1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসন সঠিক পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হওয়া দরকার - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
রাউজানে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু আনোয়ারা প্রেস ক্লাবের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রাউজানে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গাপূজা অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় : এমপি হানিফ ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীর শাকিল হত্যা মামলার আসামি এক মাস ধরে পলাতক, ইউপি চেয়ারম্যানকে খুঁজছে পুলিশ ! উন্নয়নের সুষম বণ্টনই আমার প্রধান লক্ষ্য : নিবাচনী প্রচারণায় ভার্ড কামাল বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক স্পর্শে প্রাণ গেল যুবকের! ঠাকুরগাঁও থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী গাজীপুর থেকে উদ্ধার —আসামীরা পলাতক ! ১০ বছরেও সংস্কারের মুখ দেখেনি শীলকূপ-গন্ডামারা সড়ক, খানাখন্দে বেহাল জনদুর্ভোগ

রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসন সঠিক পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হওয়া দরকার

__ মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার __
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১
  • ১০৫ বার

রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে এক যুগে প্রায় ৩২০০ কোটি টাকা ব্যয় করা হলেও এখনো সামান্য বৃষ্টিতে নগরবাসীকে কতটা দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে, তা ভুক্তভোগী মাত্রই জানেন। প্রশ্ন হলো, এই বিপুল অঙ্কের টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হলেও নগরবাসী এর সুফল পাচ্ছে না কেন? গলদটা কোথায়? বর্তমানে কয়েক ঘণ্টার বৃষ্টিতে রাজধানীর বেশির ভাগ এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। কোথাও কোথাও সড়কে হাঁটুপানি জমে যায়। এতেই বোঝা যায়, জলাবদ্ধতা নিরসনে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিকল্পনায় গলদ রয়েছে। বস্তুত রাজধানীর চারপাশের নদ-নদীর সঙ্গে খালগুলোর পানি নিষ্কাশন বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় নগরীর পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা হয়ে পড়েছে পাম্পিংনির্ভর। এ অবস্থায় সামান্য বৃষ্টিতেই রাজধানীর প্রধান সড়ক থেকে শুরু করে অলিগলি তলিয়ে যাচ্ছে।

১০০ বছরেরও বেশি আগে ব্রিটিশ নগর পরিকল্পনাবিদ স্যার প্যাট্রিক গেডিস ঢাকা শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে শহরের ভেতরের এবং আশপাশের নদী, খালসহ প্রাকৃতিক জলাধারগুলোর রক্ষণাবেক্ষণে বিশেষ গুরুত্ব প্রদানের কথা বলেছিলেন। দীর্ঘ সময় পর এখনো অনেক নগর পরিকল্পনাবিদ একই কথা বলছেন। বাস্তবতা হলো, অবৈধ দখলের কারণে রাজধানীর ভেতরের অধিকাংশ খালের অস্তিত্বই এখন আর খুঁজে পাওয়া যাবে না। যে কয়টির অস্তিত্ব এখনো বিদ্যমান, সেগুলো অবৈধ দখলের কারণে পরিণত হয়েছে সরু নালায়। জানা গেছে, সীমানা নির্ধারণজনিত জটিলতার কারণে রাজধানীর খালগুলোর উদ্ধার প্রক্রিয়া আটকে আছে। এ কাজে কাঙ্ক্ষিত গতি না এলে যত পরিকল্পনাই বাস্তবায়ন করা হোক না কেন, জলাবদ্ধতা নিরসনে সেসব কতটা ভূমিকা রাখবে, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়।

রাজধানীর জলাবদ্ধতা সমস্যার সমাধান না হওয়ার আরেকটি বড় কারণ দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থাগুলোর সমন্বয়হীনতা, যা বহুল আলোচিত। সম্প্রতি ঢাকা ওয়াসার কাছ থেকে রাজধানীর খালগুলোর দায়িত্ব দুই সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এটি একটি ইতিবাচক উদ্যোগ। বাকি খাল ও জলাধারগুলোর দায়িত্ব অন্যান্য সংস্থার কাছ থেকে দুই সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করা দরকার। রাজধানী ও এর আশপাশের খালগুলো উদ্ধারের পর যথাযথভাবে রক্ষণাবেক্ষণের পাশাপাশি পানি নিষ্কাশনের লক্ষ্যে সঠিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হলে তা নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। একই সঙ্গে রাজধানী ও এর আশপাশের নদী ও প্রাকৃতিক জলাধারগুলোর রক্ষণাবেক্ষণে কার্যকর উদ্যোগ নেওয়া হলে সেগুলোও জলাবদ্ধতা নিরসনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এ বিষয়ে যখন যে উদ্যোগই নেওয়া হোক না কেন, টেকসই সমাধানের লক্ষ্য বিবেচনায় রাখতে হবে। বিভিন্ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। খাল বা প্রাকৃতিক জলাধারগুলোর রক্ষণাবেক্ষণে স্থানীয় জনগণ কী ভূমিকা রাখতে পারে তা তাদের জানাতে হবে; একই সঙ্গে জনগণের দায়িত্বহীন কর্মকাণ্ড সমস্যাকে কতটা জটিল করে তুলবে, তাও তাদের কাছে স্পষ্ট করতে হবে। রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে যেসব প্রতিষ্ঠানের প্রত্যক্ষ ভূমিকা রয়েছে সেগুলো এক ছাতার নিচে আনা জরুরি। এ উদ্যোগ নেওয়া দরকার এখনই। একই সঙ্গে জলাবদ্ধতা সমস্যার টেকসই সমাধানে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। জলাবদ্ধতার কারণে বন্দরনগরী চট্টগ্রামসহ দেশের অন্যান্য শহরের মানুষকেও অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সেসব নগরীর দিকেও অবিলম্বে দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন।

লেখকঃ বিশেষ প্রতিবেদক শ্যামল বাংলা ডট নেট | সদস্য ডিইউজে | ও প্রকাশকঃ বাংলাদেশ জ্ঞান সৃজনশীল প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান |

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম