1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বিশিষ্ট সাংবাদিক ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী মৃত্যতে দৈনিক শ্যামল বাংলা পরিবার গভীর ভাবে শোকাভিভূত। - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ঠাকুরগাঁওয়ে সীমান্ত হত্যা ও বিদেশী আগ্রাসন বন্ধের দাবীতে লাশের মিছিল ! নবীগঞ্জে শাখা বরাক বাঁচাতে পদযাত্রা পরিবেশ রক্ষায় নাগরিক আন্দোলনে এগিয়ে আসুন গাজীপুরে ১৫ ঘন্টায় তিনজনের আত্মহত্যা গাজীপুরে সিটি কর্পোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় শ্রমিকের মৃত্যু শ্রীপুরের বরমী থেকে একটি বিদেশি পিস্তল,১ রাউন্ড গুলি ও ১০০পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার-১ বাঁশখালীতে বেকারির শ্রমিক হত্যাকান্ডের আসামী মাহাবুব গ্রেপ্তার কুবিতে বিজ্ঞান উৎসব অনুষ্ঠিত। চৌদ্দগ্রামে সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপিকে মুক্তিযোদ্ধাদের ফুলেল শুভেচ্ছা মাগুরায় সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, আটক-৩ মাগুরায় শহিদ ও মৃত মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

বিশিষ্ট সাংবাদিক ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী মৃত্যতে দৈনিক শ্যামল বাংলা পরিবার গভীর ভাবে শোকাভিভূত।

ডাঃ আল হাসান মোবারক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৬৫ বার

দৈনিক দিনকাল পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলাম লেখক  ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী গত ১৬ জানুয়ারী ২০২৪ইং ইন্তেকাল করেন ….ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মৃত্যুকালে  তাঁর বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।
বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় তার লেক সার্কাস রোডে নিজ  বাস ভবনের সামনে এবং
দুপুর ১২টায় বাংলাদেশ  জাতীয় প্রেসক্লাবে আরও  দুই টি নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।
মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে, তাকে রায়ের বাজার বুদ্ধিজীবী কবর স্থানে দাফন করা হয়
এর আগে তিনি রাজধানীর  শ্যামলীর একটি বেসরকারি হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন আইসিও থাকা অবস্থায় মঙ্গলবার রাত ১১ টায়  তিনি শেষ নিঃস্বাস ত্যাগ করেন ।
তিঁনি দীর্ঘদিন যাবত কিডনি জনিত রোগে  ভুগছিলেন।


সাংবাদিক ড. রেজোয়ান সিদ্দিক এর মৃত্যুতে জনাব  খন্দকার আলমগীর হোসাইন সম্পাদক-দৈনিক শ্যামল বাংলা, ও দৈনিক শ্যামল বাংলা পরিবার গভীর ভাবে শোকাভিভূত।
সম্পাদক সাহেব বলেন দেশ আজ একজন গুনীজন ও সময়ের সাহসী কলম যোদ্ধাকে হারালেন।

দেশের এই ক্রান্তি লগ্নে  উনার মত একজন সাংবাদিক খুবই প্রয়োজন।

আমারা তাঁর  মরহুমের বিদেহী আত্মার  মাগফেরাত কামনা করি এবং  আল্লাহ উনাকে জান্নাত বাসী করুন। আমিন

এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার প্রতি গভীর সমবেদনা বেদনা জ্ঞাপন করি।

ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী (এ নজরে )
সাহিত্যিক, সাংবাদিক, কলামিস্ট
রেজোয়ান হোসেন সিদ্দিকীর জন্ম ১৯৫৩ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাঈল জেলার এলাসিন গ্রামে সংম্ভ্রান্ত এক পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন।
পিতা মৃত্যু আতিকুল হোসেন সিদ্দিকী। মাতা মৃত্য হাওয়া সিদ্দিকী।
শিক্ষা জীবনে তিঁনি এলাসিন তারক যোগেন্দ্ৰ হাইস্কুল থেকে তিনি  এসএসসি পাস করেন ১৯৬৮ সালে।
১৯৬৯ সালে করটিয়ার সা’দত কলেজের ছাত্র থাকা অবস্থায় বাম ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পরার করণে  ‘৬৯-এর আইয়ুব খান  সামরিক শাসনের রোশানলে পরে মাথায় হুলিয়া নিয়ে আত্মগোপন  চলে যান ।
তার পড়াশোনার সাময়িক গতিপথ বন্ধ  হয়।
এ কারণে  তিনি চলে আসেন চট্টগ্রামে তার চাচা মোফাখখর হোসেন সিদ্দিকীর কাছে। কিছু দিন থাকার পর রেজোয়ান সিদ্দিকী  ঢাকায় আসেন
জীবনের  এক ভিন্ন অধ্যায় শুরু হয় তখন থেকেই ঢাকায় এক নিশ্চয়তা জীবন । শুরু করেন সংগ্রামী জীবন কাজ নেন প্রেসে কম্পোজিটরের ।
করেন  প্রাইভেট টিউশনি, বাংলা বাজারে প্রুফ দেখেছেন ।
শিক্ষা
এর মাঝে পড়া শুনা চালিয়েছেন ভর্তী হন  জগন্নাথ কলেজে।
শিক্ষক হিসেবে যাদের  পেয়েছেন শওকত আলী, আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, আবদুল মান্নান সৈয়দ, আহমদ কবীর, শহীদুর রহমান খ্যতনামা শিক্ষক গণ।
তাদের সান্নিধ্য পেয়ে ছাত্র হিসেবে  রেজোয়ান সিদ্দিকী নিজেকে মেলে ধরার চেষ্টা করেন এবং তাঁর মেধাবী শিক্ষার্থী পেয়ে যোগ্যকরে গড়ে তোলেন।
এইচএসসি পর্যন্ত তিনি ছিলেন বিজ্ঞানের ছাত্র ছিলেন।
এইচ.এসসি. পাসের পর ঢাকা ১৯৭৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা সাহিত্যে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর (১৯৭৬) ডিগ্রি লাভ করেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই তিনি পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন ১৯৯৫ সালে।
১৯৯০-৯১ সালে হল্যান্ডের হেগ নগরীর আইএসএস (ইনস্টিটিউট অব সোস্যাল স্টাডিজ) থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও উন্নয়ন বিষয়ে তিনি অর্জন করেছেন স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা।
সাংবাদিকতাঃ
১৯৭০ সাল থেকেই সংবাদপত্রের সুনামের  সাথে কাজ করেন ।
১৯৭২ সালের ফেব্রুয়ারী মাসের দিকে দৈনিক বাংলার  প্রুফ রিডার হিসেবে সাংবাদিকতা পেশায় সম্পৃক্ত হন। কাজ করপন ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত।
শেষ পর্যন্ত দৈনিক বাংলার প্রত্রিকায় সিনিয়র সহকারী সম্পাদক ছিলেন
সাংবাদিকতার পেশায় হোউজে এমন কোনো পদ নেই, যে পদে কাজ করেননি তিনি।
জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত  তিনি  দৈনিক দিন কালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন।
এরই মাঝে জীবন চালার পথে তিনি ৯৪-৯৬ সালে ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর উপপ্রেস সচিব।  এবং বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন চার বছর।

লেখক
কী লেখেননি রেজোয়ান সিদ্দিকী
১৯৭২ সাল থেকেই ছোট গল্পকার ও কলাম লেখক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন রেজোয়ান সিদ্দিকী। লেখাপড়া করেন সাহিত্যে।
সব সময়ে  বড় লেখক হতে চেয়েছিলেন এবং হয়েছেনও তিঁনি,
গল্প, নাটক, বিজ্ঞান, প্রকৃতি-পরিবেশ, ফিকশন, অনুবাদ, গবেষণা, প্রবন্ধ, কলাম, উপন্যাস, সংকলন সব কিছু মিলিয়ে  অর্ধশতাধিক বই। ছোটগল্প লিখেছেন দুশতাধিক।
উপন্যাস ন’টি, প্রত্যেকটি ব্যতিক্রম। রাসপুটিনের জীবনী, প্ৰবন্ধ আর সমালোচনায় ছিলেন  অগ্রণী,
খবরের কাগজের কলাম তো আছেই। , সাংবাদিকতা ও টেলিভিশনের উপস্থাপক পরিবেশ বিষয়ক প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন তিনি।
রেজোয়ান সিদ্দিকী ছুটে বেরিয়েছেন  দেশের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত পর্যন্ত। তার সারা জাগানাে গবেষণা পূর্ব বাংলার সংস্কৃতিক সংগঠন ও সাংস্কৃতিক আন্দােলন।
লিখেছেন অকাতরে কোন লেখা ভালো খারাপ ভাবেননি। তারপরেও এই সময়ের সবচাইতে শক্তিশালী কলম-সৈনিকদের মধ্যে তিনি একজন ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী।
১৯৯৭ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত দৈনিক দিনকাল-এ বার্তা সম্পাদক ছিলেন।
এবং ২০০২ সালে যোগ দেন। লন্ডন থেকে প্রকাশিত দৈনিক বাংলাদেশ পত্রিকার বাংলাদেশস্থ আবাসিক সম্পাদক হিসেবে। ২০০২ সালে সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

জীবনে শেষ দিনে অসুস্থ হওয়ার আগ পর্যন্ত অবিরাম লিখে গেছেন। দ্বায়িত্ব পালন করেন দৈনিক দিনকাল এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে।
জীবন-জীবিকার সংগ্রামী জীবনে  রেজোয়ান সিদ্দিকীর প্রধান শক্তি ছিল  সততা, বস্তুনিষ্ঠ, ন্যায়পরায়নতা  আন্তরিকতা ধৈর্য  ।
সততার বিষয়ে আপোষ করেন নাই কখনো।
আওয়ামী লীগের রাজনীতি প্রভৃতি জীবনের নানা ঘাত প্রতিঘাত  সংগ্রাম,
সরকারী রোষানলে পরে জেল খেটেছেন, হয়রানির শিকার , হামলা-মামলার মধ্যে পরেছেন ।
এই মহান সাংবাদিক মাথা  নত করেবন নাই কখনো।
ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সিনিয়র সদস্য, প্রবীণ সাংবাদিক ও কথা সাহিত্যিক ড. রেজোয়ান সিদ্দিক আজ আমাদের মাঝে নাই।
রয়ে গেল তাঁর  কর্ম ও শিক্ষা এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য তাঁর কর্মজীবনের দিক নির্দেশন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম