1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
চাঁদাবাজ মানিকের অভিনব প্রতারণা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে ফসল কর্তন উৎসব ও কৃষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত Mostbet Partners Mostbet Sports Betting & & Online Casino Associate Program Reviews বাঁশখালীতে মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে পুড়েছে চার দোকান ফাঁসিয়াখালী-মেদাকচ্ছপিয়া পিপলস ফোরাম (পিএফ) সাধারণ কমিটির সভা সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ফের ৩দিন ক্লাস বর্জনের ঘোষণা কুবি শিক্ষক সমিতির নবীনগরে পৃথক মোবাইল কোর্ট অভিযানে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী উপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা

চাঁদাবাজ মানিকের অভিনব প্রতারণা

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ জুলাই, ২০২০
  • ১২৩ বার

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি: পুলিশের তালিকাভুক্ত চাঁদাবাজ আজগর আলী মানিকের বিরুদ্ধে ১৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে।বর্তমানে টাকা না দেয়ার ফন্দিতে এই মানিক নানা ধরণের
সাজানো নাটক ও কৌশল অবলম্বন করছে বলে জানান ভুক্তভোগী বায়েজিদ থানা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল নবী লেদু।
তিনি জানান, কয়েক বছর পূর্বে বাঁশখালীর আজগর আলী মানিক সিটিজি ক্রাইম টিভি নামে একটি পেইজকে অনলাইন টিভি দাবি করে
অফিস ভাড়া নেন তার হাজী ভবনের চতুর্থ তলায়।এসময় আলহাজ্ব আব্দুল নবী লেদু এবং ভবন মালিক তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম লাকীকে বাবা-মায়ের মত শ্রদ্ধা করতো
এই চাঁদাবাজ মানিক।আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এই মানিক প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব আব্দুল নবী লেদুর সহজ সরল সহধর্মীনিকে কথিত
ওই সিটিজি ক্রাইম টিভির অংশিদার বানানোর নামে হাতিয়ে নেয় ১৭ লাখ টাকা।এরপর আজগর আলী সবার অজান্তে হঠাৎ চট্টগ্রাম ছেড়ে ঢাকায় পালিয়ে যায়।
তবে চট্টগ্রামের হাজী ভবনের এই অফিসে আজগর আলী সিন্ডিকেটের কয়েকজন নিয়মিত যাতায়াত করতো।দীর্ঘদিন ধরে টাকা ফিরিয়ে দেয়ার মিথ্যা আশ্বাসও
দেয় এই চাঁদাবাজ।সম্প্রতি আব্দুল নবী লেদুর সহধর্মীনি অফিস ভাড়া এবং পাওনা টাকার জন্য চাপ দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে অসদাচরণ করে মানিক।এবিষয়ে নগরীর
বায়েজিদ বোস্তামী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে আব্দুল নবী লেদুর সহধর্মীনি মরিয়ম বেগম লাকী।

বায়েজিদ বোস্তামী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রিটন সরকার জানান, আজগর আলী মানিকের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত চলছে।

এদিকে প্রশাসনের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে ও ১৭ লাখ টাকা আত্মসাতের উদ্দেশ্যে তালা ভাঙচুরের মিথ্যা তথ্য দিয়ে নানাধরণের বিভান্তিমূলক স্ট্যাটাস দেয় মানিক।
স্ট্যাটাসে কোন মালামাল চুরির কথা উল্লেখ করা হয় নি এবং তালা ভাঙচুরের বিষয়ে চট্টগ্রাম থানাকে অবহিত করা হয়েছে বলে লিখা হলেও এই নামে
কোন থানার অস্তিত্ব পাওয়া যায় নি ।শুধু তাই নয়,আজগর আলী মানিক সিটিজি ক্রাইম টিভি ডটকম নামক তার ব্যক্তিগত গ্রুপে বিভ্রন্তিমূলক স্ট্যাটাস দিয়ে সবাইকে
শেয়ার করার জন্য জোরপূর্বক হুমকি প্রদান করে।

জানা যায়, বহু মামলার আসামি চট্টগ্রাম থেকে পলাতক আজগর আলী মানিকের নয়াপল্টনের জামান টাওয়ারের তৃতীয় তলায় এক রুমের একটি অফিস
এবং মসজিদ গলির ২৬ নম্বর রোডে জিন্না শাহ ও কিরণ শাহ এর মালিকানাধীন বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে আরেকটি অফিস।আর
বাড়িওয়ালা তাসলিমের বিল্ডিংয়ের পঞ্চম তলায় পরিবার নিয়ে থাকে চাঁদাবাজ মানিক।

অনুসন্ধান বলছে, চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধ কর্মকান্ডে মানিকের সহযোগী হিসেবে চট্টগ্রামে কাজ করছে দীপু তালুকদার,জসিমসহ বিশাল একটি বাহিনী।
আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে নারগিস আক্তার বৃষ্টি,অনিক এঞ্জেল, ফাতেমা আক্তার,সালমা আক্তার,এম ডি সুমন,ভাইরাল খবরসহ বেশকিছু
ফেইক আইডির মাধ্যমে সক্রিয় মানিক ও তার বাহিনীর দুই সদস্য।এর মধ্যে ফাতেমা আক্তার,সালমা আক্তারসহ বেশ কয়েকটি ভুয়া আইডি পরিচালনা
করছে ৭ নং ওয়ার্ড জামায়াতের সাংগঠনিক কমিটির সভাপতি আনিসুর রহমানের অনুসারী শিবির ক্যাডার রাসেলের ঘনিষ্ঠ এক নারী । হিলভিউ
নবীনগর এলাকায় একটি মাল্টিপারপাস কোম্পানীতে কাজ করার সময় অনৈতিক কর্মকান্ডে ধরা পড়লে এলাকা থেকে বিতারিত হয় ওই নারী।আর এম ডি সুমন,ভাইরাল খবরসহ বেশকিছু ভুয়া ফেসবুক আইডি পরিচালনা করছে বন্দুকযুদ্ধে নিহত সন্ত্রাসী আক্কাসের অন্যতম এক সহযোগী।
জানা যায়, চট্টগ্রাম থেকে পালিয়ে যাওয়ার পূর্বে বহু মানুষ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়াসহ নানাভাবে হয়রানি করার অভিযোগ রয়েছে আজগর আলী মানিকের বিরুদ্ধে।
বীর মুক্তিযোদ্ধা দৌলত হোসেন,হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর,যুবলীগ নেতা নূর মোস্তফা টিনু,আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আবছারসহ অনেকের কাছ থেকে প্রায়
প্রায় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এই মানিক।টাকা ফেরত না দিতে বিভিন্ন সময় নানা অপপ্রচারও চালিয়েছেন তিনি।এমনকি চাঁদার টাকা না দেয়ায় অনেক
স্বনামধন্য ব্যবসায়ী ও চিকিৎসকের নামে ভুয়া সংবাদও প্রচার করে মানিক।এ নিয়ে আজগর আলী মানিকের বিরুদ্ধে মানববন্ধনও করে ব্যবসায়ীরা।
শুধু টাকা নিয়ে প্রতারণা করে ক্ষান্ত হয় নি মানিক।চাকরির প্রলোভনে বিভিন্ন মেয়ের জীবন নষ্ট করার অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
এত অভিযোগ থাকার পরও বরাবরই ধরাছোঁয়ার বাহিরে আজগর আলী মানিক।দ্রুত তাকে ও তার সহযোগীদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানিয়েছে সচেতন মহল।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম