1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শ্রীপুর রেল ষ্টেশন চার বছরে শেষ হলো লাল পতাকার অভিযান - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৫১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
দরিদ্র মানুষের মাঝে সৈয়দপুরে জামায়াতে ইসলামী শীতবস্ত্র বির্তরণ রাউজান দলিল লিখক সমিতির সভাপতি অজিত কুমার দে- সম্পাদক মিজানুর রহমান বিএনপি না এলেও নির্বাচন হয়ে যাবে- নজিবুল বশর এমপি মানিকছড়ি উপজেলা বিএনপি কাউন্সিল-২০২২অনুষ্ঠিত সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত রাউজানে কৃষক-কৃষাণি’র মুখে হাসি ফোটাতে ধান কেটে দিলো কৃষক লীগ আনোয়ারায় তোষামোদকারী সাংবাদিকতা ছেড়ে আপোষহীন সাংবাদিকতার আহবান ঠাকুরগাঁওয়ে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈল ও বালিয়াডাঙ্গী ৪৭ টি ভাটাতে ইট পোড়ানো প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও আগুন জ্বালানো অনিশ্চিত ! নোয়াখালীতে ৯ টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম হচ্ছে- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

শ্রীপুর রেল ষ্টেশন চার বছরে শেষ হলো লাল পতাকার অভিযান

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৭৬ বার

ফজলে মমিন, গাজীপুর:
শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটা। রং বেরংয়ের বেলুন ও লাল গোলাপে সাজানো হয়েছে শ্রীপুর রেল ষ্টেশন। ষ্ট্রেশন চত্ত্বরে ভিড় করেছে হাজারো মানুষ। আন্ত:নগর ট্রেন যমুনা এক্সপ্রেসের স্থায়ী স্টপেজের দাবিতে চার বছর যাবৎ চলা আন্দোলনের ফসল ঘরে তুলছেন শ্রীপুরের বাসিন্দারা। শুধু আন্দোলন করেও ক্ষান্ত হয়নি তারা, শুরু করেছিল লাল পতাকার অভিযাণ। প্রতিদিন ট্রেনের আগমন ও প্রস্থানে লাল পতাকার মাধ্যমে যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেন থামিয়ে যাত্রীরা নির্দ্দিষ্ট গন্তব্যে যাতায়াত করতো। তবে বিনা টিকেটে ভ্রমন করে ট্রেনের ভেতরে যাত্রীরা যেমন ভোগান্তিতে পড়তো তেমনি সরকারও রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছিল। অবশেষে রেল বিভাগের সিদ্ধান্ত মোতাবেক যাত্রীদের আশা পূরণে শুক্রবার সকাল থেকে টিকেট দেয়া শুরু হলো। এতে শ্রীপুরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবিতে ষ্টেশনে আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রাবিরতি দিল যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি।

রেল বিভাগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শুক্রবার (১০জানুয়ারি) সকাল থেকে গাজীপুরের জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ রেললাইনের শ্রীপুর ষ্টেশনে আন্ত:নগর যমুনা ট্রেন এখন থেকে প্রতিদিন যাত্রাবিরতি করবে। শুক্রবার ভোরের আলো ফুটার আগেই ষ্টেশনে পৌঁছে যান ট্রেনের স্টপেজে দাবিতে আন্দোলনকারী ও যাত্রীরা। আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে প্রতি টিকেটের সাথে যাত্রীদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে গোলাপ ফুল ও আপ্যায়ন স্বরুপ মিষ্টি।

শ্রীপুর রেল ষ্টেশনে আন্ত:নগর যমুনা ট্রেনের স্টপিজ দাবীতে দীর্ঘ ৪বছর ধরে নানাভাবে দাবী জানিয়ে আসছিল স্থানীয় ব্যবসায়ী ও সামাজিক সংগঠন। তাঁরা এ দাবীতে বিভিন্ন কর্মসূচীও পালন করে আসছে। শ্রীপুর বাজার বণিক সমিতির সাবেক নেতা ব্যবসায়ী ও ট্রেন স্টপেজের দাবিতে আন্দোলনকারীর প্রধান সমন্বয়ক তপন বণিক জানান, শিল্প এলাকা শ্রীপুর থেকে প্রতিদিন বহু যাত্রী প্রাত্যাহিক প্রয়োজনে দেশের বিভিন্ন স্থানে গমন করে থাকেন। এরমধ্যে যাত্রীদের একটি অংশের অন্যতম মাধ্যম ট্রেন। তবে দুঃখের বিষয় ছিল যে, এখানে কোন আন্তঃনগর ট্রেনের স্টপিজ ছিল না। যাত্রীদের সুবিধা বিবেচনায় শ্রীপুরবাসী আন্দোলন শুরু করে গত ৪বছর আগে। এসময় নানাভাবে রেল বিভাগের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করা হয়। তবে বিভিন্ন সময় আশ্বাস পাওয়া গেলেও তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। অবশেষে ১০ জানুয়ারী শুক্রবার সকাল থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই ষ্টেশনে যাত্রা বিরতি করলো যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি।

তিনি আরো জানান, এর আগে যাত্রীরা নিজ উদ্যোগে লাল পতাকা ধরে ট্রেন থামিয়ে দীর্ঘ ৪বছর যাবৎ এই ষ্টেশন থেকে যাতায়াত করতো। তবে বিনা টিকেটে ট্রেনে ভ্রমন করায় যাত্রীরা নানাভাবে হেনস্থা হতো। সরকারী এই সিদ্ধান্তে ভোগান্তি মুক্ত হলো যাত্রীদের।

রেলওয়ের শ্রীপুর ষ্টেশনের সহকারী মাষ্টার সাইদুর রহমান জানান, প্রতিদিন ঝুঁকিপূর্ণ উপায়ে এই ষ্টেশনে লাল কাপড় দেখিয়ে ট্রেন থামিয়ে যাত্রীরা বিনা টিকেটি ভ্রমন করলেও সরকারী সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শুক্রবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা বিরতি শুরু করেছে যমুন আন্তঃনগর ট্রেনটি। এই ট্রেনে গন্তব্যের জন্য যাত্রীদের আপ-ডাউনে ১০টি করে মোট ২০টি টিকেট বরাদ্ধ হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম