1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
চন্দনাইশে বসতবাড়ির ৩ পাশে ওয়াল দেয়ায় রাস্তার পাশে লাশ রেখে দাফন কাফন সম্পন্ন  - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০১:১৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
বাঁশখালীতে মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে পুড়েছে চার দোকান ফাঁসিয়াখালী-মেদাকচ্ছপিয়া পিপলস ফোরাম (পিএফ) সাধারণ কমিটির সভা সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ফের ৩দিন ক্লাস বর্জনের ঘোষণা কুবি শিক্ষক সমিতির নবীনগরে পৃথক মোবাইল কোর্ট অভিযানে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী উপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা তিতাসে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা শেরপুরে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত

চন্দনাইশে বসতবাড়ির ৩ পাশে ওয়াল দেয়ায় রাস্তার পাশে লাশ রেখে দাফন কাফন সম্পন্ন 

চন্দনাইশ(চট্টগ্রাম)প্রতিনিধিঃ এস.এম.জাকির।
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ মার্চ, ২০২৪
  • ১০৮ বার

চট্টগ্রামের চন্দনাইশ সাতবাড়িয়াতে ইদ্রিসের বাড়ির ৩ দিকে প্রভাবশালী পরিবারের ওয়াল নির্মাণের কারণে মো. ইদ্রিস(৫০)’র লাশ ঘরে ঢুকাতে পারছেনা তার পরিবার। রাস্তার পাশে চলছে দাফন কাফনের কাজ।

শুক্রবার উপজেলার সাতবাড়িয়া বহরম পাড়া  মৌলবী বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ইদ্রিস ঐ এলাকার আবদুল মাবুদের ছেলে।

পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আবদুল মাবুদের  ১ ম ছেলে ইদ্রিস গত ৭ মার্চ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কক্সবাজার তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে মৃত্যু বরণ করেন। ভোরে তার লাশ গ্রামের বাড়িতে আনা হলে বাড়ির ৩ দিকে ১০ ফুট উঁচু ওয়াল থাকায়  লাশ ঘরে ঢুকাতে পারেনি। অপর দিকে একটি খাই থাকায়  ঘরে কেউ যাতায়াত করতে পারে না।  ফলে ইদ্রিসের লাশ চলাচলের রাস্তার পাশে রেখে দাফনের ব্যবস্থা করেছেন তার আত্মীয় স্বজন।

মৃত ইদ্রিসের পিতা মাবুদ বলেছেন তার ছেলের লাশ ঘরে নিতে না পেরে রাস্তার পাশে রেখে গোসল দেয়ার পর ধর্মীয় রীতিনীতি অনুযায়ী জুমার নামাজের পর দাফন করা হয়। অথচ এ বিষয়ে ২ মাস পূর্বে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবরে পৃথক পৃথক লিখিত অভিযোগ করার পর ও কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি প্রসাশন। ওয়াল নির্মানকারীরা অর্থবিত্ত ও প্রভাবশালী হওয়ায় এ বিষয়ে এলাকাবাসী মুখ খুলতে সাহস পায়নি। এ ধরনের অমানবিক দৃশ্য এলাকার সাধারণ মানুষ হতবাক। এ ব্যাপারে স্থানীয় সাংবাদিকরা বিষয়টি উপজেলা ও থানা প্রসাশনকে জানানোর পরও আইনগত কোন পদেক্ষপ নেয়নি প্রশাসন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা বেগম বলেছেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি জানেন এবং থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অভিহিত করেছেন। ব্যক্তিগত জমিতে ওয়াল নির্মাণ করলে আমাদের কিছু করার থাকে না। আদালত তদন্ত প্রতিবেদন চাইলে সেটাতে সরেজমিনে তদন্ত করে রিপোর্ট দেয়া যায়।
আইনগতভাবে না হলে কার্যকরী কোন পদক্ষেপ নেয়া কঠিন হয়ে যায়। এরপরেও বিষয়টি যেহেতু অমানবিক,তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম