1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ধর্মপাশায় ৯ মাস ধরে ভিজিডির চাল না পাওয়ার অভিযােগ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মোটরসাইকেল শোডাউনের মাধ্যমে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হারুনুর রশিদ রঙ্গু’র পূজামন্ডপ পরিদর্শন মাগুরায় নির্বাচনী সহিংসতায় দু পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ!! নিহত -৪ আহত -২০ লাকসামে রাজনীতির প্রতিহিংসায় গাছের সাথে শত্রুতা! রাউজানে সুষ্ঠ ও শান্তিপুর্ণ ভাবে সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন নবীনগরে উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন কুবির দত্ত হলে জুনিয়র ছাত্রলীগ কর্মীরা মারধর করে সিনয়রকে সাঈদ হাসান,কুবি রাউজানে সব ধর্মের মানুষ অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে এমপি ফজলে করিম নবীগঞ্জে শেখ রাসেল দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত আমিলাইষের পূজামণ্ডপে আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক চৌধুরীর আর্থিক অনুদান ও কাপড় বিতরণ রিদওয়ান খালিদ চোধুরীর জন্মদিন আজ

ধর্মপাশায় ৯ মাস ধরে ভিজিডির চাল না পাওয়ার অভিযােগ

মহি উদ্দিন আরিফ ধর্মপাশা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১
  • ৭ বার

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের এক ভিজিডি কার্ডধারী ৯ মাস ধরে চাল পাচ্ছেন না বলে অভিযােগ উঠেছে। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে কার্ডধারী সাবিনা সােমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিতভাবে অভিযােগ করেছেন। লিখিত অভিযােগ ও সাবিনার পরিবার সূত্রে জানা যায়, সাবিনা ওই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের জামালপুর গ্রামের বাসিন্দা রতন মিয়ার স্ত্রী। গত জানুয়ারি মাসে পাইকুরাটি ইউনিয়নের অধীনে সাবিনার নাম ভিজিডি কর্মসূচির আওতায় আসে। সে হিসেবে সাবিনা প্রতি মাসে ৩০ কেজি করে চাল পাওয়ার কথা। কিন্তু সাবিনা গত ৯ মাসে একবারও সেই চাল পায়নি। এমনকি সাবিনার নামে ভিজিডির কার্ড বরাদ্দ হয়েছে সেটিও অজানা তাদের (সাবিনা) কাছে।

রতন মিয়া জানান, গত ১৫/২০ দিন আগে ভিজিডির চাল বিতরণের সময় ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে দেখেন স্থানীয় জুলহাস মিয়া নামের এক ব্যক্তির স্ত্রী সাবিনার কার্ড ব্যবহার করে সেই চাল উত্তোলন করে নিয়েছে।

ওই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাে. আর্শাদ মিয়া বলেন, রতনের এক ভাবী আর্থিকভাবে (অস্বচ্ছল) সাবিনার কাগজপত্র নিয়ে সাবিনার নামে ভিজিডির কার্ড করে এবং বরাদ্দের চাল সেই ভাবী উত্তোলন করছে। যদিও এটি ঠিক নয়। আর ওই ভাবীর সাথে রতনের আর্থিক বিষয় নিয়ে ঝামেলা চলছে।

পাইকুরাটি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফেরদৌসুর রহমান বলেন, বিষয়টি কেউ আমাকে জানায়নি। একজন কার্ডধারীর চাল অন্য কেউ উত্তোলনের সুযােগ নেই।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাে. মুনতাসির হাসান বলেন, এ সংক্রান্ত একটি অভিযােগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম