1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শরণখোলায় ১৪ বছর পরে পুনঃ বহাল হলেন মাতৃভাষা কলেজের অধ্যক্ষ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৬:০৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
পথশিশুদের নিয়ে বিশ্বকাপ ফুটবল উৎসবে ঢাকা ইয়ুথ ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল রাউজানে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে কিলোমিটার জুড়ে আলোকসজ্জা ও মাইকের শব্দ দুষণ জনজীবন অতিষ্ট এক ঘন্টা পর ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কে ট্রেন চলাচল শুরু মীরসরাইয়ে বন বিভাগের উচ্ছেদ অভিযানে ১ একর জায়গা উদ্ধার শ্রীপুরে হযবরলের মাধ্যমে চলছে ভুমি জরিপ!ষুষে মেলে মুক্তি। সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ড বাঞ্ছারামপুর বার্তার সম্পাদককে হুমকীর প্রতিবাদে মানববন্ধন দরিদ্র মানুষের মাঝে সৈয়দপুরে জামায়াতে ইসলামী শীতবস্ত্র বির্তরণ রাউজান দলিল লিখক সমিতির সভাপতি অজিত কুমার দে- সম্পাদক মিজানুর রহমান বিএনপি না এলেও নির্বাচন হয়ে যাবে- নজিবুল বশর এমপি

শরণখোলায় ১৪ বছর পরে পুনঃ বহাল হলেন মাতৃভাষা কলেজের অধ্যক্ষ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৯৫ বার

নইন আবু নাঈম বাগেরহাট ঃ
শরণখোলায় মাতৃভাষা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা নিয়ে দন্ধের জেরে বরখাস্ত হওয়া অধ্যক্ষ মোঃ নজরুল ইসলাম তালুকদার ১৪ বছর পরে পুনঃ বহাল হলেন। গত ১৫ জানুয়ারী হাইকোটের এক আদেশে যশোর শিক্ষা বোর্ডের পুনঃ বহালের নির্দেশ কার্যকর হয়।
রোববার সকালে মাতৃভাষা কলেজের অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম তালুকদার শরণখোলা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের এক লিখিত অভিযোগে জানান, বিএনপি জামাত জোট সরকারের সময় জামায়তের এমপি মুফতি আঃ সাত্তারের ক্ষমতায় মাওলানা মুহাম্মদ মতিউর রহমান মতিন নিজে মাতৃভাষা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা হওয়ার ষড়যন্ত্র করেন। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তাকে কলেজ থেকে বরখাস্ত করে মতিন বেআইনি ভাবে কলেজের প্রতিষ্ঠাতা হন।
নজরুল ইসলাম বরখাস্তের প্রতিকার চেয়ে যশোর শিক্ষা বোর্ডে আবেদন করেন। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে বোর্ড থেকে তাকে অধ্যক্ষ পদে পুনঃ বহালের আদেশ দেন। ওই আদেশের বিরুদ্ধে মতিউর রহমানের ঘনিষ্টজন জাহাঙ্গীর হোসেন মুন্সি বাগেরহাট দেওয়ানী আদালতে দেঃ ৩১/২০১০ মামলা দায়ের করেন এবং ১০/০৭/২০১১ তারিখে একতরফা রায় ও ডিগ্রী হাসিল করেন। উক্ত রায়ের বিরুদ্ধে নজরুল ইসলাম তালুকদার বাগেরহাট জেলা জজ আদালতে দেঃ ১২৪/১১নং আপীল করে গত ০৫/০১/২০১৭ তারিখে নিজের পক্ষে রায় ও ডিগ্রী লাভ করেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে মামলার বাদী জাহাঙ্গীর হোসেন মহামান্য হাইকোর্টে ৫৬৪ নং আপীল মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ আইনী লড়াইয়ের পরে মামলার চুড়ান্ত বিচারে গত ১৫ জানুয়ারী বিচারপতি আশিষ রঞ্জন দাসের একক বেঞ্চ এক আদেশে বাগেরহাট সহকারী জজ আদালতের দেঃ ৩১/২০১০ নং মোকর্দ্দমার রায় ও ডিগ্রী রদ রহিত ও খারিজ করে দেন। ফলে দীর্ঘ ১৪ বছর পরে মাতৃভাষা কলেজের অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম তালুকদার কলেজে পুনঃ বহাল হলেন। তবে কলেজে যোগদান করতে না করতে তাকে প্রতিপক্ষরা বিভিন্ন প্রকার হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন এবং ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ অলিয়ার রহমান ষড়যন্ত্র করছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন।
জানতে চাইলে ভারপ্রপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ অলিয়ার রহমান বলেন, হাইকোর্টের রায় পাওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানাই। আমি কোন ষড়যন্ত্র করি না। তিনি তার দায়ীত্ব পালন করবেন তাতে আমার কোন সমস্যা নাই।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম