1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রাউজানের গহিরায় কোরবানির পশুর হাটে খুঁটি ৪শ- হাসিল ৩শ টাকা-নেই সরকারী ইজারা | দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
হাটহাজারীতে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক দৈনিক ডাক প্রতিদিনের সম্পাদক আর নেই। বনানীতে টিবিএল ফুডের প্রথম সাধারন সভা অনুষ্ঠিত খুলল শিল্পকারখানা চাপে শ্রমিকরা __ দ্রুত শ্রমিকদের টিকা দিতে হবে শ্রীনগরে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ সভাপতি’র বিরুদ্ধে সাংবাদিক হাবিব আল জালালের ইন্তেকাল শ্রীনগরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মসিউর রহমান মামুন আশুরোগ মুক্তি কামনায় বিশেষ দোয়া মাহফিল চৌদ্দগ্রামে সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম ফরায়েজীর ভাই রফিকুল ইসলামের ইন্তেকাল চৌদ্দগ্রামে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ প্রদান হাটহাজারী গুমানমর্দ্দন ইউনিয়নে নজরুল সংঘ কমিটি গঠন

রাউজানের গহিরায় কোরবানির পশুর হাটে খুঁটি ৪শ- হাসিল ৩শ টাকা-নেই সরকারী ইজারা

শাহাদাত হোসেন, রাউজান প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১
  • ১৯৩ বার

রাউজানের গহিরা দলই নগর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ ও সড়কের কোরবানির পশুর হাট বসিয়ে খুঁটির ও হাসিলের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া সরকারী নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করারও অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। গতকাল ১৮ জুলাই রবিবার বাজারটি পরিদর্শন কালে দেখা গেছে স্বাস্থ্য বিধির বালাই নেই ক্রেতা বিক্রেতার মাঝে। গরু বিক্রেতারা জানিয়েছেন গরু বাধাঁর প্রতিটি খুঁটির জন্য দিতে হয়েছে ৪শত টাকা। ক্রেতাসাধারণ জানিয়েছেন প্রতিটি গরুর জন্য দিতে হয়েছে ৩শত টাকা হাসিল। রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ জানান, কালাচাঁন্দ হাট বা দলই নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের পশুর হাটে সরকারী ইজারা দেওয়া হয়নি।

যারা হাট বসিয়ে হাসিল বা খুঁটির টাকা নিচ্ছে তাহা সম্পূর্ণ অবৈধ। তিনি জানান, যারা এসবের সাথে জড়িত তাদের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরে নির্বাহী কর্মকর্তা বাজারটি পরিদর্শন করেন। এর আগে তিনি ফকির হাট পশুর বাজার পরিদর্শন করেন। সেখানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় দুইটি মামলায় এক হাজার পাঁচ শত টাকা জরিমানা আদায় করেন। কালাচাঁন্দ হাট বাজারের নানা অনিয়ম ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি উল্লেখ করে বাজার কমিটির সাবেক সভাপতি ব্যবসায়ী নাজিম উদ্দিন বলেন. আমি নয় বছর বাজার কমিটির সভাপতি থাকা কালে শুধু ২ শত টাকা করে খরচ বাবদ নিতাম। বাজারের কোন হাছিল বা খুঁটির টাকা নিতাম না। এখন মানুষের উপর জুলুমবাজি করে দ্বিগুণ হাসিল ও খুঁটির টাকা নিচ্ছেন। সড়ক দখল করে ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনে বাজার বসানো কারণে বাজারে আসা অধিকাংশ লোকজনের মধ্যে করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ বৃদ্ধি হতে পারে। তিনি এই ব্যপারে রাউজানের সাংসদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম