1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ঘুষ দুর্নীতির বরপুত্র ওসি নন্দনের বিলাসী জীবনযাপন, স্ত্রীর নামে আলীশান বাড়ি গাড়ি - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১০:৫০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মানিকছড়ি উপজেলা বিএনপি কাউন্সিল-২০২২অনুষ্ঠিত সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত রাউজানে কৃষক-কৃষাণি’র মুখে হাসি ফোটাতে ধান কেটে দিলো কৃষক লীগ আনোয়ারায় তোষামোদকারী সাংবাদিকতা ছেড়ে আপোষহীন সাংবাদিকতার আহবান ঠাকুরগাঁওয়ে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈল ও বালিয়াডাঙ্গী ৪৭ টি ভাটাতে ইট পোড়ানো প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও আগুন জ্বালানো অনিশ্চিত ! নোয়াখালীতে ৯ টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম হচ্ছে- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বাঁশখালীতে মধ্যরাতের অগ্নিকান্ডে পুড়ল ২ দোকান ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি ক্ষমতায় আসতে চায় : আসাদুজ্জামান খান কামাল। সমমনা পরিষদ বনশ্রীর বার্ষিক বনভোজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

ঘুষ দুর্নীতির বরপুত্র ওসি নন্দনের বিলাসী জীবনযাপন, স্ত্রীর নামে আলীশান বাড়ি গাড়ি

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৮৮ বার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঘুষ দুর্নীতির ও রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুপাটের কোটি কোটি টাকা আয়ে খুব বিলাশী জীবন যাপন করেন ওসি নন্দন। তিনি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানার আলোচিত সাবেক ওসি।

বর্তমানে সুনামগঞ্জ আদালতে কোর্ট ইন্সপেক্টর হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। তার গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জে।

দৈনিক ৩০ লক্ষ টাকা চাঁদা তুলা সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানার সাবেক ওসি নন্দন কান্তি ধর। তার এসব ঘুষ দুর্নীতি ও লস্ট্রীয় সম্পদ লুপাটের বিষয়ে দুদকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালে তাহিরপুর থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকেই শুরু হয় তার বিলাশ বহুল জীবন-যাপন। তাহিরপুর উপজেলায় থাকাকালেই গানের মডেল হয়েছেন তিনি।

“তুমি শুধু তুমি” গানের মাধ্যমে নিজেকে মডেল হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন তিনি। চলমান দুর্নীতি বিরোধী অভিযানের সময়ও ছিলেন সিঙ্গাপুরে। একজন সাধারণ পুলিশের কর্মকর্তা এতো বিলাসী জীবন যাপন ও দুর্নীতির অভিযোগ হওয়ার পর থেকে তার বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ কেন পুলিশ প্রশাসন নিচ্ছে না সে বিষয়ে প্রশ্ন সাধারণ মানুষের।

মঙ্গলবার দুপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের তাহিরপুর থানার সাবেক ওসি নন্দন কান্তি ধরের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করার পর থেকে ২০১৮ সালের একটি ভিডিও গান ভাইরাল হয়েছে।

তাছাড়া তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে অভিযোগ ২০০ ড্রেজার দিয়ে তাহিরপুরের যাদুকাটা নদী থেকে প্রতিদিন ১৫ হাজার টাকা করে ৩০ লক্ষ টাকা চাঁদা তুলছেন তিনি। রোববার এমনই অভিযোগ করেন তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল এলাকার বাসিন্দা সেলিম ইকবাল।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিডিও প্লাটফর্ম ইউটিবে, তুমি শুধু তুমি গানের তথ্য হতে জানাযায়, ২০১৮ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারী সংগীত শিল্পী শুভ চৌধুরী ও পপি চৌধুরীর গাওয়া গানের মডেল হন ওই সময়ে দায়িত্বে তাহিরপুর থানায় দায়িত্বে থাকা ওসি নন্দন কান্তি ধর। তার সাথে সহযোগি মডেল হিসেবে ছিলেন, উর্মি।

তাছাড়া তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর দায়িত্বে থাকাকালীন সময়ে তাহিরপুরের এক বিবাহিত কনষ্টেবল এসআই পদের জন্য আবেদন করলে ওসি নন্দন কান্তি ধর কয়েকলাখ টাকা ঘুষের বিনিময়ে সেই কনস্টেবলকে অবিবাহিত বলে ভেরিফিকেশন প্রদান করেন।

পরবর্তীতে ওই কনস্টেবল ট্রেনিংয়ে গেলে তার বিবাহর বিষয়টি তদন্তে বেরিয়ে আসে এবং ওই কনস্টেবলকে চাকুরিচ্যুত করা এবং ওসি নন্দন কান্তি ধরের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশ হেকোয়ার্টার থেকে নির্দেশনা দিলেও কাড়ি কাড়ি ঠাকা ঢেলে তা ধামাচাঁপা দেয়া হয়। তার বিরুদ্ধে এখনো কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি বলে জানা যায়।

তাছাড়া ওসি নন্দন বিভিন্ন সময় দেশে ও দেশের বাহিরে প্রমোদ ভ্রমনে গেলেও সেখানে তিনি মদ্যপান করেন এবং বিভিন্ন ব্রান্ডের দামি মদের বোতলের ছবি ফেইসবুকে আপলোড করেন। তার স্ত্রী নামে সিলেটে রয়েছে বিলাসবহুল বহুলতল বাড়ি ও একটি দামি ব্রান্ডের গাড়ি।

তাহিরপুর উপজেলায় থাকাকালীন ওই উপজেলার উনার আত্মীয় থাকায় পুলিশ কর্মকর্তা থেকে হয়ে যান কারো ভাই বা দাদা, কারো ভাগিনী জামাই আবার কারো কারো জামাইবাবু।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তাহিরপুর এলাকার এক বাসিন্দা বলেন, তাহিরপুর থানায় দায়িত্বরত থাকাবস্থায় তাহিরপুর থানা কোয়ার্টারে এসি ব্যবহার করছেন ওসি নন্দন। তাছাড়া তিনি সিলেটে মহানগরীতে স্ত্রীর নামে তৈরি করেছেন বিলাসবহুল বাড়ি ও কিনেছেন দাবি ব্রান্ডের গাড়ি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, একজন ওসি দায়িত্বে থাকাকালীন সময়ে কোন ধরনের চলচিত্র বা গানের মডেল হতে পারেন না। সেটা হবে তার দায়িত্বে অবহেলা।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানার সাবেক ওসি নন্দন কান্তি ধরের সাথে ভারপ্রাপ্ত যোগোযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি কোন গানে মডেলিং করেনি। এসব বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

বুধবার রাতে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার (পদোন্ততি প্রাপ্ত) মো.মিজানুর রহমান বলেন, যদি কোন পুলিশ কর্মকর্তা উর্ধ্বোতন কতৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে কোন গানের মডেল বা চলচিত্রে অংশগ্রহন করে তাহলে সমস্যা হবে না, যদি সে অনুমতি না নিয়ে কোন মডেলিং করে থাকে তাহলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম