1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শ্রীনগরে করোনা আতঙ্কে কর্মের উপর প্রভাব মাথার উপড় ঋণের চাপ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০১:২৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

শ্রীনগরে করোনা আতঙ্কে কর্মের উপর প্রভাব মাথার উপড় ঋণের চাপ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২২ মার্চ, ২০২০
  • ১৬১ বার

আব্দুর রকিব,শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) সংবাদদাতাঃ করোনা ভাইরাসের কারনে মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে দিনমজুর শ্রেণীর কর্মের উপরে প্রভাব পরেছে। গত ১৯ মার্চ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ব্যাংক এক গুচ্ছ ছাড় দিয়ে চারটি সার্কুলার জারি করে। একটি সার্কুলারে বলা হয় আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত সময়ের মধ্যে কোন ঋণ গ্রহীতা ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পারলেও তাকে ঋণ খেলাপী করা যাবেনা। করোনা ভইরাসের প্রভাব মোকাবেলায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ঋণ গ্রহীতাদের বিশেষ ছাড় দিলেও, মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায় গড়ে ওঠা ব্রাক, গ্রামীন ব্যাংক,পপি, রিক,আশা, প্রশিকা,রোরাল,ব্যুরো বাংলাদেশ, ব্যুরো টঙ্গাইল, পিদিম ফাউন্ডেশন ও সাজেদা ফাউন্ডেশনসহ একাধিক এনজিও প্রতিষ্ঠান ঋণ গ্রহীতাদের কিস্তি পরিশোধে কোন ধরনের ছাড় দিচ্ছেনা বলে একাধিক ভূক্তভোগীরা অভিযোগ করেন।
জানাগেছে, দিন মজুর থেকে শুরু করে নানা শ্রেনি পেশার মানুষ তাদের প্রয়োজনে পছন্দের বিভিন্ন এনজিও থেকে মাসিক ও সাপ্তাহিক কিস্তি পরিশোধের শর্তে ঋণ গ্রহন করে থাকে। নিদিষ্ট সময়ে তারা ঋণের কিস্তিও পরিশোধ করে আসছে।
উপজেলার বাঘরা ইউনিয়নের কাঠালবাড়ি গ্রামের হেনা জানায়, তার স্বামী মুকুল হোসেনের কিডনি সমস্যা নিয়েও বিভিন্ন স্কুলের সামনে মুড়ি বিক্রয় করে ঋণের কিস্তি ও সংসার চালিয়ে আসছিল। করোনাভাইরাস আতঙ্কে এখন মুড়ি বিক্রয় বন্ধ করতে পারছেনা।
শ্রীনগরের অটোরিক্সা চালক ইব্রাহীম বলেন, রাস্তায় মানুষের চলাচল কম হওয়ায় আগের মত তেমন ইনকাম হয়না। তাই, কিস্তি ও সংসার চালাতে খুব কষ্ট হচ্ছে।
হোটেল দোকানদার ইসলাম বলেন, করোনা আতঙ্কে বেচা বিক্রি কমে যাওয়ায় এনজিও’র কিস্তি ও সংসার চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। এছারা শ্যামসিদ্ধি ইউনিয়নের শাহআলী, বাঘরা কাঠালবাড়ির তাসলিমা, বালাশুর গ্রামের আসমাবেগম, বাড়ৈখালীর নিলুফা, কামারগাওয়ের ফরিদা ইয়াসমিনসহ বিভিন্ন এলাকার একাধিক ঋণ গ্রহীতারা জানায়, কয়েক দিন ধরে করোনাভাইরাস আতংকে তাদের স্বামী ও ছেলেরা ব্যবসা-বাণিজ্যসহ নিজ নিজ পেশায় কাজ করতে পারছেন না। তাদেরকে বাড়িতেই সময় কাটাতে হচ্ছে । ফলে সাংসার ও ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে চাপের মুখে পরতে হচ্ছে তাদের অনেককেই। একদিকে বিশ^ব্যাপী মানুষ যখন করোনাভাইরাস অতংকে দিন কাটাচ্ছে। অন্যদিকে শ্রীনগর উপজেলার গড়ে ওঠা এনজিও প্রতিষ্ঠান গুলো কিস্তি পরিশোধে ঋণ গ্রহীতাদের বাড়িতে বাড়িতে হানা দিচ্ছে। যে খানে ঋণ গ্রহীতাদের সংসার চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে, সেখানে এনজিওর কিস্তি পরিশোধে করোনাভাইরাসের মত আতঙ্কে দিন কাটছে ঋন গ্রহীতাদের। অনেকে প্রশ্ন তুলেছে এনজিও মাঠ কর্মীরা কিস্তি পরিশোধের জন্য গ্রহীতাদের বাড়িতে বাড়িতে যাচ্ছে, তাদের দ্বারা কি? করোনাভাইরাস ছরাতে পারেনা। তাই, মরনব্যাধী করোনাভাইরাসের সংক্রমনের কথা ভেবে এনজিও প্রতিষ্ঠান গুলোর কর্নধারসহ উপজেলা প্রশাসন ও উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের এ বিষয়ে দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছেন সচেতন মহল।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম