1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় : এমপি হানিফ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০২:৩২ অপরাহ্ন

অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় : এমপি হানিফ

ফয়সাল চৌধুরী, কুষ্টিয়া :
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০২২
  • ৩৯ বার

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ (এমপি) বলেছেন, যে অসুরি শক্তির বদের কথা মির্জা ফখরুল বলছে। এই অসুর কারা। অসুর তো এদেশের মানুষ দেখেছে। ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত মানুষ দেখেছে। ২৬ হাজার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে হত্যার শিকার হতে হয়েছে এই বিএনপির- জামাত সন্ত্রাসীদের হাতে। তখন তো তারা অসুরি দানব ছিল। আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের হত্যা করা হয়েছিল । আমাদের সাবেক অর্থমন্ত্রী গোলাম কিবরিয়া, আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি,নাটোরের মমতাজউদ্দীনসহ সিনিয়র নেতাদের হত্যা করা হয়েছিল। আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বার বার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। ২০০৪ সালে গ্রেনেড হামলার শিকার হতে হয়েছে। সে হামলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বেঁচে গেলেও ২৪ জন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী মৃত্যুবরণ করেছিলেন। এই অসুর তো তারা ছিল। জনগণ এই অসুর শক্তিকে বদ করে আস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করেছেন। এই অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামী লীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসেছে । অসুর হয়ে, অসুরের মত কাজ করে তারা এখন নতুন করে অভিযুক্ত করা, এটা ভূতের মুখে রাম রাম।

বুধবার ( ৫ অক্টোবর) বেলা ১২টায় কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই রোডের নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের উদ্দেশ্যে হানিফ বলেন, এই বাংলাদেশে সম্প্রীতির চেতনাকে ধ্বংস করেছে জিয়াউর রহমান। আমরা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে যে আন্দোলন-সংগ্রাম করেছিলাম। দীর্ঘ আন্দোলন-সংগ্রামের পরে ১৯৭০ সালে যে নির্বাচন হয়েছিল। সেই নির্বাচনে আগে আমাদের চারটা মূলনীতি ছিল। সেটা ছিল সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদ এবং ধর্মনিরপেক্ষতা। এগুলোর উপরে ১৯৭০ সালের নির্বাচনে জনগণ ম্যান্ডেড দিয়েছিল এবং দীর্ঘ নয় মাসের যুদ্ধে পরে দেশ স্বাধীনতার পরে যে সংবিধান রচিত হয়েছিল। সংবিধানের চারটা পিলার হিসাবে এই চারটি মূলনীতি বিবেচিত ছিল। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরে সেই পিলার ধ্বংস করেছিল জিয়াউর রহমান। রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করে প্রথম সংবিধানের মধ্যে ধর্মকে সংযুক্ত করে । উনি ধর্মকে রাজনীতি হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করে এই বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ধ্বংস করেছিল। আজকে বাংলাদেশের মধ্যে যে বিভিন্ন সময়ে সমাজে অশান্তি দেখা যায়। সেটার মূল হোতা ছিল বিএনপির। ১৯৭১ সালে জামাতি ইসলাম। ধর্মের নাম করে গণহত্যা করেছিল, নারী নির্যাতন করেছিল, লুটপাট করেছিল। এই কারণে জামাত ইসলাম যুদ্ধ অপরাধী দল হিসেবে নিষিদ্ধ ছিল। জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করার পর। সরকার গঠন করেছিল। এই সকল রাজাকার,আলবদর দিয়ে মন্ত্রিপরিষদ গঠন করে এবং জামাতকে রাজনৈতিক পুনর্বাসন করেছিল। কুখ্যাত রাজাকার গোলাম আযমকে নিয়ে এসে রাজনীতির সুযোগ করে দিয়েছিল। আজকে দেশে মানুষ সবাই জানে জামাত ইসলাম যুদ্ধ অপরাধি দল এবং এদেশে ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক বিষ বাক্য ছড়ার মূল দায়ী এই জামাত ইসলাম। জামাতের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মাওলানা মওদুদী পাকিস্তান আমলের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা করার দায়ে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হয়েছিল। সেই জামাতকে বিএনপি বলে একই মায়ের দুটি সন্তান। বিএনপির শীর্ষ নেতা তারেক রহমান উনি ছাত্রশিবিরের এক সভায় যে বলেছেন ছাত্রশিবির ছাত্রদল একই মায়ের দুই সন্তান। যারা সাম্প্রদায়িক ও সম্প্রীতি বিনষ্ট কারী তাদের মুখে অসাম্প্রদায়িক চেতনার কথা মানায় না। বাংলাদেশের যত অসম্প্রদায়িক ও সম্প্রীতির বিনষ্টকারীর মূলহোতা এই বিএনপি।

হানিফ এমপি আরো বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যথা সময়ে হবে, সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকার ও এই নির্বাচন কমিশনের অধিনেই হবে এবং নিবন্ধিত সকল রাজনৈতিক দল সেই নির্বাচনে অংশগ্রহন করবে।

এই সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাযহারুল আলম সুমন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম বিপ্লবসহ দলীয় নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম