1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
আশুলিয়ায় পুলিশ পরিচয়ে অটো ছিনতাই - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
দেশে মেডিকেল ডিভাইস তৈরি করলে তা সাধারণ মানুষের কাছে সহজলভ্য হবে’ -স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন নবীগঞ্জ শহরের রাজা কমপ্লেক্সে হামলা ভাংচুর ও ৪ ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ! শহর রণক্ষেত্র- আহত অর্ধশতাধিক৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশের টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ৷ লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনে যাত্রী ভোগান্তির শিকার দেখার কেউ নেই। চৌদ্দগ্রামে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ট্রাই সাইকেল বিতরণ চৌদ্দগ্রামের বাতিসায় জাতীয় পার্টির উদ্যোগে ইফতার সামগ্রী বিতরণ ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান হাবিবের ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন ঠাকুরগাঁও জমে উঠেছে জেলা পরিষদ নির্বাচন ! মোঃ মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁওয়ে “আত্মকথন” শীর্ষক ভিডিওচিত্র সংকলনের উদ্বোধনী ! চন্দনাইশে চিকিৎসক ঐক্য পরিষদের অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন।

আশুলিয়ায় পুলিশ পরিচয়ে অটো ছিনতাই

মোহাম্মদ নুর আলম সিদ্দিকী মানুঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১২৪ বার

ঢাকা জেলা সাভারের আশুলিয়ায় পুলিশ পরিচয়ে অটো ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।
মঙ্গলবার(৬সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে আটটার সময় আশুলিয়ার বাইপাইল চন্দ্রা মহাসড়কের সম্ভার পাম্পের সামনে থেকে পুলিশ পরিচয়ে (সিভিল) দু’জন যাত্রী শ্রীপুর স্টান্ডে যাওয়ার কথা বলে উঠেন।

শ্রীপুর স্টান্ডে আসার পর অটোরিকশাটি থামাতে বলে। পাশেই একটি গলিতে একজনকে ডেকে আনতে বলে। চালক অটোরিকশা থেকে নামতেই রিকশাটি নিয়ে চম্পট দেয় সেই পুলিশ পরিচয়ে দু’জন যাত্রী।
জানা গেছে, অটোরিকশা চালক রাজশাহী জেলার নাটোর উপজেলার সোনাপাতি গ্রামের বাসীন্দা মৃত আব্দুস সালামের ছেলে মোসলেম (৪০)।

সে আশুলিয়া ধামসোনার কাইছা বাড়ী এলাকার হালিম মেম্বারের বাসার ভাড়াটিয়ে।

সে ১৯ বছর আগে ঢাকার আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকায় অটো চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছিলেন।

তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমি এই গাড়িটি ৯মাস আগে এক লক্ষ ১৫ হাজার টাকা দিয়ে কিনেছি। তার মধ্যে লোন করেছিলাম ৬০ হাজার টাকা। এখনো ৪০ হাজার টাকা লোন এর পাওনা আছে মহাজন’। এভাবে অটো ছিনতাই করে নিয়ে ফেলে যাবে আমি কখনও ভাবতে পারিনি। এখনও লোনের এই ৬০ হাজার টাকার মধ্যে ৪০ হাজার টাকা পাবে। এটা কিভাবে কি করব সে দিশেহারা অসহায়ের মত হতভম্ব হয়ে পুলিশ বক্সে বসে ছিলেন,

এ দিকে অটোরিকশা খুজতে আর এক সহপাঠী অটোরিকশা নিয়ে ডিইপিজেড জিরানী মহাসড়কে খুঁজছিলেন সেই ছিনতাইকারীদের।
এবারও সামনে সিভিল পোশাকে ডিইপিজেড রপ্তানি পুলিশ বক্সের কমিউনিটি পুলিশ মহিন এবং জাকির অটোরিকশাটিকে আটক করে পুলিশ বক্সে নিয়ে আসেন।

জানা যায়,পুলিশ বক্সের কমিউনিটি পুলিশ পুলিশ মহিন অটোটিকে আটক করে বক্সে নিয়ে আসেন। বক্সে এসে দেখা যায় দায়িত্বরত টিআই শাহজাহান তিনি উপস্থিত নেই। পুলিশ বক্সেটির দায়ী ট্রাফিক ইনস্পেক্টর গোলাম মাওলা ছুটিতে থাকায় পালন করছেন অন্য এলাকার ট্রাফিক ইনস্পেক্টর শাহজাহান মজুমদার।

এ বিষয়ে জানতে শাহাজান মজুমদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি যেখানে দায়িত্ব পালন করে আসতেছি এই মুহুর্তে সেখানেই আছি । এখান থেকেই দুই জায়গায় দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে।

অটোচালক তার আরেক বন্ধুর অটোরিকসা নিয়ে ছিনতাইকারীদের খুঁজতে বের হয়েছিল এমনটি জেনে। তিনি আরও বলেন, অটোরিকশা যাতে মহাসড়কে চলাচল না করে সেজন্য মূলত আমরা রাখার বিল করে থাকি। যেহেতু সে অটোরিকসাটি মহাসড়কে চালায় না। বাই রোডে চালায় সেজন্য তাকে রেখার বিল ছাড়াই ছেড়ে দেওয়া হবে। পরে খোজ নিয়ে জানা যায় অটোরিকশাটি বেকার বিল ছাড়াই ছেড়ে দেওয়া হয়।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কোনো ধরনের অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম