1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
এক সপ্তাহের বিক্ষোভের ‍মুখে কুয়েতে সরকার পতন - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:০০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
রাউজানে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু আনোয়ারা প্রেস ক্লাবের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রাউজানে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গাপূজা অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় : এমপি হানিফ ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীর শাকিল হত্যা মামলার আসামি এক মাস ধরে পলাতক, ইউপি চেয়ারম্যানকে খুঁজছে পুলিশ ! উন্নয়নের সুষম বণ্টনই আমার প্রধান লক্ষ্য : নিবাচনী প্রচারণায় ভার্ড কামাল বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক স্পর্শে প্রাণ গেল যুবকের! ঠাকুরগাঁও থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী গাজীপুর থেকে উদ্ধার —আসামীরা পলাতক ! ১০ বছরেও সংস্কারের মুখ দেখেনি শীলকূপ-গন্ডামারা সড়ক, খানাখন্দে বেহাল জনদুর্ভোগ

এক সপ্তাহের বিক্ষোভের ‍মুখে কুয়েতে সরকার পতন

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৮৮ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কুয়েতে এক সপ্তাহের টানা বিক্ষোভের মুখে পতন হল মধ্যপ্রাচ্যের আরও একটি দেশে। লেবাননের পর মন্ত্রিসভাসহ পদত্যাগ করেছে কুয়েত সরকার। প্রধানমন্ত্রী জাবির আল মুবারাক আল হামাদ তাদের পদত্যাগপত্র দেশটির আমির সাবাহ আল আহমাদ আল জাবির আল সাবাহ’র কাছে জমা দিয়েছেন। সরকারের মুখপাত্র তারেক আল মেজরেম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

দুর্নীতি দমনে ব্যর্থতার অভিযোগ এবং সংস্কারের দাবিতে সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছিল কুয়েতি জনগণ। গণমাধ্যমকে মেজরেম জানান, কুয়েতের সংসদে দুইজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব উত্থাপনের পর তারা পদত্যাগ করেন। এরও আগে দেশটির অর্থমন্ত্রী প্রদত্যাগ করেন। সংসদ সদস্যরা মন্ত্রীদের পদত্যাগকে স্বাগত জানিয়েছেন। পদত্যাগী প্রধানমন্ত্রী জাবির আল মুবারাক আল হামাদ প্রায় দশ বছর ধরে এই পদে ছিলেন। কুয়েতের আমির নয়া সরকার গঠনের দায়িত্ব কাকে দেবেন তা এখনও স্পষ্ট নয়।

মিসর থেকে মরক্কো, আলজেরিয়া থেকে সুদান, লেবানন থেকে ইরাক- মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার দেশগুলোয় সত্যিকার নাগরিক অধিকারের দাবিতে যে আন্দোলন, এর আবেদন এখনও শেষ হয়ে যায়নি। নয় বছর আগের সেই আরব বসন্তই আবার নতুন করে ডালপালা ছাড়ছে গোটা আরব মুল্লুকে। কোথাও কোথাও আরও গভীর হয়েছে। আন্দোলন-বিক্ষোভের ধারাবাহিকতায় তিউনিশিয়া, আলজেরিয়া ও সুদানে দীর্ঘদিনের স্বৈরশাসকের পতন হয়েছে।

মাত্র দুই সপ্তাহের বিক্ষোভে সরকার পতন হয়েছে লেবাননে। ইরাকেও পতনের পথে। তারই ছোঁয়া এখন কুয়েতেও। দুর্নীতি, বেকারত্ব ও মৌলিক অধিকারের দাবিতে ফুঁসে উঠেছে কুয়েতি জনগণ। গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো রাজধানী কুয়েত সিটিতে পার্লামেন্টের বিপরীতে ইরাদা স্কয়ারে বিক্ষোভ-সমাবেশ হয়। স্পিকার মারজুক আল গানিম পদত্যাগের আহ্বান জানায় বিক্ষোভকারীরা।

আরব বসন্ত মূলত শুরু হয়েছিল তিউনিশিয়ায় ২০১০ সালে। ওই বছরের ১৭ ডিসেম্বর নিজের গায়ে আগুন দিয়ে বিপ্লবের মশাল জ্বেলে দেন রাস্তার সবজি বিক্রেতা মোহাম্মদ বুয়াজিজি। দেশটির সরকারের ঘুষ, দুর্নীতি, বেকারত্ব, রাজনৈতিক নিপীড়ন ও স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে তা ছিল এক জ্বলন্ত বিদ্রোহ। গণঅভ্যুত্থানে শেষ পর্যন্ত দেশটির তিন দশকের স্বৈরশাসক প্রেসিডেন্ট জয়নুল আবেদিন বেন আলির পতন ঘটে।

স্বৈরশাসনের দীর্ঘ অন্ধকার শেষে উদিত হয় সত্যিকার গণতন্ত্রের সোনালি সূর্য। এরপর বিদ্রোহের আগুন ছড়িয়ে পড়ে আরববিশ্বের অন্যান্য দেশেও- লিবিয়া, ইয়েমেন, বাহরাইন, ফিলিস্তিন, সিরিয়াসহ কয়েকটি দেশে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম