1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
হালদার বাস্তুতন্ত্রে অবৈধ বালু উত্তোলন ও ইটভাটার নেতিবাচক প্রভাব - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল ! সুবর্ণজয়ন্তী রোভার মুটে কুবি রোভার স্কাউটদের অংশগ্রহণ ঠাকুরগাঁওয়ে ২৫০কোটি টাকা ঋণের বোঝা ও শতকোটি লোকসান নিয়ে দীর্ঘদিন চালু ছিল চিনিকল দেশসেরা ক্যাডেট ইনসেন্টিভ এওয়ার্ড পেলেন কুবি বিএনসিসির সিইউও সাদী

হালদার বাস্তুতন্ত্রে অবৈধ বালু উত্তোলন ও ইটভাটার নেতিবাচক প্রভাব

শাহাদাত হোসেন, রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১২০ বার

বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ নামে পরিচিত প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে চলছে প্রতিনিয়ত অবৈধ বালু উত্তোলন।হালদা নদীতে বালু মহল ইজারা দেওয়া বন্ধ করা হলেও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে বালুখেকোরা হালদা নদীতে জেগে ওঠা ছায়ার চর,হালদা চর থেকে ড্রেজার দিয়ে মাটি কাটা হচ্ছে।সরেজমিনে দেখা গেছে,গত-শুক্রবার উরকিরচর ইউনিয়নের দেওয়ানজী ঘাট এলাকায় অদূরে হালদা নদীর ছায়ার চর থেকে ড্রেজার দিয়ে মাটি কেটে ১৪টি যান্ত্রিক নৌযানে পরিবহন করতে। এই সাথে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ করতেও দেখা যায়।এসব মাটি ব্যবহৃত হচ্ছে হালদার পাড়ে গড়ে ওঠা ইটের ভাটায় আর বিভিন্ন এলাকায় পুকুর-জলাশয় কৃষি জমি ভরাট কাজে।ফলে হালদার মা মাছসহ জীব-বৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়েছে।হালদা নদীর উপর পিএইচডি ও এম.এস.(থিসিস) ডিগ্রীধারী হালদা গবেষক ও চট্রগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজের জীববিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক ড. শফিকুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে হালদা নদীর বিভিন্ন অংশ থেকে অবৈধভাবে প্রতিনিয়ত বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।

পাশাপাশি হালদা তীরের বিভিন্ন ইটভাটার জন্য হালদার তীরে জেগে ওটা চর থেকে ড্রেজার দিয়ে মাটি কেটে ইঞ্জিন চালিত নৌকা করে ইটভাটায় ইট তৈরির জন্য স্তুপ করা হচ্ছেবাংলাদেশ বালুমহাল ও মাঠি ব্যবস্থাপনা আইন-২০১০ মতে, বিপননের উদ্দেশ্যে কোনো উন্মুক্ত স্থান, চা-বাগানের ছড়া, বা নদীর তলদেশ থেকে বালু বা মাঠি উত্তোলন করা যাবেনা। প্রতিনিয়ত অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও নদীর চরকাটার ধ্বংসাত্মক প্রভাব পড়বে নদীর সামগ্রিক বাস্তুতন্ত্রে।বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন-২০১০ ও ইটভাটা নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৩ অনুযায়ী বসতি এলাকা,পাহাড়, বন ও জলাভুমির এক কিলোমিটারের মধ্যে কোনো ইটভাটা নির্মাণ করা যাবেনা এমনকি কৃষিজমিতে ও ইটভাটা নির্মাণ অবৈধ। ইট পোড়ানো নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী কৃষিজমির উপরিভাগের মাটি কেটে শ্রেনী পরিবর্তন করা ও সম্পুর্নভাবে নিষিদ্ধ ও দন্ডনীয় অপরাধ।ইট ভাটার ও অবৈধ বালু উত্তোলনের মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব থেকে দেশের অন্যতম প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্রকে সংরক্ষণে অর্থাৎ হালদার বাস্তুতন্ত্রকে জলজ প্রানির জন্য নিরাপদ করার জন্য পরিবেশ বান্ধব ইটভাটা গড়ে তুলতে হবে। বালু উত্তোলনরোধে বালুমহল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন-২০১০ সঠিকভাবে কার্যকর করতে স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি পরিবেশ অধিদপ্তরকে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম