1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মিশ্র ফলের চাষ করে দেলোয়ার এখন লাখ প্রতি।। - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
৫২ তে পা দিলেন সাংবাদিক জ,ই, বুলবুল সোনারগাঁয়ের সেই জি কে শামীমসহ তার সাত দেহরক্ষীর রায় ঘোষণা আজ মাগুরায় নানা কর্মসূচি মধ্য দিয়ে ‘শেখ রাসেল দিবস’ উপলক্ষে প্রতিযোগিতা ও মীনা দিবস পালিত চন্দ্রগঞ্জে সুধীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় করলেন লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার রাউজানে কিডনি রোগে আক্রান্ত রিফাতের জীবন বাঁচতে সাহায্যের আবেদন সিরাজদিখানে রাস্তার নির্মান কাজের অগ্রগতি হয়ায় দোয়া ট্রেনে উঠতে গিয়ে বাবার সামনে প্রাণ গেলো বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রের হালদা-সর্তার খালের চরে উৎপাদ হচ্ছে কোটি টাকার আঁখ,কলা,পেঁপে সবাই কে কাদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন কেপটাউন কমিউনিটির প্রিয় মুখ সোহেল ভাই। গাজীপুরে নানাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে নাতী আটক

মিশ্র ফলের চাষ করে দেলোয়ার এখন লাখ প্রতি।।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১১ বার

পেঁপে বাগানে সফল চাষি দেলোয়ার পেপে গাছের সারির ফাঁকে ফাঁকে কলাগাছ, মালটা, সবজি চাষ করে সফল হয়েছেন। পেপে গাছে থোকায় থোকায় ধরে আছে পেপে। পরিপক্ব পেপেগুলো দেখতে অনেকটা লাল ও সবুজ, মাঝে মাঝে গলাগাছে থোকায় থোকায় ধরে আছে বিভিন্ন প্রজাতির কলা। মানিকছড়ি উপজেলার তিনটহরী ইউনিয়নের বড়ডলু এলাকায় ৪ কানি (১৬০ শতক) জায়গায় মিশ্র সবজি ও ফলের বাগান করে এলাকায় তিনি এখন লাখপতি। পাশাপাশি তার সবজি ও ফলের বাগানে কাজ করে খেয়েপরে সুখে আছে আরও ১০টি পরিবার।

কিছু দিনের মধ্যে বিক্রি শুরু হবে পেপে কলা, ও বিভিন্ন সবজি, প্রতি সাপ্তাহ ২০থেকে ৪০হাজার টাকার ফল ও সবজি বিক্রি করতে পারবেন বলে কৃষক দরলোয়ার জানান।

মিশ্র সবজি,ফল বাগান করে তিনি এলাকার অন্য কৃষকদের তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। এই বাগান দেখে দূরদূরান্ত থেকে প্রতিদিন তার বাগান দেখতে বহু লোক আসেন এবং তার কাছ থেকে মিশ্র সবজি, ফল বাগান গড়ে তোলার পরামর্শ নেন।

বিশাল এই মিশ্র সবজি ফল বাগানটি অবস্থিত মানিকছড়ি উপজেলা সদর থেকে চার কিলোমিটার দূরে তিনটহরী ইউনিয়নের বড়ডলু গ্রামে। ৪কনি( ১৬০ শতক) জমিজুড়ে দুই বছর আগে গড়ে তোলা এই বাগানে সবজি, বিভিন্ন ফল, পেপে, কলা, মাল্টা, লেবুসহ নানা জাতের ফল গাছ রয়েছে। সবজি বেগুন, লাউ,লালশাক৷ মুলাসহ বিভিন্ন প্রজাতির সবজি আছে।

সম্প্রতি সরেজমিনে দেখা যায়, পাঁচ থেকে ছয় ফুট উচ্চতার কলাগাছের সারির মাঝে চার থেকে সাড়ে চার ফুট উচ্চতার একেকটি ফুলে ফলে পেপে গাছ। এসব গাছের ধরে আছে লাল হলুদ সবুজের পেপে। থোকায় থোকায় ধরে আছে লেবু, শতাধিক কলাগাছে ছড়া আসছে, বিশাল সেই বাগানে ১০ থেকে ১২ জন করে শ্রমিক বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে বাগান পরিস্কার করছে পেপে, লেবু, ছিঁড়ছেন। বাগান থেকে সদ্য তোলা গাছ পাঁকা পেপে কিনতে চট্টগ্রামের থেকে এসেছেন বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী।

পরিদর্শনে এসে মানিকছড়ি উপজেলার তিনটহরী বড়ডলু ব্লকের সহকারী কৃষি কর্মকর্তা রঞ্জন দাশ পেঁপেগাছ লাগানোর পরামর্শ দেন। তার পরামর্শমতো তিনি ৭০০টি পেপে গাছের চারা রোপণ করেন।

পেঁপেবেশি সুস্বাদু হওয়ায় সবচেয়ে বেশি এলাকা চাহিদা বেরে যায়। কলাচাষ লাভজনক হলেও চারা লাগানোর প্রায় এক বছর পর ফল ধরে। কিন্তু মিশ্র ফল ও সবজি অল্প সময়ে পাওয়া যায়। অধিক লাভের আশায় কলা, পেঁপেচাষে ব্যাপকভাবে ঝুঁকে পড়ি। এ বছর পেপে পাইকারি ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সেই হিসাব অনুযায়ী এই বাগান থেকে লাখ টাকার ফল বিক্রি হবে, যদি বাজার ও আবহাওয়া অনুকূলে থাকে, বলেন দেলোয়ার জানান।

দেলোয়ারের সাফল্যে ইতোমধ্যেই এলাকায় ব্যাপক সাড়া পড়েছে। এতে এলাকার অনেক যুবক সবজি ও ফল চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। তারা জানান, অন্যান্য ফসলের তুলনায় মিশ্র সবজি ও ফল চাষ অধিক লাভ জনক। মিশ্র বাগানে তেমন কোনো পরিচর্যা করতে হয় না। প্রথমে গাছ লাগানো এবং জমি তৈরির পর কীটনাশক ও যৎসামান্য পরিচর্যা ছাড়া কঠিন কোনো পরিচর্যা করতে হয় না।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম