বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
হত্যাকান্ডের ৯ দিন পর খুনিকে গ্রেপ্তার করেছে র্্যাব মাগুরা শ্রীপুরের জনপ্রিয় শিক্ষক আমিরুজ্জামান সেলিমের ইন্তেকাল বাকলিয়ার সন্ত্রাসী এয়াকুবসহ চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার দাবি চট্টগ্রামে বায়েজিদ লিংক রোডে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে পাহাড়ের বসতিদের উচ্ছেদ অভিযান শুরু পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টায় নাসির উদ্দিন গ্রেফতার রাউজানের গণি পাড়ার মেয়ে কিংবদন্তি শাবানার গ্রামের বাড়িতে বছরে পর বছর ঝুলছে তালা র‌্যাব ক্যাম্পের অভিযান : দুই মাদক কারবারি আটক সদ্য নবনির্বাচিত দিনাজপুর চেম্বারের রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী (শামীম) পরিষদের বিজয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানালো পরিবেশক সমিতি দিনাজপুর কোম্পানীগঞ্জে সিএনজি ধর্মঘটের ঘোষণা পৌর মেয়র কাদের মির্জা’র চট্টগ্রামের বাকলিয়ার এয়াকুব আলী বাহিনীর চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন

আশুলিয়া সেই যুবককে হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৩ বন্ধুকে গ্রেফতার

মোহাম্মদ নুর আলম সিদ্দিকী মানু,স্টাফ রিপোর্টারঃ

সাভারের আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় হত্যাকান্ডের শিকার অজ্ঞাত যুবকের পরিচয় মিলেছে । সেই সংগে হত্যার রহস্য উদঘাটন করে ৩ হত্যাকারীকে গ্রেফতারও করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

বুধবার (২৬ মে) রাতে গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত তিনজনই একে অপরের বন্ধু এবং একই জেলায় বাড়ি বলেও জানা গেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- পাবনা জেলার সাথিয়া থানার ধুলাউড়ি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আব্দুল আলীম (১৭),ও মাহাতাব ব্যাপারীর ছেলে
সোহেল (২২), একই এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে জিহাদ। তারা সকলেই দিনমজুরীর কাজ করতো।

উদ্ধারকৃত মরদেহটি পাবনা জেলার বেড়া থানার মঞ্জু মিয়ার ছেলে আল-আমিন (২০) । মৃত্যু আল-আমিনও গ্রেফতারকৃতদের বন্ধু ছিলেন বলে জানিয়েছেন তার পরিবার ।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার এস আই ফজর আলী জানান, নিহতের মোবাইলের অবস্থান শনাক্ত করে তদন্ত শুরু করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

মোবাইলের অবস্থান অনুযায়ী গাজীপুরের কোনাবাড়ি এলাকার একটি দোকানে মোবাইল বিক্রি করতে যায় আসামিরা।
সেসময় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

পরে গ্রেপতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সকলেই একে অপরের বন্ধু। তবে সোহেল নিহত আল-আমীনের কাছ থেকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ৯০ হাজার টাকা নেয়। পরে চাকরি দিতে না পারায় টাকা ফেরৎ চাইলে টালবাহানা করতে থাকে। পরে আল-আমীন বন্ধু সোহেলকে টাকার জন্য চাপ সৃস্টি করার এক পর্যায়ে অপমান অপদস্ত করলে এর প্রতিশোধ হিসেবে গ্রেফতার তিন বন্ধু একত্রিত হয়ে আল-আমীনকে হত্যার পরিকল্পনা করে কাঠগড়ার পুকুরপাড়ের শামসুন্নাহারের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে সেখানেই গত ২২ মে রাতে তিন বন্ধু মিলে আল-আমীনকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

গত রবিবার (২৩ মে) রাত ১ টার দিকে আশুলিয়ার কাঠগড়ার পুকুরপাড়ের ওই বাড়ি থেকে আল-আমীনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত ১৯ মে পুলিশের সোর্স পরিচয় দিয়ে শামসুন্নাহারের বাসা ভাড়া নেয় সোহেল । পরে ২৩ মে সকাল থেকে ঘরের দরজায় তালা ঝুলতে দেখেন বাড়িওয়ালা। রাতে ঘর থেকে পঁচা গন্ধ বের হলে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পরে খবর পেয়েই আশুলিয়া থানা পুলিশ রাত ১ টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com