1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
গাইবান্ধার সড়কগুলোতে গণ পরিবহন চলাচল॥ একসাথে বসে গণ আড্ডা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:০১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ঠাকুরগাঁওয়ে সীমান্ত হত্যা ও বিদেশী আগ্রাসন বন্ধের দাবীতে লাশের মিছিল ! নবীগঞ্জে শাখা বরাক বাঁচাতে পদযাত্রা পরিবেশ রক্ষায় নাগরিক আন্দোলনে এগিয়ে আসুন গাজীপুরে ১৫ ঘন্টায় তিনজনের আত্মহত্যা গাজীপুরে সিটি কর্পোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় শ্রমিকের মৃত্যু শ্রীপুরের বরমী থেকে একটি বিদেশি পিস্তল,১ রাউন্ড গুলি ও ১০০পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার-১ বাঁশখালীতে বেকারির শ্রমিক হত্যাকান্ডের আসামী মাহাবুব গ্রেপ্তার কুবিতে বিজ্ঞান উৎসব অনুষ্ঠিত। চৌদ্দগ্রামে সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপিকে মুক্তিযোদ্ধাদের ফুলেল শুভেচ্ছা মাগুরায় সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, আটক-৩ মাগুরায় শহিদ ও মৃত মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

গাইবান্ধার সড়কগুলোতে গণ পরিবহন চলাচল॥ একসাথে বসে গণ আড্ডা

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০
  • ১১১ বার

আনোয়ার হোসেন শামীম, গাইবান্ধা :
করোনা কোভিড (১৯) ভাইরাসের সংক্রমন থেকে সুরক্ষার জন্য সামাজিক যোগাযোগ, ঘনিষ্ট মেলামেশা, বাড়িতে অবস্থান, গণ পরিবহনে একত্রিত হয়ে যাতায়াত এবং সরকার লক ডাউন ঘোষণাসহ ১০ দিনের ছুটি ঘোষণা করেছে। গাইবান্ধায় পরিবহন যোগাযোগ এবং সামাজিক মেলামেশার ক্ষেত্রে তা মানা হচ্ছে না।
জেলা শহরের ব্রীজ রোড থেকে দারিয়াপুর-লক্ষ্মীপুর, জেলা পরিষদের সম্মুখ থেকে নাকাইহাট সড়ক, বড় মসজিদের সম্মুখ থেকে বাদিয়াখালি-সাঘাটা-ফুলছড়ি, পুরাতন বাজারের গেট থেকে বালাসিঘাট-মদনেরপাড়া-কালিরবাজার সড়কে অটোবাইক, অটোরিক্সা, মিনি ট্রাক ও বড় ট্রাক অবাধে যাতায়াত করছে। এ সমস্ত যানবাহনে গায়ের সাথে গা লাগিয়ে ভীড়ে ঠাসাঠাসি করে যাতায়াত করছে মানুষ। করোনা কোভিড (১৯) ভাইরাস প্রতিরোধে একজন মানুষের থেকে আরেকজন মানুষের দূরত্ব ৩ ফিট থাকার কথা। এমনকি দোকানে কেনাকাটা করতে গেলেও ৩ ফিট দূরত্বে লাইন করে দাঁড়িয়ে কেনাকাটা করতে সরকারি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

উল্লেখিত সড়কগুলোতে অবাধে চলাচলকারি গণ পরিবহনগুলোতে সেই নিয়ম একেবারেই মানা হচ্ছে না। এতে এই জেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রামণ বেড়ে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।
করোনা কোভিড (১৯) ভাইরাস যাতে সংক্রমন না করে সেজন্য বাড়িতে থাকার
কথা বলা হলেও সে নির্দেশ অমান্য করে ব্যবসায়িরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অর্ধেক খোলা রেখে দোকানের সামনে বেচাকেনা করছে। এ অবস্থায় জেলা শহরের স্টেশন রোড হর্কাস মার্কেট, পুরাতন বাজার ,নতুনবাজার ও সান্দারপট্টিসহ বিভিন্ন এলাকাগুলোতেও দোকানপাট খোলাসহ লোকজনের সমাগম দেখা যাচ্ছে। গত ৩-৪ দিন শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রশাসনের টহল টিম জোরদারে সাথে মাঠে থাকায় লোক সমাগম নাই বললেই ছিল ,দোকানপাট বন্ধ, গণ পরিবহন চলাচল বন্ধ, চায়ের দোকান বন্ধ ছিল।
কিন্তু শহরে কোন টইল না থাকার কারনে আগেই মত লোক জন শহরে ঢুকছে , আড্ডা দিচ্ছে, গন পরিবহণ চলছে।
এছাড়া গ্রামগঞ্জের হাটবাজার ও মোড়গুলোতে এক সাথে বসে আড্ডা দেয়া এবং খোলা রাখা চায়ের দোকানগুরোতে চা খাওয়ার প্রবণতা সর্বাধিক।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম