সোমবার, ১৪ Jun ২০২১, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
বিএফইউজে-ডিইউজে বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষায় বিচার বিভাগের নিরপেক্ষ ভূমিকা জরুরি আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে পুলিশের ধাওয়ায় এক নারী শ্রমিকের মৃত্যু তিতাস তাকওয়া ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাহজালাল, সম্পাদক ফারুক ও সাংগঠনিক সজীব থানায় সাধারণ ডায়েরি বা মামলা গ্রহণ করেনি মাগুরায় ১৭ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত! জেলা শহরে ও মহম্মদপুরে লকডাউন ঘোষনা উত্তরা আধুনিক মেডিকেলে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারিদের ইনজেকটিং ড্রাগ্সের রমরমা ব্যবসা স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুবিতে সশরীরে পরীক্ষা শুরু খুটাখালীতে ইজিবাইক উল্টে গৃহবধুর মৃত্যু রংপুরে ঘাঘট নদীতে দুই ভাইবোনের মৃত্যু বাঁচতে চায় কাজল রেখা, কিন্তু পরিবারের সাধ্য নেই

থানা ও ভূমি অফিস ভাংচুর মামলায় ৪জন আটক

কে এম ইউছুফ :

চট্টগ্রামস্থ হাটহাজারীতে গত ২৬ শে মার্চ থানা ভবন, ভূমি কার্যালয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগে জড়িত অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন মো. কামরুদ্দিন (২৮), আখতার মিয়া (৫৫), বখতিয়ার উদ্দিন (২৩) ও সাদেকী সাঈদ মুছা (১৯)। গত বুধবার রাতে তাঁদের হাটহাজারীর বিভিন্ন জায়গা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে চট্টগ্রাম জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাঁদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এছাড়া মাওলানা কামরুদ্দিনের পরিচয় পাওয়া গেলেও বাকি তিনজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) আফজারুল হক টুটুল বলেন- ‘হাটহাজারীতে থানায় হামলা, ভাঙচুরের ঘটনায় চারজনকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে।’ তাদেরকে হাটহাজারীর বিভিন্ন জায়গা থেকে আটক করা হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে আটকৃতদের চট্টগ্রাম জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাঁদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে কি না, প্রশ্নের জবাবে চট্টগ্রাম জেলা কোর্ট পরিদর্শক হুমায়ুন কবির বলেন- এখনো কাগজপত্র পাননি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত ২৬ মার্চ জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। প্রতিবাদে হাটহাজারীতেও বিক্ষোভ হয় এবং থানায় হামলা চালালে আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি ছোড়ে। এতে চারজন নিহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য হলো- চারজন নিহত হওয়ার জেরে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা হাটহাজারী থানা ভবন, হাটহাজারী ডাকবাংলো, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সদর ইউনিয়ন ভূমি কার্যালয়ে আংশিক অগ্নিসংযোগ ও হামলা চালান।

সরকারি হিসেবে এতে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৯২ লাখ টাকা। ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের ঘটনায় হাটহাজারী থানায় সাতটি মামলা হয় ঘটনার চার দিন পর। পটিয়া, ব্রাক্ষ্মনবাড়িয়া সহ বিভিন্নস্থানে এসব ঘটনায় পুলিশের করা মামলায় আসামি করা হয় অজ্ঞাতপরিচয় ৪ হাজার ৩০০ জনকে। সন্ত্রাসবিরোধী ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাগুলো হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com