সোমবার, ১৪ Jun ২০২১, ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
বিএফইউজে-ডিইউজে বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষায় বিচার বিভাগের নিরপেক্ষ ভূমিকা জরুরি আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে পুলিশের ধাওয়ায় এক নারী শ্রমিকের মৃত্যু তিতাস তাকওয়া ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাহজালাল, সম্পাদক ফারুক ও সাংগঠনিক সজীব থানায় সাধারণ ডায়েরি বা মামলা গ্রহণ করেনি মাগুরায় ১৭ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত! জেলা শহরে ও মহম্মদপুরে লকডাউন ঘোষনা উত্তরা আধুনিক মেডিকেলে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারিদের ইনজেকটিং ড্রাগ্সের রমরমা ব্যবসা স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুবিতে সশরীরে পরীক্ষা শুরু খুটাখালীতে ইজিবাইক উল্টে গৃহবধুর মৃত্যু রংপুরে ঘাঘট নদীতে দুই ভাইবোনের মৃত্যু বাঁচতে চায় কাজল রেখা, কিন্তু পরিবারের সাধ্য নেই

করোনার অধিক সংক্রমণ ও লকডাউন : দান-ছদকাহ্ পৌঁছে দিতে আহবান জানালো হাটহাজারী মাদরাসা কর্তৃপক্ষ

কে এম ইউছুফ (হাটহাজারী) চট্টগ্রাম ::

এদেশের প্রাচীন ও সর্ববৃহৎ কওমি দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হাটহাজারী মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এসে প্রথমবারের মতো সহযোগিতার আবেদন করেছে জাতীর কাছে।

বুধবার (২১ এপ্রিল) বিকেলে মাদ্রাসার নিজস্ব ফেসবুক পেইজে লাইভে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে দেশবাসীর কাছে মাদ্রাসার প্রতি সদয় এবং সহযোগিতার জন্য আকুল আবেদন জানানো হয়।

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনা পরিষদের প্রধান মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামী, মুফতি নূর আহমদ, শিক্ষা পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, পরিচালনা পরিষদ সদস্য মাও. ইয়াহিয়া, মুফাচ্ছির মুফতি জসিম উদ্দিন, সরকারি শিক্ষা পরিচালক মাওলানা শোয়াইব, মাও. আহমদ দিদার কাসেমী, মাও. কবির আহমদ, মুফতি কেফায়তুল্লাহ্, মাও. আশরাফ আলী নিজামপুরী, অধ্যাপক জাহিদ হাসান এবং জামেয়ার সকল বিভাগের শিক্ষক-কর্মচারী-কর্মকর্তাগণ উপস্থিতিতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন- শিক্ষক ড. নুরুল আফছার আজহারী।

এতে তিনি বলেন- “১৯৯০ সনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে ১২০ বৎসর আল্লাহর রহমত ও দয়া এবং সর্বসাধারণের আর্থিক অনুদান ও সাহায্য-সহযোগিতার উপর ভিত্তি করেই এ জামিয়া ইসলামের নিরলস খেদমত করে আসছে।
করোনা পরিস্থিতির জন্য সরকার কর্তৃক ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউনের কারণে জন চলাচল ব্যাপকভাবে সীমিত হয়ে পড়ায় মাদ্রাসার শিক্ষক ও প্রতিনিধিরা আপনাদের কাছে গিয়ে মাহে রমজানের জাকাত, ফিতরা ও অন্যান্য দানের অর্থ সংগ্রহে বড় ধরনের প্রতিবন্ধকতার মুখে পড়েছে। আর আল্লাহ না করুন, এবারের রমজানেও যদি জামিয়ার গোরাবা ফাণ্ডে অর্থ সংগ্রহে প্রতিবন্ধকতার মুখে পড়তে হয়, তাহলে প্রতিষ্ঠানের স্বাভাবিক শিক্ষাকার্যক্রম এবং হাজার হাজার গরীব ও এতিম ছাত্রের ভরণ-পোষণ চালু রাখা সংকটের মুখে পড়তে পারে।”

এতে আরো বলেন- “চলমান লকডাউন পরিস্থিতির কারণে এ বছরও মাদ্রাসার প্রতিনিধিরা হয়তো আপনাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগের সুযোগ পাবেন না।
গত বছরের মতো চলতি রমজানেও আপনাদের প্রিয় এই প্রতিষ্ঠানের বিশাল ব্যয় নির্বাহে সহযোগিতার অংশ হিসেবে নিজ নিজ সদকা-ফিতরা, নযর, কাফফারা ও দানের অর্থ ব্যক্তিগতভাবে বা এলাকাভিত্তিক সম্মিলিতভাবে মাদরাসার ব্যাংক একাউন্ট বা বিকাশ নম্বরে জমা করে এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম এবং বহুমুখী দ্বীনি খিদমতের ধারা অব্যাহত রাখতে সকলের প্রতি আহবান রইলো।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com