1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
সৈয়দ সালেহীন অসাধারণ একজন রাজনীতিবীদ। - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
সৈয়দপুরে ১ সন্তানের জনকের লাশ উদ্ধার স্বদেশের আবৃত্তি সংগঠনের মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব আবৃত্তি অনুষ্ঠান চন্দনাইশে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমীতে নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি চন্দনাইশে ৬ হাজার ৮’শ পিচ ইয়াবাসহ আটক-১ কুষ্টিয়া জেলা যুবমৈত্রীর কমিটি: সভাপতি মনিরুজ্জামান মজনু, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা মীরসরাইয়ের ওচমানপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শোকসভা বরেণ্য সাংবাদিক সরকার আদম আলী এর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত। সৈয়দপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা সাংবাদিক আক্তার হোসেনের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত! হাটহাজারী উপজেলা ও পৌরসভা যুবদলের কমিটি ঘোষণায় আনন্দ মিছিল

সৈয়দ সালেহীন অসাধারণ একজন রাজনীতিবীদ।

নেহাল আহমেদ।
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০২২
  • ১৫ বার

সৈয়দ রফিকুস সালেহী এই বাংলাদেশের গ্রামীন জনপদের অসাধারণ একজন রাজনীতিবিদ। সততা, আদর্শ, বিনয় সব দিক থেকেই অসাধারণ। ‌ ক্ষমতায় গেলে অন্য প্রায় সবার সম্পদ যখন হু হু করে বাড়ে, তখন আপনারটাই শুধু কমেছে। যে টুকু ছিল সেটাও কমেছে। বাড়ীর সামনে বাশঁ দেয়া বেড়া টুকু বার বার নড়বড়ে হয়ে গেছে।কিন্ত আপনি আর্দশ থেকে এক বিন্দু নড়েন নি।আপনার মুখ যেন সততার আর্দশে গড়া এক মুর্তি।কিছু সময় তার সাহচর্য পাওয়ার সুযোগ হয়েছে।সেই সুযোগে তার রাজনীতি আসা। ওকালতি পড়াের আগ্রহ শোনার সৌভাগ্য হয়েছে।বনেদী পরিবারের এই সন্তান কে দেখেছি মিথ্যা কোন মামলা গ্রহন করেন নি।অনেক সময় মক্কেলের বাড়ী যাওয়ার ভাড়া ও দিয়ে দিতেন।বঙ্গবন্ধু পরিবারের সাথে তার পরিবারের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকার পর ও কোন সুযোগ গ্রহন করেন নি।আমার জানা মতে এস,পি ওসির কাছে কখনো কোনদিন তদ্বির তদারকি করেন নি তিনি।ক্ষমতার বলয়ে থেকেও অতি সাধারণ মানুষের জীবনের সাথে জীবন যাপন করেছেন।
প্রিয় কাকু , বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ প্রতি দেশের পিতার প্রতি ছিলো আপনার অপরিসীম দায় বদ্ধতা। সবচেয়ে বড় রাজনৈ‌তিক দ‌ল আওয়ামী লীগের রাজবাড়ী জেলার সাধারন সম্পাদক ছিলেন দীর্ঘদিন সভাপতি ছিলেন অনেকদিন।জেলা বারের সভাপতি ছিলেন অনেক দিন।দলের দুর্দিনে ছিলেন অকুতোভয় সৈনিক কিন্তু এতো কিছুর পরেও আপনার বিনয় ছিল অসাধারণ। এতো সব পদে থাকার পরেও নিজের চি‌কিৎসার জন্য ঔষুদ কেনার জন্য আপনার পরিবার কে ভাবতে হতো। এটা ত্যাগী নেতা বলেই এটা সম্ভব। কারণ রাজনৈ‌তিক সততার উজ্জ্বল ও বিরল এক দৃষ্টান্ত আপনি।
ছাত্র থাকা সময়েই যোগ দিয়েছিলেন রাজনীতিতে । আজীবন মুক্তিযুদ্ধের সেই চেতনা লালন করেছেন। সততা ও আদর্শের সাথে কোনরকম আপোষ করেননি। প্রতিক্রিয়াশীলতাকে কোন স্থান দেননি। অসাধারণ এক রাজনৈতিক আদর্শের পুরোপুরি চর্চা করে গেছেন। কিন্তু কোন‌দিন কাউকে অসম্মান করে কথা বলেননি। এমন‌কি বিরোধী দলকেও না।হয়ে উঠেছিলেন অবিসংবাদী মানুষ। তার মৃত্য সুষ্ঠ রাজনীতি ধারার অপুরনীয় ক্ষতি হয়ে গেলো।তার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা। তার এক সন্তান পাপুন বাবার সম্পর্কে মুল্যায়ন কনেন এভাবে
নানা মন্তব্য-
..লোকটা বোকা, লোকটা কাজের না…..
কেউ বলে- সবারই মূল্যায়ন হলো এই লোকটি ছাড়া.

মতামত/মন্তব্যগুলো শুনি।
কখনো বুঝি, কেন এমন বলে। আবার কখনো মনে হয়- আসলে বুঝি না।
মনে হয় মানুষগুলো ঠিক বলছে না, কখনো মনে হয় ঠিকইতো বলছে!

ঠিকটা কেউ বুঝিয়ে বলতে পারেন?

আসলে ঠিক/বেঠিক বা বুঝিয়ে বলার বিশেষ কিছু নেই। কোনো ব্যক্তির মূল্যায়ন তার আমলনামায়, আর শ্রেষ্ঠ স্বীকৃতি মানুষের ভালোবাসা।
নেহাল আহমেদ।
কবি ও সাংস্কৃতিক কর্মি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম