1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
দুর্গম মাইরংপাড়ায় মিলন ত্রিপুরার বাড়িতে গেলেন গুইমারা উপজেলার মানবিক নির্বাহী অফিসার। | দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
হাটহাজারীতে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক দৈনিক ডাক প্রতিদিনের সম্পাদক আর নেই। বনানীতে টিবিএল ফুডের প্রথম সাধারন সভা অনুষ্ঠিত খুলল শিল্পকারখানা চাপে শ্রমিকরা __ দ্রুত শ্রমিকদের টিকা দিতে হবে শ্রীনগরে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ সভাপতি’র বিরুদ্ধে সাংবাদিক হাবিব আল জালালের ইন্তেকাল শ্রীনগরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মসিউর রহমান মামুন আশুরোগ মুক্তি কামনায় বিশেষ দোয়া মাহফিল চৌদ্দগ্রামে সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম ফরায়েজীর ভাই রফিকুল ইসলামের ইন্তেকাল চৌদ্দগ্রামে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ প্রদান হাটহাজারী গুমানমর্দ্দন ইউনিয়নে নজরুল সংঘ কমিটি গঠন

দুর্গম মাইরংপাড়ায় মিলন ত্রিপুরার বাড়িতে গেলেন গুইমারা উপজেলার মানবিক নির্বাহী অফিসার।

আবদুল আলী, গুইমারা খাগড়াছড়ি।
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৩০৮ বার

খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা উপজেলার গুইমারা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের দূর্গম মাইরংপাড়ায় হতদরিদ্র মিলন ত্রিপুরার বাড়ীতে সরেজমিনে গিয়ে তার সাথে কথা বলে তার ঝুপড়ী ঘরটি খুব তারাতাড়ি পাকা ঘরে রুপান্তরিত হবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন গুইমারা উপজেলার মকনবিক নির্বাহী অফিসার তুষার আহমেদ। গুইমারা উপজেলার গুইমারা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের আওতাধীন হলেও মাইরংপাড়াটি গুইমারা উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ও অত্যান্ত দূর্গম। মাটিরাঙ্গা উপজেলার দূর্গাবাড়ী দিয়ে যেতে হয় এ পাড়াটিতে। দূর্গমপথ পাড়ি দিয়ে ১নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হরিপদ্ধ ত্রিপুরাকে সঙ্গীকরে শনিবার মিলন ত্রিপুরার বাড়ীতে যান উপজেলা নির্বাহী অফিসার।এ বিষয়ে জানতে চাইলে গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তুষার আহমেদ বলেন ১ম পর্যায়ে করা ঘরের তালিকায় নাম ছিল মিলন ত্রিপুরার কিন্তু দুর্গম এলাকা বিধায় ১ম পর্যায়ে ঘর নির্মাণ করা যায়নি। দুর্গম এলাকা সত্বেও ঘর নির্মাণ করার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে খুব দ্রুত তার ঘর নির্মাণ করার ব্যাবস্হা করা হবে । তৎখনাত খাদ্য শস্য ক্রয়ের জন্য ১০০০/- টাকা দেন তিনি তাছাড়া ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ৫০০/- টাকা প্রদান করেন।
উল্লেখ্য যে সম্প্রতি মিলন ত্রিপুরার দূর্দশা নিয়ে ফেইসবুকে পোষ্ট করেন রানা ত্রিপুরা নামের একজন আর তা দেখে কোন কালক্ষেপণ না করে দ্রুত গতিতে ব্যাবস্হা নিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম