1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
সৈয়দপুরে কার পিকআপ শ্রমিক অফিসে হামলা, ভাঙ্চুর ও টাকা লুট, যুবক আটক - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শিক্ষক হেনস্তায় নিন্দা, প্রতিবাদ ও শাস্তির দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির তিতাসে সাংবাদিক শামসুদ্দিন আহমেদ সাগরের জন্মদিন পালন মীরসরাইয়ে অপরিকল্পিত রাস্তা নির্মাণের কারণে পানি বন্দি কয়েক হাজার মানুষ মীরসরাইয়ে প্রথমদিনে ৫ ইউনিয়নে টিসিবির পণ্য বিতরণ সাতকানিয়া পৌরসভায় ৫৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শা‌য়িত ডাঃ মুমিনুল হক চৌধুরী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় নিহত ৫, আহত ৪ সৈয়দপুর পৌরসভার ১৭১ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র রাফিকা আকতার জাহান চন্দনাইশে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক-৪ মান্দায় যুবলীগ নেতার ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

সৈয়দপুরে কার পিকআপ শ্রমিক অফিসে হামলা, ভাঙ্চুর ও টাকা লুট, যুবক আটক

মোঃজাকির হোসেন নীলফামারী প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
  • ২৬ বার

নীলফামারীর সৈয়দপুর মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কার, পিকআপ, মাইক্রোবাস উপকমিটির অফিসে সন্ত্রাসী হামলা করে ভাঙ্চুর, মারপিট ও অর্থ লুটের ঘটনা ঘটেছে। হামলায় গুরুতর আহত এক মাইক্রোবাস চালক হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে এবং পুলিশ এক যুবককে আটক করেছে।

সোমবার (২০ জুন) রাত ৯.৩০ টায় সংঘটিত এই ঘটনায় সৈয়দপুর থানায় মঙ্গলবার (২১ জুন) সকালে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এতে আটক যুবক রানাসহ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জনকে আসামী করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ জুন (রবিবার) দুপুর ১২ টায় শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের রেললাইন ঘুমটিতে (ট্রাফিক পুলিশ বক্স সংলগ্ন) ট্রেন যাওয়ার সময় মাইক্রোবাস নিয়ে দাঁড়ানো অবস্থায় ছিল চালক সামসুল হক। এমন সময় পিছন থেকে এসে পার্শবর্তী হাতিখানা মহল্লার মোসাদ্দেক আলী বাই সাইকেল দিয়ে মাইক্রোবাসের পিছনে ও ডান পাশের বডিতে সজোরে ধাক্কা লাগায়।

এতে ঘষা লেগে মাইক্রোবাসের কয়েক জায়গায় রং চটে যায় ও চাপ লেগে ডেবে যায়। ফলে মাইক্রো চালক গাড়ি থেকে নেমে বাই সাইকেলটি আটক করার চেষ্টা করে। একারণে দুইজনের মাঝে হাতাহাতি হয়। তাৎক্ষণিক দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ আব্দুল খালেক ছুটে এসে বিষয়টা মিমাংসা করে দেন।

এই ঘটনার জের ধরে মোসাদ্দেক আলীর ছেলে মো. আজিম খান রানা (২৮) মাইক্রো চালককে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নামে ওইদিন মধ্যরাত পর্যন্ত মোবাইলে বার বার ঘুমটি এলাকায় আসার জন্য বলে। কিন্তু বিষয়টা মিমাংসা হয়ে যাওয়ায় সামসুল হক সেখানে যায়নি। এরপর রানা ওই চালকের নামে লিখিত অভিযোগ দেয় শ্রমিক ইউনিয়ন অফিসে।

এর প্রেক্ষিতে সোমবার রাতে মিমাংসার জন্য বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেয় অফিস কর্তৃপক্ষ। সে অনুযায়ী চালক সামসুল আলম রাত সাড়ে ৯টায় বঙ্গবন্ধু সড়কের সৈয়দপুর পাইলট হাইস্কুল সংলগ্ন অফিসের সামনে এসে মাইক্রোবাস বন্ধ করে রাস্তায় নামামাত্রই অতর্কিত ঝাপিয়ে পড়ে রানাসহ ৭/৮ জন যুবক।
এলোপাথাড়ি কিল ঘুষি মারায় সামসুল আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তখন হামলাকারীরা পা দিয়ে লাথি মারতে থাকে। আহতাবস্থায় সামসুল হক চিৎকার করলে এক পর্যায়ে একজন গলা চেপে ধরে আরেকজন পকেট হাতরে গাড়ি ভাড়ার ১৬ হাজার টাকা কেড়ে নেয়।

এরই মাঝে অফিসে থাকা লোকজন ঘটনাটা দেখে দ্রুত ছুটে এসে প্রতিবাদ করলে যুবকেরা মারমুখী হয়ে উঠে। তর্ক বিতর্ক করতে করতে তারা শ্রমিক ইউনিয়ন অফিসে ঢুকে পড়ে। এসময় এই শাখার সম্পাদক মো. মালেক সরকার এমন বিশৃঙ্খলা করা থেকে বিরত হতে বললে যুবকের দল সন্ত্রাসী কায়দায় চেয়ার টেবিল ভাঙ্চুর শুরু করে। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির সৃষ্টি হয়।

চরম অরাজক পরিস্থিতির মধ্যে কৌশলে সম্পাদকের টেবিলের ড্রয়ারে রক্ষিত ৬০ হাজার লুট করে আসবাবপত্র এলোমেলো করে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পালায়। এসময় আরও লোকজন এসে পড়ায় সবাই পালালেও রানা ধরা পড়ে। খবর পুলিশ এসে তাকে আটক করে প্রথমে হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে থানায় নিয়ে যায়।

আর গুরুতর আহত চালক সামসুল হককে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা ভালো না। অমানবিক নির্যাতনের শিকার হওয়ায় বুকে, মুখে মারাত্মক আঘাত পাওয়ায় কথাও বলতে পারছেন না।

নীলফামারী জেলা বাস-মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নভুক্ত মাইক্রোবাস কার পিকআপ উপ শাখার সম্পাদক মো. মালেক সরকার বলেন, একটি মিমাংসিত ঘটনাকে নিয়ে এমন সন্ত্রাসী কান্ড কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। তাছাড়া নিজেরাই অপরাধ করে শালিস বৈঠকের প্রাক্কালে মারপিট করার কোন মানে হয়না।

তিনি বলেন, তাহলে বিচার চেয়ে অভিযোগ দিলে কেন। কেনইবা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটিয়ে একটি শ্রমিক অফিসে এসে ভাঙ্চুর লুটপাট করার মত দু:সাহস দেখানো অমার্জনীয় অপরাধ। তাই এই ঘটনায় নিজে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছি।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল হাসনাত খাঁন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।ঘটনার পরই মূল হোতা রানাকে আটক করা হয়েছে। আজ তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে জেলা হাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারে প্রচেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম