1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
টিয়া পাখি চুরির অভিযোগে শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতনকারী নুর ইসলাম আটক! বাকিদের খুঁজছে পুলিশ! - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শিক্ষক হেনস্তায় নিন্দা, প্রতিবাদ ও শাস্তির দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির তিতাসে সাংবাদিক শামসুদ্দিন আহমেদ সাগরের জন্মদিন পালন মীরসরাইয়ে অপরিকল্পিত রাস্তা নির্মাণের কারণে পানি বন্দি কয়েক হাজার মানুষ মীরসরাইয়ে প্রথমদিনে ৫ ইউনিয়নে টিসিবির পণ্য বিতরণ সাতকানিয়া পৌরসভায় ৫৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শা‌য়িত ডাঃ মুমিনুল হক চৌধুরী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় নিহত ৫, আহত ৪ সৈয়দপুর পৌরসভার ১৭১ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র রাফিকা আকতার জাহান চন্দনাইশে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক-৪ মান্দায় যুবলীগ নেতার ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

টিয়া পাখি চুরির অভিযোগে শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতনকারী নুর ইসলাম আটক! বাকিদের খুঁজছে পুলিশ!

মোঃ সাইফুল্লাহ ;
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২
  • ৩৫ বার

মাগুরা শ্রীপুরে টিয়া পাখি চুরির অভিযোগে জীবন বিশ্বাস নামে ১২বছরের এক শিশুকে রশি দিয়ে হাত-পা বেঁধে গাছে ঝুলিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় শারীরিকভাবে নির্যাতনকারী সেই নূর ইসলাম (৩৮)কে অবশেষআটক করেছে পুলিশ। ঘটনার তিন দিন পর শুক্রবার সন্ধ্যার পর আমলসার এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয় এবং ঘটনার সাথে জড়িত বাকিদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানান, উপজেলার আমলসার গ্রামের পশ্চিমপাড়ার বশির শেখ ওরফে বসু মৌলভীর লম্পট পুত্র নুর ইসলাম(৩৮)সহ গ্রাম্য কিছু মোড়ল মাতব্বর জোটবদ্ধ হয়ে একই পাড়ার হতদরিদ্র দিনমজুর শাহাবুদ্দিন বিশ্বাস এর পুত্র জীবন বিশ্বাস(১২)কে একটি টিয়া চুরির অভিযোগ এনে শক্ত রশি দিয়ে হাত-পা বেঁধে গাছের সাথে ঝুলিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্মমভাবে পিটিয়ে মারাত্বক আহত করে।

নির্যাতনের মাত্রা এমনই ছিল যে, ‘পাখি চুরি করিনি’ বলে হাউমাউ করে চিৎকার দিয়ে কান্নাকাটি করে নির্যাতনকারীদের পা জড়িয়ে শেষ আকুতি জানালেও তাদের মনের মাঝে কিঞ্চিত পরিমাণ দয়া আসেনি। এমন কি প্রত্যক্ষদর্শীদের সামনে নির্মমভাবে শিশুটিকে নির্মমভাবে পিঠানো হলেও নূর ইসলামসহ তার সাঙ্গ-পাঙ্গদের ভয়ে ঠেকাতেও এগিয়ে আসেনি কেউ। এক-দুইজন নারী ঠেকাতে এগিয়ে আসলেও তাদেরকেও প্রতিরোধ করা হয়। শারীরিক নির্যাতনের এ ভিডিওটি রীতিমতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে ভাইরাল হলে মাগুরার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম এর দৃষ্টিগোচর হয় এবং তিনি তৎক্ষনাৎ জড়িতদের আটকের বিষয়ে শ্রীপুরে থানাকে নির্দেশ দেন।

এর পরপরই শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা ও শ্রীপুর থানা পুলিশ উক্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আত্মগোপনে থাকা নুর ইসলামকে আটক করতে সক্ষম হন।
এ বিষয়ে ১৯ জুন রবিবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মোশাররফ হোসেন আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন, পুলিশের কাছে তথ্য আসা মাত্রই ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্তদের মধ্যে নুর ইসলামকে আটক করা হয় এবং বাকীদের ভিডিও চিত্র দেখে শনাক্ত করে অচিরেই তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

তিনি আরো জানান গত ১৭ জুন শিশু জীবনের পিতা শাহাবুদ্দিন বিশ্বাস বাদি হয়ে নূর ইসলামসহ ৪জনকে আসামি করে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে, যার নং-১১

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম