1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
দৈনিক সংগ্রাম বন্ধের পাঁয়তারা বন্ধ করতে হবে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

দৈনিক সংগ্রাম বন্ধের পাঁয়তারা বন্ধ করতে হবে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৯৯ বার

নিউ ইয়র্ক থেকে সংবাদদাতা :
প্রখ্যাত লেখক ও দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদেও উপর চালানো বর্বোরোচিত হামলা বাংলাদেশের ইসলামী মূল্যবোধ ও জাতীয়তাবাদী দ্বারা কণ্ঠকে স্তব্ধ কওে দেবার গভীর ষড়যন্ত্র বলে মন্তব্য করেছেন নিউ ইয়র্কেও লেখক ও সাংবাদিকরা। ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী শাসন ব্যবস্থা দক্ষিণ এশিয়ায় প্রতিষ্ঠার অংশ হিসেবে অন্তত্য পরিকল্পিতভাবে দৈনিক সংগ্রাম অফিসে হামলা ও পত্রিকাটির সম্পাদককে নাজেহাল করা হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তারা। দৈনিক সংগ্রাম বন্ধ কওে কার্যালয়টি দখলে নেবার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলেও মনে করেন প্রবাসী লেখক সাংবাদিকরা । এসময় বক্তারা অবিলম্বে সম্পাদক আবুল আসাদেও মুক্তির দাবী জানান লেখক ও সাংবাদিকরা। দৈনিক সংগ্রামে চলা তান্ডবের তীব্র নিন্দা জানান বক্তারা।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কেও জ্যাকসন হাইটসে বাংলাদেশ প্লাজা অডিটরিয়ামে রাইটার জার্নালিস্ট সোসাইটি অব নিউ ইয়র্ক আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এসব কথা বলেন বক্তারা। নিউ ইয়র্ক থেকে প্রকাশিত দৈনিক রানার পত্রিকার সম্পাদক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল আবদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন লং আইল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. শওকত আলী , বিশিষ্ট কলামিস্ট মিনা ফারাহ, এখন সময় পত্রিকার সম্পাদক কাজী শামসুল হক, সাউথ এশিয়ান সলিডারিটি ফাউন্ডেশন-এর নির্বাহী সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংবাদিক ইমরান আনসারী, নিউ বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বাংলা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক এবিএম সালাউদ্দিন আহম্মদ,সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি এমদাদ চৌধুরী দীপু, ইয়র্ক বাংলা পত্রিকার সম্পাদক রশীদ আহমদ, রাইটারস ফোরাম অব আমেরিকার সহ সভাপতি নইমুদ্দীন প্রমূখ।
ড. শওকত আলী বলেন, সম্পাদক আবুল আসাদেও উপর সন্ত্রাসীদেও রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় হামলা আমাদেও গণতন্ত্র ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে অন্ধকাওে নিমজ্জিত করেছে। এহামলার শেকড় অনেক গভীরে। তিনি আরো বলেন, পত্রিকা ভূল সংবাদ ছাপা হয়ে থাকলে আইনী পক্রিয়ায় পত্রিকার সম্পাদককে আদালতে দাড় করানো যেতো , আমরা দেখলাম কি নির্লজ্জভাবে বাংলাদেশের একটি পুরণো পত্রিকাকে হামলা চালানো হল। তিনি অবিলম্বে সন্ত্রাসীদেও বিচারের আওতায় আনার দাবী জানান। পত্রিকাটির যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা তদন্ত কওে ক্ষতিপূরুণ দেবার দাবীও জানান ড. শওকত আলী।
ডমনা ফারাহ বলেন, হিন্দুত্ববাদী শাসন ব্যবস্থা চালুর অংশ হিসেবেই দৈনিক সংগ্রাম অফিসে হামলা চালিয়ে পত্রিকাটির বয়োজ্যাষ্ঠ্য সম্পাদককে গ্রেফতার করা হয়েছে। একে একে জাতীয়তাবাদী দ্বারা সকল কণ্ঠকে স্তব্ধ কওে দেবার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে সরকার। মোদিও হিন্দত্ববাদী শাসন ব্যবস্থাকে রুখতে বাংলাদেশসহ ভারত বর্ষেও মুসলমানদেও ৪৭ এর চেতনায় ফিওে যেতে হবে। মিনা ফারাহ আরো বলেন, সরকারী মদদে দেশের সংস্কৃতি ও মূল্যবোধের বিরুদ্ধে কুঠারাঘাত হানা হয়েছে। একজন বয়োজ্যাষ্ঠ মানুষের উপর হাত দিতে এখনকার প্রজন্মেও চোখে লজ্জা লাগে না। তিনি আরো বলেন, ভারতে যে আইডেন্টির সংকট শুরু হয়েছে তার প্রথম ধাক্কা লাগবে বাংলাদেশে। বাংলাদেশে সংখ্যালঘুর শাসন চালু হবার আশংকাও করেন প্রবাসের এই কলামিস্ট।
কাজী শামসুল হক বলেন, প্রকাশ্যে দিবালোকে একজন আজীবন সংবাদকর্মী আবুল আসাদেও উপর হামলার বিষয়ে দেশে বিদেশে সাংবাদিকদেও নির্লিপ্ততা অত্যন্ত নিন্দনীয় উদাহরণ হয়ে থাকবে। আবুল আসাদ সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি আরো বলেন, তাঁর মতের সাথে কারো মিল নাই থাকতে পারে। কিন্তু একজন নিরেট সম্পাদকের উপর হামলার বিষয়ে সাংবাদিক সমাজের নির্লিপ্ততা বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতাকে আরো গভীর অন্ধকাওে নিমজ্জিত করবে।
ইমরান আনসারী বলেন, জাতীয়তা বাদী ও ইসলামি মূল্যবোধের পক্ষের কণ্ঠকে চিরতওে স্তব্ধ কওে দেবার ভারতীয় সম্প্রসারণবাদেও পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সংগ্রাম অফিসে হামলা ও পত্রিকাটির সম্পাদককে গ্রেফতার করা হয়েছে। যার শুরু হয়েছিল দৈনিক আমার দেশ, দিগন্ত টেলিভিশন, চ্যানেল ওয়ান ও ইসলামিক টিভি বন্ধের মাধ্যমে। সরকার এখন পায়তারা করছে দৈনিক সংগ্রাম বন্ধ করতে। তিনি আরো বলেন, জাতীয়তাবাদী দ্বারার কণ্ঠকে স্তব্ধ করার অংশ হিসেবে দৈনিক আমার দেশের সম্পাদক মাহমুদুর রহমান , বিশিষ্ট সাংবাদিক শফিক রেহমান ও কলামিষ্ট ফরহাদ মজহারকে গ্রেফতার, নাজেহাল ও গুমের চেষ্টা করেছে সরকার।
জয়নুল আবেদীন বলেন, সরকার দৈনিক সংগ্রাম বন্ধ কওে কার্যালয়টি দখল করা পায়তারা করছে। এটি ভারতীয় আর এস এস ও ও এর একটি সুদূও প্রসারি পরিল্পনা।
প্রতিবাদ সমাবেশে প্রতিবাদী কবিতা আবৃত্তি করেন কবি আবুল বাসার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম