1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের জীবনমান উন্নয়নকে সামনে রেখে বায়ার ক্রপসায়েন্স এশিয়া প্যাসিফিক প্রধান ব্রায়ান নাবের‘র দিনাজপুর সফর - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৯:২০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
বর্তমান এবং  ভবিষ্যৎ প্রজন্ম একটি সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশের গর্বিত নাগরিক হবে – মো. তাজুল ইসলাম, (এলজিইডি মন্ত্রী) পোকখালী’র ইউপি চেয়ারম্যান জামিনে মুক্ত চৌদ্দগ্রামে ইউনাইটেড ফর হিউমিনিটি’র অভিষেক ও দুর্ঘটনায় আহত শিক্ষকের মাঝে অর্থ হস্তান্তর ভিসির নির্দেশে বন্ধ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজন, মানেনি কুবি শিক্ষকরা ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সাথে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মতবিনিময় ফুলবাড়িতে ত্রিমুখী লড়াইয়ে এগিয়ে জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী ঘূর্ণিঝড়ে রাউজানে দুইটি ঘর বিধ্বস্ত, বিচ্ছিন্ন  বিদ্যুৎ সংযোগ  রাশিয়া তালেবানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে বৃহত্তর বার্ষিক অর্থনৈতিক ফোরামে উদাহরণ দিয়ে বলতে পারবেন না, কোথাও আমরা মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছি – সেনা প্রধান  ঠাকুরগাঁওয়ে পীরগঞ্জের রেজিয়া হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন বিষয়ে – পুলিশের প্রেস ব্রিফিং !

ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের জীবনমান উন্নয়নকে সামনে রেখে বায়ার ক্রপসায়েন্স এশিয়া প্যাসিফিক প্রধান ব্রায়ান নাবের‘র দিনাজপুর সফর

রফিকুল ইসলাম ফুলাল প্রতিনিধি দিনাজপুর :
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ১৬০ বার

ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের জীবনমান উন্নয়নকে সামনে রেখে বাংলাদেশ ভ্্রমনের অংশ হিসেবে দিনাজপুর সফর করলেন বায়ার ক্রপসায়েন্স এশিয়া প্যাসিফিক‘র প্রধান ব্রায়ান নাবের। এসময় তিনি হাবিপ্রবি‘র ছাত্র শিক্ষক,সরকারী কর্মকর্তা, স্থানীয় কৃষকদের সাথে অভিজ্ঞতা ও মত বিনিময় করেন।

বায়ার বাংলাদেশ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহিদুল ইসলামসহ দিনাজপুরে বায়ার এর বিভিন্ন উদ্যোগগুলো পরিদর্শন করেন যেসব উদ্ভাবনী উদ্যোগগুলো ইতোমধ্যে কৃষক ও কৃষি সংশিষ্টদের সহায়তা করে আসছে। সৈয়দপুর থেকে যাত্রা শুরু করে প্রথমেই বেটার লাইফ ফার্মিং সেন্টার (বিএলএফসি) পরিদর্শন করেন। বেটার লাইফ ফার্মিং, ক্ষুদ্র কৃষকদের জন্য বায়ার গ্লোবাল উদ্যোগের অধীনে একটি এলায়েন্সে বা মৈত্রী ভিত্তিক প্রশংসনীয় উদ্যোগ, যেখানে তিনি একটি কেন্দ্রের উদ্যোক্তার সাথে সাক্ষ্যাৎ করেন। এরপর ব্রায়ান হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়-এর মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. এম কামরুজ্জামান এবং তার ইউনিভার্সিটি প্রফেসর ও সিনিয়র স্টুডেন্টস টিমের সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং বুঝতে চেষ্টা করেন বায়ার কিভাবে বিশেষজ্ঞ ও র্গ্যাজুয়েটদের মাধ্যমে জ্ঞান ও প্রযুক্তি হস্তান্তর এবং সম্প্রসারনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সাথে অংশীদারীত্ব আরও প্রসারিত করতে পারে। বিএলসি বা বায়ার লার্নিং সেন্টারগুলি দেশের কৃষকদের কাছে ট্রেইট অ্যান্ড টেকনোলজিস রিয়েল টাইম প্রদর্শনের জন্য বায়ার -এর আরেকটি জ্ঞান কেন্দ্র। ধান, ভুট্টা, শাকসবজি’র হাইব্রিড বীজ এবং শস্য সুরক্ষার সমস্ত সমাধানের বিশিষ্ট কর্মক্ষমতা প্রদর্শনের জন্য মাঠে স্থাপন করা হয় যাতে অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিক যে কোনও স্টেকহোল্ডার / সুবিধাভোগী তাদের বোঝার এবং শেখার জন্য ফলাফলটি পরিদর্শন করতে পারে। এসময় আশেপাশের কৃষক, পরিবেশক, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি এবং স্থানীয় কৃষি স¤প্রসারণ কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে ব্রায়ান দিনাজপুরের একটি বিএলসি পরিদর্শন করেছেন এবং অংশগ্রহণকারীদের সাথে অভিজ্ঞতা এবং মত বিনিময় করেন । ব্রায়ানের মাঠ পরিদর্শন শেষ করেন বীরগঞ্জ এলাকায় কৃষকদের জন্য বায়ার ডিজিটাল পরিষেবাগুলির মধ্যে আন্যতম একটি ”জিওপোটাটো”র অভিজ্ঞতার সাথে, যা আলু চাষীদের লেইট ব্লাইট প্রতিরোধের জন্য আবহাওয়া-ভিত্তিক রোগ পূর্বাভাস প্রদানমূলক উদ্যোগ। ”জিওপোটাটো” একটি সাবস্ক্রিপশন-ভিত্তিক জিওডেটা- চালিত সিদ্ধান্ত সহায়তা পরিষেবা (ডিএসএস) যা আলু চাষীদের লেইট ব্লাইট সংক্রমণের ৩ দিন আগে এসএমএস এবং ভয়েসমেলের মাধ্যমে প্রতিরোধমূলক ছত্রাকনাশক ¯েপ্র করার জন্য আগাম সতর্কতা সরবরাহ করে। এটি সুনির্দিষ্ট ছত্রাকনাশক ¯েপ্র পরামর্শ প্রদান করে যা বালাইনাশক এর খরচ এবং পরিবেশগত বিরুপতা উভয়ই হ্রাস করে। ২০১৬ সালে মুন্সিগঞ্জ জেলার ১২০ জন কৃষককে নিয়ে বাংলাদেশে এই জিওপোটাটো সেবা চালু করা হয়। বায়ার গত বছর জিওপোটাটো মডেলের মাধ্যমে ৫০ হাজার কৃষককে এসএমএস সরবরাহ করেছিল। ২০২২ সালের পর বৃহত্তর সাফল্যের লক্ষ্য নিয়ে এ বছর বায়ার ১০ টি জেলার ২৭ টি উপজেলায় ২৩ হাজার কৃষককে স¤পৃক্ত করে জিওপোটো সেবা প্রদান করছে।

ব্রায়ান নাবের তার বক্তৃতায় বলেছেন- “বায়ার একটি লাইফ সায়েন্স কোম্পানী এবং এর উদ্দেশ্য ‘উন্নত জীবনের জন্য বিজ্ঞান’ এবং ভিশন ‘সবার জন্য স্বাস্থ্য, কারও জন্য ক্ষুধা নয়’। এশিয়া প্যাসিফিক দেশগুলি, বিশেষ করে বাংলাদেশ বায়ার -এর উন্নয়ন কর্মকান্ড এবং কৃষকদের জীবিকা এবং দেশের কৃষি উৎপাদনশীলতার উন্নতির জন্য আরও অনেক সমাধান এবং ডিজিটাল সেবা প্রবর্তন করার লক্ষ্যের শীর্ষ তালিকায় রয়েছে। ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের জীবনমান উন্নয়ন বায়ার -এর প্রধান লক্ষ্য। আমি বিশ্বাস করি, বায়ার ইতিমধ্যেই উদ্ভাবনী সমাধান ও প্রযুক্তির মাধ্যমে দেশের খাদ্য নিরাপত্তায় উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছে; এটি টেকসই করার প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। বায়ার ইতিমধ্যে সেই লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেছে।”তিনি তার সফরে দেশের প্রধান কয়েকজন নীতিনির্ধারকদের সাথে সাক্ষাত ও আলোচনা করেন যে কৃষিতে বাংলাদেশের টেকসই লক্ষ্য অর্জনে বায়ার কীভাবে আরো সহায়তা করতে পারে ।

ব্রায়ান নাবের এদেশের কৃষি ও মার্কেটের চাহিদা স¤পর্কে জানতে সম্প্রতি বাংলাদেশ সফর করেন। এরই অংশ হিসেবে তিনি গত ৮ ফেব্রুয়ারী বুধবার দিনাজপুরে মাঠ-পর্যায়ে পরিদর্শন করেন। এসময় কৃষক, ব্যবসায়িক পার্টনার, স্থানীয় কৃষি অফিস, সরকারী উর্ধতন কর্মকর্তা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং অন্যান্য সহযোগিদের সাথে সাক্ষাৎ করেন। এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (শষ্য) মো খালেদুর রহমান, বীরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো শরিফুল ইসলাম, অনুষ্ঠানে বায়ার- জিওপটেটো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ‍্য তুলে ধরেন ক্রপ স্পেশালিষ্ট (হর্টিকালচার) খন্দকার ফরিদ উদ্দিন,আইটি হেড সারদাগুপ্ত, ও ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ-শ্রীলংকা, অনুরুদ্ব ব‍্যানার্জী,সিরাজুল ইসলাম, কমার্শিয়াল ম‍্যানেজার নর্থ রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, লিড রেগুলেটরি এন্ড মার্কেট ডেভেলপমেন্ট কাজী ওমর ফারুক রিজিওনাল ম‍্যানেজার দিনাজপুর।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম