজ্ঞ জিপি এ্যাড. আসম আখতারুজ্জামান মাসুম, ড. আমিনুল হক রতন, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির সভাপতি হাজী রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, বিএফইউজের সহ-সভাপতি আফরোজা আক্তার ডিউ, দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ফয়সাল চৌধুরী সহ জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, রবীন্দ্র গবেষক ও বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। আলোচনা সভা শেষে মূল মঞ্চে রবীন্দ্র সংঙ্গীত, কবিতা আবৃতি, দলীয় নৃত্য ও রবীন্দ্রনাথের লেখা নাটক পরিবেশন করেছেন কুষ্টিয়া জেলা ছাড়াও জাতীয় পর্যায়ের রবীন্দ্র শিল্পীরা। এদিকে তিনদিনের এই জন্ম উৎসবকে ঘিরে রবীন্দ্রপ্রেমী ও দর্শনার্থীদের ভীড়ে মুখর এখন কুঠিবাড়ি প্রাঙ্গণ।

করোনার কারনে গত দুই বছর এই অনুষ্ঠান না হওয়ায় এবারের আয়োজনকে ঘিরে তাদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। প্রসঙ্গত, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের দাদা প্রিন্স দ্বারকানাথ ঠাকুর ১৮০৭ সালে এই অঞ্চলের জমিদারী পান। পরবর্তি সময়ে ১৮৮৯ সালে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শিলাইদহে জমিদার হয়ে আসেন। এখানে শিলাইদহে তিনি ১৯০১ সাল পর্যন্ত জমিদারী পরিচালনা করেন। এখানে অবস্থান কালে তিনি রচনা করে তার বিখ্যাত গ্রন্থ সোনার তরী, চিত্রা, চৈতালীসহ আরও বিভিন্ন গ্রন্থ। রবীন্দ্রনাথ শিলাইদহে বসেই গীতাঞ্জলী কাব্য গ্রন্থের অনুবাদের কাজ শুরু করেন। পরে ১৯১৩ সালে গীতাঞ্জলী গ্রন্থের অনুবাদে সাহিত্যে প্রথম নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। এখানে বসে রচনা করা বিশ্বকবির অসংখ্য গান,কবিতা ও সাহিত্যকর্ম বাঙলা সাহিত্যকে করেছে সমৃদ্ধ। তাই রবীন্দ্র সাহিত্যে শিলাইদহের গুরুত্ব অন্যতম।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম