1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রংপুরে ঈদুল আজহার গরু বাড়ীতে যাবে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
যাত্রীবাহি বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর নবীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক সাইফুল জাহান চৌধুরীর মতবিনিময় নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বোরহান চৌধুরীর নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের মত বিনিময় সভা ঠাকুরগাঁওয়ে ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলাকে আবদ্ধ করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন চট্টগ্রামের চন্দনাইশে পুকুরে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু তীব্র তাপদাহে রাউজানে পথচারীদের মাঝে সুপেয় পানি বিতরণ মাগুরায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৬ পরিবারের প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি! ছবি তোলার অপরাধে সাংবাদিক গ্রেফতার, অত:পর মুক্তি নবীনগরে প্রারম্ভিক শিশু বিকাশ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত মহাকবি আল্লামা ইকবালের ৮৬তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন

রংপুরে ঈদুল আজহার গরু বাড়ীতে যাবে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
  • ১১৩ বার

মোহাম্মদ নুর আলম সিদ্দিকী মানু,স্টাফ রিপোর্টার ঃ রংপুর জেলার বাসিন্দাদের জন্য পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখেই এবার বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে আক্রান্ত থেকে রেহাই পেতে নিরাপত্তা দূরত্ব বজায় রেখে ভিন্ন আংগিকে কোরবানির গরুর সংগ্রহের জন্য হাট বসিয়েছেন ইন্টারনেটের মার্ধ্যমে। রংপুর জেলার ৮টি উপজেলার মানুষের জন্য পবিত্র ঈদুল আজহার গরু ক্রয়ের মার্ধ্যম হিসেবে অনলাইনকে বেচে নিয়ে ৯টি পশুর হাট চালু করা হয়েছে। রংপুর জেলা প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর ‘পশুরহাট’ নামে একটি অনলাইন পেজ খুলে এই হাট চালু করেছে। অনলাইন পেজে গরু-মহিষ-ছাগল পালনকারিদের পশুর ছবিসহ বিভিন্ন তথ্য রয়েছে। সংশ্লিষ্ট দপ্তর আশাবাদি এই অনলাইন গরুর হাটে ব্যাপক সারা পাওয়া যাবে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
জেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, রংপুরের ৮ উপজেলায় ৮টি এবং জেলায় একটি অনলাইন পশুর হাট করা হয়েছে। ‘পশুরহাট’ নামক এই অনলাইন পেজের মাধ্যমে ক্রেতারা সহজেই গবাদি প্রাণি কেনাবেচা করতে পারবেন। এই হাট নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকবেন সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, থানার ওসি এবং উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা।
রংপুরসহ দেশের অন্য স্থানেও গবাদি প্রাণি পৌঁছে দেওয়ার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এসব বিষয়ে রেল বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করছে প্রাণিসম্পদ বিভাগ।
সূত্রমতে জেলায় গরু, ভেড়া ও ছাগল রয়েছে এক লাখ ৯০ হাজার। আর জেলায় পশুর চাহিদা রয়েছে এক লাখ ৫০ হাজার। রংপুর জেলার চাহিদা মিটিয়েও ৪০ হাজারের বেশি গরু-ছাগল উদ্বৃত্ত থাকবে। জেলায় খামারী এবং গরু পালনকারির সংখ্যা হচ্ছে ২৪ হাজার। প্রাণি সম্পদ অফিস গবাদিপশুর খামারী ও পালনকারিদের সঙ্গে যোগাযোগ ও সমন্বয় করে ক্রেতাদের কাছে এসব পশু পৌঁছে দেবেন।
খামারীদের মর্ধ্যে বেশ কয়েকজন খামারী এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, করোনা দুর্যোগে অনলাইন পশুর হাট খামারীদের পশুর ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তির পাশাপশি করোনা সংক্রমণ ঝুঁকিও কমাবে।

জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা খন্দকার শাহ জালাল শ্যামল বাংলার স্টাফ রিপোর্টার মোহাম্মদ নুর আলম সিদ্দিকী মানুকে বলেন, অনলাইনে পশুর হাটের সফলতার জন্য সব ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। অনলাইন হাটের মার্ধ্যমেই অনেকেই কোরবানির পশু কিনবেন বলে তিনি আশাবাদী।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম