1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামতের ২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার কাজ সময়মত না করায় আত্মসাতের অভিযোগ । - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
৫২ তে পা দিলেন সাংবাদিক জ,ই, বুলবুল সোনারগাঁয়ের সেই জি কে শামীমসহ তার সাত দেহরক্ষীর রায় ঘোষণা আজ মাগুরায় নানা কর্মসূচি মধ্য দিয়ে ‘শেখ রাসেল দিবস’ উপলক্ষে প্রতিযোগিতা ও মীনা দিবস পালিত চন্দ্রগঞ্জে সুধীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় করলেন লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার রাউজানে কিডনি রোগে আক্রান্ত রিফাতের জীবন বাঁচতে সাহায্যের আবেদন সিরাজদিখানে রাস্তার নির্মান কাজের অগ্রগতি হয়ায় দোয়া ট্রেনে উঠতে গিয়ে বাবার সামনে প্রাণ গেলো বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রের হালদা-সর্তার খালের চরে উৎপাদ হচ্ছে কোটি টাকার আঁখ,কলা,পেঁপে সবাই কে কাদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন কেপটাউন কমিউনিটির প্রিয় মুখ সোহেল ভাই। গাজীপুরে নানাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে নাতী আটক

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামতের ২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার কাজ সময়মত না করায় আত্মসাতের অভিযোগ ।

মোঃ মজিবর রহমান শেখ,,
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৮ বার

ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ১৩১ নং — কলন্দা তালদিঘী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামতের কাজ সময়মত না করায় প্রধান শিক্ষিকা সাহেদা খাতুনের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। অভিভাবকরা জানায়, ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে কলন্দা তালদিঘী সরকারী প্রার্থমিক বিদ্যালয়ের সরকারী ক্ষুদ্র মেরামতের জন্য ২ লক্ষ টাকা, স্লিপের বাবদ ৫০ হাজার এবং প্রাক প্রার্থমিকের জন্য ১০ হাজার সহ মোট ২ লাখ ৬০ হাজার বরাদ্দকৃত টাকা কাজ না করেই বিভিন্ন দোকানের ভূয়া ম্যামো সংগ্রহ করে ভাউচার তৈরী করে কর্তৃপক্ষ বরাবরে জমা দিয়ে উক্ত টাকা উত্তোলন করে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কলন্দা তালদিঘী গ্রামের একাধিক অভিভাবক জানান, চলতি বছরের জুন মাসে প্রধান শিক্ষিকা সাহেদা খাতুন বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামতের নামে ২ লাক্ষ ৬০ হাজার টাকা বরাদ্দ নেয়। কিন্তু সঠিক সময়মত কাজ না করেই উক্ত টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে । অপরদিকে, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের স্লিপ এর ৫০ হাজার টাকা এবং প্রাক প্রাথমিকের ১০ হাজার টাকা দিয়ে শিক্ষা সামগ্রী ক্রয় করার কথা থাকলেও তা ক্রয় না করে তিনি নিজেই আত্মসাৎ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে অভিভাবক ধীরেন চন্দ্র বলেন, সরকারী ভাবে প্রতি বছরেই বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজের বরাদ্দ আসে কিন্তু বিদ্যালয়ের কোন কাজ হয় না। এই বরাদ্দের টাকার হিসাব কে নিবে ? এই অনিয়ম দূর্নীতি দেখার কেউ নেই। ঐ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সাহেদা খাতুন বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজের টাকা উত্তোলন করে করছেন ও চলমান রয়েছে বলে জানান, । ঐ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির সাথেও একাধিকবার যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আজম হক রয়েল বলেন, কলন্দা তালদিঘী সরকারী প্রার্থমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করে বরাদ্ধকৃত টাকা যথাযথাভাবে কাজ করার জন্য প্রধান শিক্ষিকা সাহেদা খাতুনকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যদি তিনি কাজ না করেন তাহলে ঐ প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার অতুল চন্দ্র য়ায় বলেন, কলন্দা তালদিঘী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা গত জুন মাসে সরকারী বরাদ্ধের টাকা উত্তোলন করেছেন। ঐ বিদ্যলয়ের প্রধান শিক্ষিকা যদি কাজ না করে সরকারী বরাদ্ধের টাকা উত্তলন করে আত্মসাৎ করে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম